Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

ইহুদি পুরস্কার জিতে নিলো আরব গায়িকা

জেরুজালেম, ১১ এপ্রিল: ইসরাইলে বসবাসরত সংখ্যালঘু আরব তরুণী জিতে নিলেন ইহুদি সংগীতের এক শীর্ষ পুরস্কার৷ এই সিদ্ধান্তের ফলে সমালোচনায় পড়েছে আয়োজকরা৷ তবে সমালোচকদেরকেও কড়া জবাব দিয়েছেন উপস্থাপক গোলান৷

নিসরেন কাদের৷ ২৫ বছর বয়সি এই তরুণী ইসরাইলি আরব৷ বসবাস করেন ইসরাইলের উত্তরাঞ্চলীয় শহর হাইফায়৷ এই আরবি নারীই জয় করেছেন ইসরাইলের জনপ্রিয় একটি সংগীত প্রতিযোগিতার বিজয়ীর মুকুট৷

‘এইয়াল গোলান ইজ কলিং ইউ’- নামে গত ক’মাস আগে একটি সংগীত প্রতিযোগিতার আয়োজন করে ইসরাইলি এক টিভি চ্যানেল৷

ইহুদিদের সংগীতের ঐতিহ্যবাহী ধারা ‘মিজরাহি’ গানের প্রতিযোগিতার এই আসরটি প্রায় তিন মাস ধরে চলে৷ তার পর গত মার্চে চূড়ান্ত ফলাফলে শীর্ষ বিজয়ীর নাম হিসেবে উঠে আসে নিসরেন কাদের এর নাম৷

পুরস্কার অর্জনের পর বার্তা সংস্থা এপি-কে দেয়া সাক্ষাৎকারে নিসরেন বলেন,‘‘আমি ভীষণ আনন্দিত ও গর্বিত৷ কারণ আমি হলাম প্রথম আরব যে এই পুরস্কার অর্জন করেছে৷”

নিসরেন আরো বলেন, ‘‘আরব ও ইহুদিদের মাঝে ভীষণ দ্বন্দ্ব ভরা সম্পর্ক৷ তাই, আমার মতো একজন আরবি সংখ্যালঘুকে তারা শীর্ষ আসনের জন্য মনোনীত করবে, এটা আমি ভাবতেও পারি নি৷”

‘এইয়াল গোলান ইজ কলিং ইউ’ এর উপস্থাপক এইয়াল গোলান-ও এপি-কে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘‘নিসরেন-কে বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করায় অনেকেই আমার সমালোচনা করছে৷ তাদের মতে, সংখ্যালঘু আরব নারী নিসরেনকে ইহুদিদের এতো বড় একটা পুরস্কার দেয়া উচিত হয় নি৷”

তবে, সমালোচকদের কথাকে মোটেই পাত্তা দেন নি গোলান৷ সবার মুখের উপর তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ‘‘অসাধারণ গানের গলা, দরদমাখা সুর আর নিপুণ গায়কীর গুণে নিসরেন-ই এই আসরের সবার চেয়ে সেরা৷ তাই এ পুরস্কার একমাত্র তারই প্রাপ্য৷”

ইসরাইল-ফিলিস্তিনি বা ইহুদি-আরব সম্পর্কের তিক্ত রাজনৈতিক দিককে সামনে এনে যারা সমালোচনা করছেন, তাদেরকেও কড়া জবাব দিয়েছেন উপস্থাপক গোলান৷ তিনি বলেছেন, ‘‘আমি এখানে কোনো রাজনৈতিক অনুষ্ঠান করছি না৷ ইহুদি হোক আর আরব-ই হোক, শেষ বিচারে আমার কাছে সে একজন শিল্পী-ই৷” সূত্র: ডয়চে ভেলে।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট