Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

মেঘনা নদী দখল বন্ধে পরিবেশ অধিদপ্তরের নোটিস

নারায়ণগঞ্জ, ৮ এপ্রিল: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার ঝাউচরে মেঘনা নদী অবৈধভাবে দখল করে খুঁটি বসানো, সব ধরনের স্থাপনা ও নির্মাণ কাজ এবং নদী তীরবর্তী এলাকায় বালি ভরাট কার্যক্রম বন্ধ রাখার জন্য নোটিশ দিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তর।

একই সঙ্গে দখলের অভিযোগে দায়ী প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে রোববার পরিবেশ অধিদপ্তরের সদর দপ্তরে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। শনিবার অবৈধ দখলকারী প্রতিষ্ঠানকে এই নোটিশ দেয়া হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তর এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, মেঘনা দখল নদী দখল করে অবৈধভাবে খুঁটি বসানো, সব ধরনের স্থাপনা ও নির্মাণ এবং নদীর তীরবর্তী এলাকায় বালি ভরাটের ঘটনা সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হলে পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক (এনফোর্সমেন্ট) মোহাম্মদ মুনীর চৌধুরী ঘটনা তদন্ত করে জরুরি ভিত্তিতে তদন্ত রিপোর্ট দেয়ার জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালককে নির্দেশ দেন।

এই নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে স্থানীয় পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা স্থানটি সরেজমিন পরিদর্শন করে লিখিত রিপোর্টে জানান, মেঘনা নদীর ঝাউচর এলাকায় নদীর একাংশ গাছের পাইলিং করে দখল করা হয়েছে এবং দখলকৃত স্থান নদীর ভেতরে ১৫০-২০০ ফুট পর্যন্ত বিস্তৃত, যার দৈর্ঘ্য নদীর তীর বরাবর ৪০০-৫০০ ফুট। পরিদর্শনকালে মালিক পক্ষের কাউকে পাওয়া যায়নি। শিগগিরই জেলা প্রশাসনের সহায়তায় দখলকৃত স্থানের ভূমি সম্পর্কিত বাস্তব চিত্র উদঘাটন করে দায়ী ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ (সংশোধিত-২০১০) অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং নদীর দখলকৃত অংশ উদ্ধারে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

 

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট