Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

দরপত্র ছাড়াই ছয়টি ব্লকে অনুসন্ধান চালাতে চায় কনকোফিলিপস

ঢাকা, ৩ এপ্রিল: পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান ড. হোসেন মনসুর জানালেন, আমেরিকান প্রতিষ্ঠান কনকোফিলিপস বাংলাদেশের ছয়টি গভীরসমুদ্র গ্যাস ব্লক অনুসন্ধানের অধিকার চেয়ে তাদের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে। সোমবার জ্বালঅনি বিষয়ক একটি বিদেশী ওয়েবসাইটকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে হোসেন মনসুর এই তথ্য জানান।

 

তবে প্রাপ্ত তথ্যে দেখা যায়, কনকোফিলিপস কোনো প্রকার আন্তর্জাতিক দরপত্র ছাড়াই আমেরিকার রএই প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশের সমুদ্রসীমায় এই ছয়টি ব্লকে হাইড্রোকার্বন জরিপ চালাতে চাইছে।

 

সমুদ্রসীমা বিরোধ নিষ্পত্তির কাজে নিয়োজিত জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক ট্রাইবুন্যালে মিয়ানমারের কাছ থেকে সমুদ্রজয়ের পর বাংলাদেশের সমুদ্রসীমায় গ্যাস ব্লক পুনর্বিন্যাসের কথা ভাবছে বাংলাদেশ সরকার।

 

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, বাংলাদেশের সমুদ্রসীমায় অবস্থিত ব্লকগুলোতে প্রচুর পরিমাণে হাইড্রোকার্বন থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। আর আমেরিকার তেল-গ্যাস জায়ান্ট কনকোফিলিপস সম্ভাবনাময় ছয়টি ব্লকে অনুসন্ধান কাজ চালানোর অনুমতি চেয়েছে।

 

গেল সপ্তাহে কনকোফিলিপস পেট্রোবাংলাকে চিঠি দিয়ে তাদের আগ্রহের কথা জানায়। ওই ছয়টি গভীরসমুদ্র গ্যাস ব্লকের মধ্যে চারটি নিয়ে মিয়ানমারের সঙ্গে এবং দুইটি গ্যাস ব্লক নিয়ে ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বিরোধ ছিল। ওই ছয়টি গ্যাস ব্লক হলো- মিয়ানমারের সঙ্গে ডিএস-০৮-১২, ডিএস-০৮-১৬, ডিএস-০৮-১৭ এবং ডিএস-০৮-২১: ভারতের সঙ্গে ডিএস-০৮-১৫ এবং ডিএস-০৮-২০।

 

তবে পেট্রোবাংলার কাছে এখনো কোনো অফিসিয়াল চিঠি এসে পৌঁছায়নি যে, এই ছয়টি ব্লকের মধ্যে কোনো ব্লকগুলো নিয়ে বিরোধের মীমাংসা হয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ট্রাইবুন্যালে।

 

পেট্রোবাংলার পিএসসি’র (প্রডাকশন শেয়ারিং কন্ট্রাক্টস) ডিরেক্টর মুহাম্মদ ইমামুদ্দিন জানান, তাদের হাতে অফিসিয়াল চিঠি এসে পৌঁছালেই তারা জানাতে পারবে এর মধ্যে কোনো ব্লকগুলো নিয়ে সব বিরোধের মীমাংসা হয়েছে।

 

চিঠি পাওয়ার পর কনকোফিলিপসের হাতেই কি গ্যাস ব্লক অনুসন্ধানের অধিকার তুলে দেয়া হবে কিনা জানতে চাইলে  মুহাম্মদ ইমামুদ্দিন বলেন, “এটা সরকারের ব্যাপার। সরকার নির্ধারণ করবে, কাকে এই অনুসন্ধানের দায়িত্ব দেবে।”

 

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট