Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

টিপাইমুখ নিয়ে সরকার লুকোচুরি খেলছে: আবুল মকসুদ

ঢাকা, ৩০ মার্চ: বিশিষ্ট লেখক-বুদ্ধিজীবী সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেছেন, ‘‘টিপাইমুখ নিয়ে সরকার লুকোচুরি শুরু করেছে। টিপাইমুখ বাঁধ নির্মাণে ভারতকে একদিকে মৌন সম্মাতি দিচ্ছে, অন্যদিকে সরকার বলছে টিপাইমুখ বাঁধে বাংলাদেশের কোনো ক্ষতি হলে বাধা দেয়া হবে। সরকার টিপাইমুখ নিয়ে জনগণের সাথে মিথ্যাচার করছে।’’

 

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) ও জাতীয় নদী রক্ষা আন্দোলনের যৌথ উদ্যোগে টিপাইমুখ ড্যাম বিষয়ে যৌথ সমীক্ষা কমিটিতে পানি, নদী, পরিবেশ বিশেষজ্ঞদের অন্তর্ভুক্ত করার দাবিতে এক নাগরিক সমাবেশ তিনি এসব কথা বলেন।

 

সৈয়দ আবুল মকসুদের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন বাপা’র সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. আব্দুল মতিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল, বাপা’র যুগ্ম সম্পাদক মিহির বিশ্বাস, স্থপতি ইকবাল হাবিব ও আলমগীর কবির, রুহিন হোসেন প্রিন্স, বাপা’র নির্বাহী সদস্য ড. মাহবুব হোসেন, সেবা’র নির্বাহী পরিচালক।

 

সরকারকে উদ্দেশ্য তিনি বলেন, ‘‘আপনারা টিপাইমুখ বাঁধের পক্ষে না বিপক্ষে জনগণের সামনে তা ষ্পষ্ট করুন।’’

 

তিনি বলেন, টিপাইমুখ বাঁধ নিয়ে বাংলাদেশ সরকার  যৌথ সমীক্ষা দলের পক্ষ থেকে যে কয়েকজনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে তারা শুরু থেকেই টিপাইমুখের পক্ষেই সাফাই গেয়ে আসছেন।’’ নিরপেক্ষ প্রতিনিধি দল ছাড়া টিপাইমুখের সঠিক তথ্য পাওয়া যাবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘‘যৌথ সমীক্ষা কমিটিতে পানি, নদী, পরিবেশ বিশেষজ্ঞদের অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।’’

 

তিনি বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী সিলেট জনসভায় বলেছেন, টিপাইমুখ ড্যাম নির্মাণে দেশের ক্ষতি হলে বাংলাদেশ মানবে না। অথচ ভারতীয় পত্র পত্রিকায় বাংলাদেশের মৌন সম্মতির বিষয়টি প্রকাশ পেলেও সরকার কোনো প্রতিবাদ করেনি।’’

 

তিনি বলেন, ‘‘প্রয়োজনবোধে সমীক্ষা প্রক্রিয়াটি একটি তৃতীয় দেশের কোনো নিরপেক্ষ ও যোগ্যতাসম্পন্ন বিশেষজ্ঞ টিম দিয়ে করানো হোক।’’

 

বক্তারা বলেন, টিপাইমুখ ড্যাম নিয়ে সরকার আগে থেকেই অবহেলা করেছে। তারা অভিযোগ করে বলেন, তাদের একান্ত ব্যক্তিদের সমন্বয়ে টিপাইমুখ বাঁধের যৌথ প্রতিনিধি দল গঠনের মধ্য দিয়ে সরকার এই ‘সিরিয়াস’ বিষয়টিতে তাদের নির্মোহ পরিবেশ, দেশ ও জনগণের স্বার্থপন্থী অবস্থানটিকে প্রথমেই প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।

 

তারা বলেন, ‘‘বিষয়টি নিয়ে জনগণ এখন হতাশ হয়ে পড়েছে। সরকারের উপর মানুষ  আস্থা হারাচ্ছে।’’

 

তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী মানুষের আস্থার দিকটি বিবেচনা নিয়ে অনভিজ্ঞ সদস্যদের বাদ দিয়ে প্রতিষ্ঠিত বিশেষজ্ঞদের অন্তর্ভুক্ত করে একটি শক্তিশালী  বাংলাদেশী টিম যৌথ সমীক্ষা দলে নিশ্চিত করতে হবে।

 

বা২৪/এফএইচ/এনএম/জিসা

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট