Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

প্রয়োজনে যুদ্ধ করে খালেদাকে দেশ থেকে তাড়াবো: হানিফ

ঢাকা, ৩০ মার্চ: খালেদা জিয়াকে হুঁশিয়ার করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, ‘‘আপনি দেশ ও জাতির অনেক ক্ষতি করেছেন, আর ক্ষতি করবেন না। যেখানে ইচ্ছা সেখানে চলে গিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করুন। নয়তো যুদ্ধ করে আপনাকে দেশের বাইরে পাঠাতে বাধ্য হবো। ৩০ বছর লড়াই করেছি। প্রয়োজনে আরো ৩০ বছর লড়াই করবো।’’

 

শুক্রবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় অনুষদ মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ আয়োজিত ‘স্বাধীনতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও বাস্তবায়ন’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি শাহ-ই-আলমের সভাপতিত্বে সেমিনারে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

 

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ্যে তিনি বলেন ‘‘আমি আপনাকে অনেক শ্রদ্ধা করি। আপনি অনেক শিক্ষিত। কিন্তু যখন পদের জন্য মিথ্যা কথা বলেন তখন আপনার শিক্ষার প্রতি আমার লজ্জা হয়।’’

 

‘তারেককে মিথ্যা মামলায় জড়াচ্ছে আওয়ামী লীগ’- মির্জা ফখরুলের এমন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি বলেন, ‘‘আপনারা বলছেন তারেককে আমরা মিথ্যা মামলায় জড়াচ্ছি। তার কোনো মামলা আমরা প্রমাণ করতে পারিনি। এরচেয়ে মিথ্যা আর কি হতে পারে?’’

 

হানিফ খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, ‘‘আপনি কথায় কথায় বলেন ক্ষমতায় গেলে সরকারকে ল্যাংড়া-লুলা করবেন। কিন্তু আপনি পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকার সময় দেশকে লুলা করেছিলেন, নেতাকর্মীদের সার্টিফিকেট ছাড়াই চাকরিতে নিয়োগ দিয়েছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের ওপর নির্যাতনের মাধ্যমে পুরো দেশকে ল্যাংড়া-লুলা করেছিলেন।’’

 

তিনি বলেন, ‘‘আমার জানতে ইচ্ছে হয় কেন এই প্রতিহিংসা, জাতির ওপর আর কিভাবে প্রতিশোধ নেবেন আপনি। তাহলে কি আমরা ধরবো পাকিস্তানের টাকা নিয়ে নির্বাচন করে তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করার জন্য কাজ করছেন। যাদের কাছ থেকে যুদ্ধ করে স্বাধীন হয়েছি তাদের টাকা দিয়ে নির্বাচন করছেন এরচেয়ে বড় লজ্জার কি হতে পারে।’’

 

বিরোধী দল অসত্য কথা বলে জাতিকে বিভ্রান্ত করছে দাবি করে তিনি বলেন, ‘‘তারা বলে আমরা নাকি তাদের নির্যাতন করছি। কিন্তু তাদের পাঁচ বছরের কথা আলোচনা করলে জনগণের জীবন শিহরে উঠে। হাজার হাজার আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের হত্যা করে, নারীদের নির্যাতন করে এবং পাঁচ লাখ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে পুরো দেশকে কারাগারে রূপান্তর করে। একদিকে জঙ্গিদের উত্থান অন্যদিকে নির্যাতন চালিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করে তোলে।’’

 

১০ ট্রাক অস্ত্রের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘‘তাদের সময় এই বিশাল অস্ত্র ধরার কথা জনগণ জানে। কিন্তু আরো আরো শত শত ট্রাক অস্ত্র পাচার করেছে। জঙ্গিদের অস্ত্র দিয়েছে। দেশকে লুটপাট করেছে।’’

 

জাতীয় স্মৃতি সৌধে বিএনপি চেয়ারাপারসনকে বাধা দেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, ‘‘বিরোধী দলীয় নেতা আপনি এর আগে দুইবার ক্ষমতায় ছিলেন, রাষ্ট্রের আচার জানার কথা। কিন্তু আপনি রাষ্ট্রপতির শ্রদ্ধা নিবেদনের ২০ মিনিট আগেই রওনা দেন। এটা কি ধরনের আচরণ। আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য আপনাকে তো বাধা দেবেই। আপনি সেদিন আগে-ভাগে গিয়েছিলেন শহীদদের অবমাননা ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে। সেদিন স্মৃতি সৌধে আপনার ছেলেদের হাতে ফুল থাকার কথা কিন্তু তাদের হাতে ছিল লাঠিসোটা।’’

 

তিনি বলেন, ‘‘আর মিথ্যাচার করবেন না, বহু মিথ্যাচার করেছেন । ১২ মার্চ মহাসমাবেশ করে ঢাকাকে তাহরির স্কয়ার বানাতে চেয়েছিলেন। কিন্তু আওয়ামী লীগ আপনাদের সে চেষ্টা সফল হতে দেয়নি।’’

 

আন্দোলন সংগ্রাম করে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতা থেকে হটানো যাবে না বলে বিরোধী দলকে হুঁশিয়ার করে দেন তিনি।

 

সেমিনারে আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, ‘‘একাত্তরের ঘাতকদের প্রতিষ্ঠিত দলই যুদ্ধাপরাধের বিচারকাজ বাধাগ্রস্ত করছে। বেগম জিয়া যা করছেন, যথার্থই করছেন। সাম্প্রদায়িক দল হতে যে দলের সৃষ্টি, সেই দলের নেতার কাছ হতে এর চেয়ে আর কী আশা করা যায়।’’

 

তিনি বলেন, ‘‘বর্তমানে রাষ্ট্রের ফরজ কাজ হলো যুদ্ধাপরাধের বিচার কার্যকর করা। এটাকে নফল বলার সুযোগ নেই। যে কোনো ধর্মাবলম্বী কেউ মারা গেলে মৃত ব্যক্তির পক্ষ হয়ে সবার কাছে ক্ষমা চাওয়া হয়। বান্দার হক আল্লাহ ক্ষমা করে না। যুদ্ধাপরাধীরা অগণিত মানুষের হক নষ্ট করেছে।’’

 

যারা আজ যুদ্ধাপরাধের বিচারকাজ বাধাগ্রস্ত করতে চায় তারা ধর্মীয় অনুশাসনও মানে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


One Response to প্রয়োজনে যুদ্ধ করে খালেদাকে দেশ থেকে তাড়াবো: হানিফ

  1. মন

    March 31, 2012 at 10:49 am

    তোর বাবার দেশ……………………
    দারা তোরে তারাতে যুদ্ধ করতে হবে না, এমনিতেই পালাবি কয়টা দিন যেতে দে…তোদের তো পালানোর অভ্যাস আছে…