Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

জাতিকে ধূম্রজালে ফেলবেন না: খালেদাকে স্পিকার

ঢাকা, ২৯ মার্চ: বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়াকে লক্ষ্য করে ক্ষোভ প্রকাশ করে স্পিকার আব্দুল হামিদ বলেছেন, তিনি সংসদে প্রায় দুই ঘণ্টা বক্তব্য দিয়েছেন। কিন্তু কোনটা মানেন আর কোনটা মানেন না, তা নিয়ে কিছু বলেননি। আপনি তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা চান। কিভাবে চান, কোনরূপে চান তাও বলেননি। এ বিষয়ে সংসদে বলা আপনার দরকার ছিল। আপনি তা বলেননি। তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা নিয়ে জাতিকে ধূম্রজালে ফেলবেন না। ধূম্রজাল সৃষ্টি করার কোনো মানে হয় না।

 

বৃহস্পতিবার সংসদে এমপিদের পয়েন্ট অব অর্ডারে দেয়া বক্তব্যের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন।

 

তিনি বলেন, ‘‘২০০১ সালে আমি চিফ হুইপ ছিলাম। অন্তরের জ্বালা থাকলেও কিছু কথা বলতে পারি না। আমি নিরপেক্ষ থাকার চেষ্টা করি। সব সত্য কথা বললে বলবে আমি একপক্ষ, আমি আসলে নিরপেক্ষ। আমি নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালন করেছি।’’

 

তিনি বলেন, ‘‘তিনি তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা নিয়ে বলেননি, বলেছেন পাকিস্তানের ইতিহাস। আরেকটি জিনিস সবচেয়ে দুঃখজনক হলো সংসদ নেতা বক্তব্য শুরু করার সঙ্গে সঙ্গে বিরোধী দলীয় নেতা সংসদ ছেড়ে চলে গেলেন। আর এলেন না। এটাতো ঠিক না।’’

 

২০ মার্চ সংসদে বিরোধী দলীয় এমপিদের ভূমিকা নিয়ে সরকার দলীয় এমপিদের বক্তব্যের জবাবে স্পিকার বলেন, ‘‘রেহানা আক্তার রানু সেদিন যে বক্তব্য রেখেছেন, আমি তা বুঝতে পেরেছি। আমি তার মাইক বন্ধ করলে তারা ওয়াক আউট করতেন। পরের দিন পত্রিকায় আসতো স্পিকার চুপ থাকলেও পারতেন। তাই আমি তাদের ধরে রাখার চেষ্টা করেছি।’’

 

তিনি বলেন, ‘‘আমিতো দেখেছি তারা কিভাবে আমার সামনে সরকার দলীয় একজন এমপিকে ঘুষি মারতে গেছেন, কিভাবে চড় দেখিয়েছেন। আমি তাদের অসাংবিধানিক বক্তব্য এক্সপাঞ্জ করে নিয়েছি।’’

 

বিএনপিকে লক্ষ্য করে তিনি বলেন, ‘‘আমি নিরপেক্ষ। নিরপেক্ষ বলেই সেদিন আমি আমার ক্ষমতা প্রয়োগ করিনি। আমি তাদের সংসদে ধরে রাখতে চেয়েছি। কিন্তু তারা থাকেনি।’’

 

স্পিকার বলেন, ‘‘নিরপেক্ষভাবে সংসদ পরিচালনার ব্যাপারে আমি আমার বিবেকের কাছে মুক্ত। আমি বিশ্বের যে কোনো দেশের স্পিকারের মতো ধৈর্য ধারণ করে সংসদ পরিচালনা করেছি। এ বিষয়ে আমাকে কেউ দোষারোপ করলে আমার কিছু করার নেই।’’

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট