Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

চীনে চলছে ধীরগতির অভ্যূত্থান

ঢাকা, ২৬ মার্চ: একদলীয় শাসনব্যবস্থার দেশ চীনে একজন আলোচিত রাজনীতিবিদকে দলের পদ থেকে অপসারণের পর এমন অনেক আলামত দেখা যাচ্ছে, যাতে অনেকে মনে করছেন দেশটিতে ধীরগতির সামরিক অভ্যূত্থান হতে যাচ্ছে।

দলের স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য ও একটি গুরুত্বপূর্ণ শহরের দলের সম্পাদক বো জিলাই’কে অপসারণের পর তাকে আর প্রকাশ্যে দেখা যায়নি। বিশ্লেষকরা মনে করছেন, দলে তার ঘনিষ্ঠ রাজনৈতিক মিত্র চৌ ইয়ংকাংয়ের নেতৃত্বে একটি অভ্যূত্থান হতে পারে।
চীনা কম্যুনিস্ট পার্টির শীর্ষ ফোরামের নির্বাচনে নিজের প্রার্থিতার পক্ষে নজিরবিহীনভাবে প্রকাশ্যে প্রচারণা চালাচ্ছিলেন বো। এ সময় তাকে পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়। অবশ্য আগে থেকেই দলের মধ্যে দুর্নীতি ও অস্বচ্ছতার বিষয়ে সক্রিয় ছিলেন বো ও তার মিত্ররা।
আর সব দলীয় অঘটনের মতো এটাকেও আড়াল করে রাখছে দেশটির সরকারি সংবাদ মাধ্যমগুলো।  ১৫ মার্চ মাত্র একলাইনে এ খবর দেয়া হয় যে, সেন্ট্রাল কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে বো জিলাই আর পার্টিতে তার দায়িত্ব পালন করবেন না।
এরপর সরকারি সংবাদমাধ্যমগুলো সব চুপচাপ। আর কোনো খবর নেই। কিন্তু অন্যান্য বিকল্প মাধ্যমে অনেক খবর পাওয়া যাচ্ছে। যাতে এটা স্পষ্ট যে, দেশটির শাসনকেন্দ্রের ভেতরে অস্থিরতা চলছে।
চীনে সরকার কর্তৃক নিষিদ্ধ বইপত্র পাওয়া যায় এমন একটা অনলাইন সংবাদমাধ্যম Bannedbook.org । সরকারের ভেতরের শীর্ষ পর্যায়ের সূত্রের বরাত দিয়ে ব্যানডবুক জানিয়েছে, দেশটির শীর্ষ পর্যায়ে ক্ষমতার দ্বন্দ্ব চলছে। দলের প্রধান ও দেশের প্রেসিডেন্ট হু জিনতাও’র নিয়ন্ত্রণাধীন সামরিক বাহিনী এবং বো এর রাজনৈতিক মিত্র ও পুলিশ প্রধান চৌ ইয়ংকাংয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন আভ্যন্তরীর নিরাপত্তা বাহিনীগুলোর ক্ষমতার লড়াই শুরু হয়েছে।
আরেকটি অনলাইন দৈনিক iask জানিয়েছে, বো-এর চংকিং শহরের মূল চত্বরে তার একদল সমর্থক সম্প্রতি ‘দলের সম্পাদক বো, আমরা তোমাকে ভালোবাসি ও শ্রদ্ধা করি’ লেখা ব্যানার জমায়েত হলে সাদা পোশাকের লোকেরা তাদের গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। বেইজিং বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন অধ্যাপক তার টিভি শো’তে বো জিলাইতে অপসারণের ঘটনাকে ‘প্রতিবিপ্লবী অভ্যূত্থান’ আখ্যা দিলে তার শো বন্ধ করে দেয়া হয়।
ভিন্নমতালম্বী পত্রিকা The Epoch Times ধীরগতির অভ্যূত্থান প্রক্রিয়ার খবর দিচ্ছে। বিভিন্ন সূত্রের বরাত দিয়ে পত্রিকাটি জানায়, এ ক্ষমতার লড়াইয়ে জড়িয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ওয়েন জিয়াবাও। পত্রিকাটি জানিয়েছে, বো সরানোর পর বেইজিংয়ের রাস্তায় গভীর রাতে প্রচুর সামরিক যান চলতে দেখা গেছে। এমনকি দেশটির পুলিশের সঙ্গে সামরিক বাহিনীর ছোটোখাটে সংঘর্ষের খবরও দিয়েছে পত্রিকাটি।
Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট