Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

টুর্নামেন্ট সেরার দৌঁড়ে এগিয়ে যারা

ঢাকা, ২১ মার্চ: ১১তম এশিয়া কাপের আসরের লিগ পর্যায়ের খেলা শেষ হয়েছে ২০ মার্চ মঙ্গলবার। ফাইনালে ওঠেছে পাকিস্তান ও বাংলাদেশ। ২২ মার্চ বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ফাইনালে মুখোমুখি হবে এই দুই দল।

 

ফাইনালের দুই প্রতিপক্ষ চূড়ান্ত হলেও এবারের আসরের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার কার ভাগ্যে জুটবে তা নিয়ে চলছে চুলচেরা হিসাব-নিকাশ। এবারের আসরে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচন অনেকটা কঠিনই বলতে হবে।

 

কারণ বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার টুর্নামেন্ট সেরার দৌড়ে এগিয়ে আছেন। লিগ পর্যায়ের পারফরমেন্সের বিচারে যারা টুর্নামেন্ট সেরার দৌড়ে এগিয়ে আছেন এরা হলেন: বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল; পাকিস্তানের মোহাম্মদ হাফিজ ও নাসির জামশেদ। টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়া ভারতীয় ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলির ভাগ্যেও জুটতে পারে টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার।

 

টুর্নামেন্ট সেরার দৌঁড়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তিন খেলার দুটিতেই ম্যাচসেরার পুরস্কার পান সাকিব। তিন খেলায় সাকিবের সংগ্রহ ১৬৯ রান। আর উইকেট নিয়েছেন চারটি।

 

এর মধ্যে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬৪, ভারতের বিপক্ষে ৪৯ এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে ৫৬ রানের ইনিংস উপহার দেন। বল হাতে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুটি করে উইকেট নিলেও ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে উইকেট লাভে ব্যর্থ হন সাকিব। এখন ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে আগের ম্যাচগুলোর পারফরমেন্সের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারলে টুর্নামেন্ট সেরা হয়ে যেতেও পারেন সাকিব।

 

অপরদিকে বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবালও টুর্নামেন্ট সেরার দৌড়ে এগিয়ে আছেন। তিন খেলায় টানা তিনটি অর্ধশতক হাঁকিয়েছেন বাংলাদেশের এই বাঁহাতি ওপেনার। প্রথম খেলায় পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬৪, দ্বিতীয় খেলায় ভারতের বিপক্ষে ৭০ এবং তৃতীয় খেলায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৫৯ রানের ইনিংস উপহার দেন তামিম। তিন খেলায় তামিমের মোট রান ১৯৩। এখন পাকিস্তানের বিপক্ষে ফাইনালে তামিম ব্যাট হাতে কতটুকু সফল হন তার ওপরই নির্ভর করছে টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার পাওয়া না পাওয়া।

 

ফাইনালের অপর দল পাকিস্তানের দুই ওপেনার এগিয়ে আছেন টুর্নামেন্ট সেরার দৌড়ে। এরা হলেন মোহাম্মদ হাফিজ ও নাসির জামশেদ। মোহাম্মদ হাফিজ তিন খেলায় ২০৫ রান করার পাশাপাশি উইকেট নিয়েছেন তিনটি।

 

অপর ওপেনার নাসির জামশেদও কম যাননি। তিন খেলায় তার সংগ্রহ ১৮৪ রান। ২২ মার্চ বৃহস্পতিবার ফাইনালে বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচে এই দুই পাকিস্তানী ওপেনারের পারফরমেন্সই বলে দেবে সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার তারা পাবেন কিনা।

 

টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়া ভারতীয় দলের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলিও টুর্নামেন্ট সেরার অন্যতম দাবিদার। কারণ তিন খেলায় কোহলি দুইটি শতক ও একটি অর্ধশতক হাঁকানোয় তার মোট রান ৩৫৭। যা এবারের এশিয়া কাপের সর্বোচ্চ সংগ্রহ।

 

কোহলি নিজেদের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১০৮ রান, দ্বিতীয় খেলায় বাংলাদেশের বিপক্ষে ৬৬ রান এবং তৃতীয় খেলায় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিরুদ্ধে ১৪৮ বলে ২২টি চার ও একটি বিশাল ছক্কার সাহায্যে ১৮৩ রানের একটি টর্নেডো ইনিংস উপহার দেন। টুর্নামেন্ট সেরার অন্যতম দাবিদার যে বিরাট কোহলি তার পারফরমেন্সই তা বলে দিচ্ছে।

 

বার্তা২৪ /এমএকে

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট