Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

বাংলাদেশের ভারত বধ

 

ঢাকা, ১৬ মার্চ: শচিন সেঞ্চুরি পেলে ভারত হারে। এ কথাটি আরো একবার প্রমাণ হলো মিরপুর স্টেডিয়ামে। সেঞ্চুরির সেঞ্চুরি পেতে অপেক্ষার প্রহর গুনতে থাকা শচিন মিরপুর সেঞ্চুরি পেলেও হেরে গেছে তার দল।

 

মুশফিকুর রহিম ক্রিজে আসার পর টর্নেডো গতিতে রান তুলতে থাকেন। মাত্র ২৫ বলে ৩টি চার ও তিনটি ছক্কার সাহায্যে দ্রুতগতিতে ৪৬ রানের কল্যাণে ৪ বল হাতে রেখেই পাঁচ উইকেটে ২৯৩ রান করলে পাঁচ উইকেটে জিতে যায় বাংলাদেশ।

 

জয়সূচক রানটি আসে সহ-অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহ রিয়াদের ব্যাট থেকে। রিয়াদ ডিন্ডার করা ষষ্ঠ ওভারের দ্বিতীয় বলটি বাউন্ডারির বাইরে পাঠিয়ে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত করেন।

 

মুশফিকুর রহিম ৪৬ এবং মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ ৪ রানে অপরাজিত থেকে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন।

 

পঞ্চম উইকেট জুটিতে অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও নাসির হোসেন ৬৪ রানের আরো একটি কার্যকরী পার্টনারশীপ গড়লে সহজ জয়ের দিকে এগুতে থাকে টাইগাররা। নাসির ৫৮ বলে পাঁচটি চারের সাহায্যে ৫৪ রান করেন।

 

২২৪ রানে বাংলাদেশের রান মেশিন সাকিব আল হাসান দুর্ভাগ্যজনক স্ট্যাম্প হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন। সাকিব ছিলেন অত্যন্ত মারমুখী। মাত্র ১ রানের জন্য অর্ধশতক বঞ্চিত হন সাকিব। সাকিব ৩১ বলে পাঁচটি চার ও দুটি বিশাল ছক্কার সাহায্যে ৪৯ রান করেন। সাকিব-নাসির জুটি চতুর্থ উইকেটে মাত্র আট ওভার মোকাবেলায় ৬৮ রানের পার্টনারশীপ গড়েন।

 

দলীয় ১৫৬ রানে তামিম ইকবাল আউট হয়ে গেলে তৃতীয় উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। তামিম ইকবাল ৭০ রান করে সাজঘরে ফেরেন। ৯৯ বলে ছয়টি বাউন্ডারির সাহায্যে ওই রান করেন তামিম।

 

এরপর ক্রিজে তামিমের সাথে জুটি বাধেন জহুরুল ইসলাম। এই জুটি ১১৩ রানের পার্টনারশীপ গড়েন। জহুরুল ৬৮ বলে চারটি চার ও একটি ছক্কার সাহায্যে ৫৩ রান করে আউট হন। এটি জহুরুল ইসলামের ওয়ানডেতে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ স্কোর। এর আগে ৪১ রান ছিল তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ স্কোর।

 

১৫ রানে নাজিমুদ্দিন প্রভীন কুমারের বলে রোহিত শর্মার তালুবন্দী হয়ে সাজঘরে ফেরেন। নাজিমুদ্দিন মাত্র ৫ রান করেন।

 

ভারতীয় বোলারদের মধ্যে প্রভিন কুমার দুটি এবং রবিন্দ্র জাদেজা একটি উইকেট নেন।

 

এর আগে শুক্রবার মিরপুর স্টেডিয়ামে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারত শচিন টেন্ডুলকারের সেঞ্চুরির ওপর ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে পাঁচ উইকেটে ২৮৯ রানের বড় স্কোর গড়ে তোলে।

 

শচিন এদিন সেঞ্চুরির সেঞ্চুরি পূর্ণ করে বিশ্ব ক্রিকেট ইতিহাসে নতুন কীর্তি গড়েন। শচীন ১৪৭ বলে ১২টি চার ও একটি ছক্কার সাহায্যে ১১৪ রান করে মাশরাফির শিকারে পরিণত হন।

 

শচিন ছাড়াও বিরাট কোহলি ও সুরেশ রায়না অর্ধশতকের দেখা পান। কোহলি ৮২ বলে ৬৬ এবং রায়না মাত্র ৩৮ বলে ৫১ রা করেন। এছাড়া অধিনায়ক ধোনি ১১ বল মোকাবেলায় ২১ রানে অপরাজিত থাকেন।

 

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে মাশরাফি দুটি এবং সফিউল ও আবদুর রাজ্জাক একটি করে উইকেট নেন।

 

বার্তা২৪

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


3 Responses to বাংলাদেশের ভারত বধ

  1. Ariful Islam

    March 17, 2012 at 12:23 am

    kisudin ageo sunesilam india nij dese tiger r vin dese cat,ty proved holo abaro.
    R Sochine er soto ran? onek opekkar por ta abar b deser bipokke;deke hasbo na kadbo india aktu bolo???

  2. numanul islam

    March 17, 2012 at 1:10 am

    ami allah talar kase shodo prattana korsilam jeno.pakistaner moto na hoi………….

  3. Md Mohsin

    March 17, 2012 at 3:39 pm

    India_r bipokke je Bangladesh valo khele; Abaro proman holo…