Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

অনিয়ম দিয়েই শুরু হচ্ছে সার্টিফিকেট কোর্স ডিপ-ইন-এড

ঢাকা, ১০ মার্চ: অনিয়মের মধ্য দিয়েই শুরু হতে যাচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ ডিপ্লোমা ইন এডুকেশন (ডিপ-ইন-এড) সার্টিফিকেট কোর্স। পাইলট প্রকল্প হিসেবে এই সার্টিফিকেট কোর্স চালু করা হচ্ছে বিভাগীয় সাতটি পিটিআইতে। প্রাথমিক শিক্ষাকে যুযোপযোগী ও শিক্ষকদের আরো উন্নত করতে দীর্ঘমেয়াদী একমাত্র সার্টিফিকেট কোর্সের ক্ষেত্রে এই প্রথম পরিবর্তন আনা হচ্ছে।

প্রাইমারী ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের সার্টিফিকেট ইন এডুকেশন-সি-ইন-এড (এক বছরের সার্টিফিকেট) কোর্সের পরিবর্তে দেড় বছরের এই কোর্স হাতে নিতে ইতোমধ্যে প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে মাস্টার ট্রেইনারদের।

ডিপ-ইন-এড কোর্স চালু করতে ন্যাশনাল একাডেমি অব প্রাইমারী এডুকেশন প্রশিক্ষণ কর্মসূচি পরিচালনা করছে। প্রথম দফায় ময়মনসিংহ পিটিআইতে গত ২৪ জানুয়ারি থেকে দেড় মাস ব্যাপী এ প্রশিক্ষণ শুরু করা হয়।

পর‌্যায়ক্রমে দেশের চারটি ভ্যানুতে প্রশিক্ষণ করানো হবে পিটিআইয়ের মাস্টার ট্রেইনারসহ সব ট্রেইনারদের। মাস্টার ট্রেইনাররা প্রশিক্ষণ নিয়ে পরবর্তীতে অন্যান্যদের প্রশিক্ষণ দেবেন।

তবে গুরম্নত্বপূর্ণ মাস্টার ট্রেইনার প্রশিক্ষণে অপেক্ষাকৃত কম যোগ্যতা সম্পন্ন ইনস্ট্রাকটরদের নির্বাচিত করা হয়েছে। অপরদিকে মাষ্টার ট্রেইনারদের ট্রেনিং করতে হচ্ছে গাঁটের পয়সা খরচ করে। প্রাথমিক শিক্ষা ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ এই পদক্ষেপের শুরুতেই স্বজনপ্রীতি ও অর্থ বঞ্চনার ঘটনায় ক্ষুব্ধ দেশের বিভিন্ন পিটিআই ইনস্ট্রাকটররা।

অভিযোগ মতে, মাস্টার ট্রেইনাররা জানেন না তাদের টিএ-ডিএ দেয়া হবে কিনা। সম্মানী না দেয়া হলেও ডিএ-ডিএ থাকবে না এমন ঘটনা বিরল বলে উল্লেখ করেছেন অনেক মাস্টার ট্রেইনার। তা ছাড়া এতো লম্বা ট্রেনিংয়ের জন্য যদি সবকটি বিভাগীয় পর্যায়ে ভ্যানু করা হতো, তাহলে ট্রেনিং ভোগান্তি কম হতো এবং চলমান সি-ইন-এড কোর্সের প্রশিক্ষণার্থী প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণে ইনস্ট্রাকটর ঘাটতি পড়তো না।

এ বিষয়ে ময়মনসিংহ পিটিআইতে প্রশিক্ষণরত মাস্টার ট্রেইনার শেফালী বানু বার্তা২৪ ডটনেটকে বলেন, ‘‘আমরা জানি না সম্মানী, টিএ ও ডি এ দেয়া হবে কিনা।’’ বিভাগীয় পর্যায়ে প্রশিক্ষণ ভ্যানু না করে মাত্র চারটি ভ্যানুতে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করায় অসুবিধাতো হবে বলেই তিনি উল্লেখ করেন তিনি।

তিনি জানান, ময়মনসিংহ, রংপুর, চট্টগ্রাম ও বরিশাল পিটিআইকে ভ্যানু হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে। সিলেট, খুলনা ও রাজশাহী বিভাগে কোন ভ্যানু রাখা হয়নি। তবে কেনো রাখা হয়নি তা তিনি জানেন না বলে উল্লেখ করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ইনস্ট্রাকটর জানান, অযোগ্য মাস্টার ট্রেইনার নির্বাচন করার কারণে শুরুতেই গুরুত্বপূর্ণ প্রত্যেক বিভাগে ভ্যানু করার বিষয়টি গুরুত্ব পায়নি। স্বজনপ্রীতির জন্য যোগ্য শিক্ষক থাকলেও অপেক্ষাকৃত কম যোগ্যদের নেয়া হয়েছে। সিনিয়র এবং যোগ্য শিক্ষকদের পরবর্তী পর্যায়ে ট্রেইনার হিসেবে ডাকা হয়েছে।

মাস্টার ট্রেইনার নির্বাচনের ক্ষেত্রে স্বজন প্রিতি করা হয়েছে কিন জানতে চাইলে রাজশাহী পিটিআইয়ের সুপারিনটেনন্টে রওশন আলী বার্তা২৪ ডটনেটকে বলেন, ‘‘এ ক্ষেত্রে হয়তো কেউ বঞ্চিত হয়ে থাকতে পারেন। তা ছাড়া আমারা স্বজনপ্রীতি করিনি। ডাইরেক্টর ট্রেনিং মাস্টার ট্রেনইনারদের নাম উল্লেখ করেই চিঠি দিয়েছেন। প্রথম পর্যায়ে দুজনকে পাঠানো হয়েছে। আরো আট জন যাবে।’’ তিনি জানান, মাস্টার ট্রেইনারসহ সব ধরনের ট্রেইনারদের টিএ-ডিএ দেয়া হবে। তবে এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না চাকরিস্থল নাকি অধিদপ্তর দেবে।

ইনস্ট্রাটকর স্বল্পতার কারণে প্রশিক্ষণে প্রভাব পড়ছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘‘কিছুটাতো বিঘ্ন ঘটছেই। তবে বড় কাজের জন্য ছোট ক্ষতি মেনে নিতে হয়।’’

বার্তা২৪/এসএমএ/জিসা

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


4 Responses to অনিয়ম দিয়েই শুরু হচ্ছে সার্টিফিকেট কোর্স ডিপ-ইন-এড

  1. sikiş izle

    March 13, 2012 at 4:40 am

    I necessary for this web site post admin seriously thanks i’ll glimpse your subsequent sharings i bookmarked your blog site

  2. escort ilanlari

    March 14, 2012 at 4:58 am

    I used to be seeking this blog site survive 3 times great web site manager great posts almost everything is wonderful

  3. su arıtma cihazı

    March 14, 2012 at 11:14 am

    I required for this web site post admin genuinely thanks i will seem your following sharings i bookmarked your webpage

  4. smackdown oyunları

    March 14, 2012 at 2:42 pm

    Definitely needed submit admin great one i bookmarked your internet web page see you in future webpage post.