Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

জীবন্ত কবর দেয়া সুনীতা এখন সমাজসেবী

 ভারতের মহারাষ্ট্রের প্রত্যন্ত গ্রামে জন্মগ্রহণকারী সুনীতাকে মাত্র ১৬ দিন বয়সেই মায়ের মৃত্যুর মাত্র একদিন পর তার অশিক্ষিত বাবা জীবন্ত কবর দিয়েছিলেন। আর সেই ৫৬ বছর বয়সী সুনীতা আরলিকারই এখন ভারতের নানা সামাজিক কুসংস্কারের বিরুদ্ধে অন্যতম একজন সংগ্রামী নারী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। তিনি নিজেকে একজন সমাজ সংস্কারবাদী লেখিকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার পাশাপাশি কন্যা ভ্রূণহত্যার মতো জঘন্য সামাজিক কুসংস্কারের বিরুদ্ধেও লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। এ কাজ করতে গিয়ে তার প্রাণও একবার যেতে বসেছিল। নিজের বাবা যে তাকে মেরে ফেলতে চেয়েছিলেন সেটা তিনি জেনেছেন ৯ বছর বয়সে। ছোটবেলার জীবন্ত কবর দেয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, আমি অত্যন্ত সৌভাগ্যবান ছিলাম যে আমার মামা কবর থেকে বের করে নিজের বাড়িতে নিয়ে আমাকে নতুন জীবন দিয়েছিলেন। বাবার সম্পর্কে তিনি বলেছেন, ১৪ বছর বয়স হওয়ার পরও বাবা আমাকে সহ্য করতে পারতেন না। আমাকে হত্যার জন্য ভাড়াটে গুণ্ডা পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু এক রাখালের কারণে সে যাত্রাও আমি বেঁচে গিয়েছিলাম। সংগ্রামী জীবনে তিনি কেবল সামাজিক কুসংস্কার আর দারিদ্র্যের বিরুদ্ধেই লড়াই করেননি। আত্মশক্তিতে বলীয়ান সুনীতা নিজে শিক্ষাগ্রহণ করে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর সন্তানদেরও উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত করেছেন। তার দুই ছেলের মধ্যে একজন প্রকৌশলী। অন্যজন ডাক্তার। দু’জনেই এখন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। ছোটবেলা সম্পর্কে তিনি গাল্ফ নিউজকে দেয়া এক টেলিফোন সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ছোটবেলায় আমার খাবার এবং কাপড়-দুটোরই অভাব ছিল। কিন্তু আমি খাবার ঠিকমতো না পেলেও স্কুলে পড়া কখনও ছাড়িনি। মাত্র ১৬ বছর বয়সে তিনি স্থানীয় হাসপাতালে নার্স হিসেবে প্রশিক্ষণ নিতে যান। সেখানেই তিনি সাক্ষাৎ পান তার ভবিষ্যৎ স্বামী দিলীপ আরলিকারের। তিনি তাকে যথেষ্ট উৎসাহ দিয়েছেন বলে সুনীতা দাবি করেছেন। স্থানীয় পত্র-পত্রিকার জন্য তিনি নিয়মিত লেখালেখি করলেও কয়েক বছর আগে তার আত্মজীবনী বের হয়েছে। তার সমাজ সেবামূলক কাজের মধ্যে ভিন্ন জাতের মধ্যে ৯০টি বিয়ে দেয়া অন্যতম।
স্থানীয় প্রশাসনের নির্বাচনে ৬ বার সফলতার সঙ্গে অংশ নেয়া সুনীতা বর্তমানে মহারাষ্ট্র হাউজিং ফিন্যান্স করপোরেশনের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


2 Responses to জীবন্ত কবর দেয়া সুনীতা এখন সমাজসেবী

  1. sikiş izle

    March 13, 2012 at 9:32 am

    Hello admin very good submit a lot thanks loved this webpage actually very much

  2. smackdown oyunları

    March 14, 2012 at 3:13 pm

    Fantastic publish admin! i bookmarked your internet website. i will search forward if you may have an e-mail number adding.