Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

ইভিএম: ৮০০ টাকার ব্যাটারি ১২০০ টাকায়

হাসান শাফিঈ: আসন্ন বিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশন (ডিসিসি) নির্বাচনে সীমিত আকারে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করার সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের কমিশন। এজন্য কমিশনের হাতে থাকা প্রায় ১১শ’ ইভিএম-এর জন্য নতুন করে ব্যাটারি কেনা হচ্ছে। এই সুযোগে ইভিএম-এ ব্যবহার হওয়া ব্যাটারির দাম হঠাৎ করে বাড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এর আগে কমিশনের কাছ থেকে ইভিএম-এর প্রতিটি ব্যাটারির জন্য দাম নেয়া হয়েছিল ৮০০ টাকা করে। এবার প্রতি পিস ব্যাটারিতে ৪০০ টাকা করে দাম বাড়িয়ে কমিশনের কাছ থেকে চাওয়া হয়েছে ১২০০ টাকা করে। অবশ্য এ নিয়ে কমিশনারদের মধ্যে মতপার্থক্য দেখা দিয়েছে। তবে ডিসিসি নির্বাচনের সময় ঘনিয়ে আসায় একজন নির্বাচন কমিশনারের আপত্তি অগ্রাহ্য করে ওই দামেই ব্যাটারি কেনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। গতকালই ব্যাটারি সরবারহ করার বিষয়টি মৌখিকভাবে বুয়েট কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। কমিশন সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা গতকাল মানবজমিনকে জানান, গত সপ্তাহে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)-এর পক্ষ থেকে লিখিতভাবে জানানো হয়, ডিসিসি নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করতে হলে প্রায় ১১শ’ ব্যাটারি নতুন করে কিনতে হবে। এরই মধ্যে ব্যাটারির আনুষঙ্গিক দ্রবাদির মূল্য বেড়ে যাওয়ায় প্রতিটি ব্যাটারির সম্ভাব্য দাম পড়বে ১২শ’ টাকা করে। এর জন্য ব্যয় হবে প্রায় ১৪ লাখ টাকা। এ টাকা বুয়েটকে অগ্রিম পরিশোধ করতে হবে বলে জানিয়ে দেয়া হয় ওই চিঠিতে। বৈঠক সূত্র জানায়, নির্বাচন কমিশন বৈঠকে ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় সংখ্যক ব্যাটারি কেনা নিয়ে আলোচনা হলেও সব কমিশনার একমত হতে পারেননি। নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আবদুল মোবারক বৈঠকে এত বেশি দামে ব্যাটারি কেনার বিপক্ষে অবস্থান নেন। তিনি যুক্তি দেখান, ৬ মাস আগেও যে ব্যাটারির দাম ৮০০ টাকা ছিল সেই ব্যাটারি এখন ১২০০ টাকা হয় কি করে? ডিসিসি নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. জাবেদ আলী বলেন, বিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সীমিত আকারে ইভিএম ব্যবহার করা হবে। এর জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি চলছে।
তিনি বলেন, বিগত কমিশন ইভিএম ব্যবহারের যে ধারা তৈরি করেছিল বর্তমান কমিশনও তার ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে চাইছে। এজন্য আসন্ন নির্বাচনে সীমিত আকারে ইভিএম ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, ডিসিসি নির্বাচন আয়োজনের সব প্রস্তুতিই জোরালো গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। ১৮০ দিনের সময়সীমার মধ্যে এ নির্বাচন হবে। উল্লেখ্য, ঢাকা উত্তর ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশেনের একটি করে মোট দু’টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড (৬টি সাধারণ ওয়ার্ড)-এ ১০০০ ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের সিদ্ধান্ত এরই মধ্যে পাকাপোক্ত করেছে নয়া কমিশন।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


One Response to ইভিএম: ৮০০ টাকার ব্যাটারি ১২০০ টাকায়

  1. nayantara

    March 8, 2012 at 12:48 pm

    Jodi hotam kono alor prodip petam khuje thikana hotam nato dishe hara othoi nodir mohona.keje amar ami je kar kiba amar kaj icche hole harabo aj roibe nato laj