Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সরকার নাশকতা করে বিএনপির ওপর দোষ চাপাতে পারে: ফখরুল

ঢাকা, ৭ মার্চ: বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘‘আমাদের ১২ মার্চের মহাসমাবেশে সরকার নাশকতা সৃষ্টি করে তার দায় বিএনপির ওপর চাপাতে পারে।’’ এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটলে তার দায় সরকারকেই বহন করতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

 

 

 

বুধবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

 

 

 

মির্জা আলমগীর বলেন, ‘‘আমরা অতীতে চারটি রোডমার্চ ও একটি গণমছিল করেছি। ওই কর্মসূচিগুলো শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হয়েছে। আমাদের ১২ মার্চের মহাসমাবেশও হবে শান্তিপূর্ণ। কিন্তু সরকারের দায়িত্বশীল ব্যক্তি, এমপি ও মন্ত্রীরা ১২ মার্চের মহাসমাবেশকে ঘিরে বার বার নাশকতার কথা বলছেন। তাদের বক্তব্য থেকে মনে হচ্ছে, ওইদিন তারাই নাশকতা সৃষ্টি করে তার দায়-দায়িত্ব বিএনপির ওপরে চাপাতে পারে। কিন্তু আমরা ১২ মার্চের মহাসমাবেশের মাধ্যমে গণতন্ত্রকে সুসংহত করতে চাই।’’

 

 

 

মহাসমাবেশকে ঘিরে জনগণের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা ও সমর্থন দেখে সরকার ভীত হয়ে রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে তা বানচালের চেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ করেন মির্জা আলমগীর।

 

 

 

তিনি বলেন, ‘‘আমাদের নেতাকর্মীরা যেনো সমাবেশে যোগ দিতে না পারে সেজন্য সরকারের পক্ষ থেকে পরিবহন সেক্টরে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। পরিবহন মালিকদের বলে দিয়েছে তারা কোনো গাড়ি ভাড়া না দেয়। হোটেলগুলোতে আগামী চার দিন কোনো বুকিং না দেয়ার জন্য হোটেল মালিকদের ডেকে বলে দেয়া হয়েছে। কমিউনিটি সেন্টারগুলোতেও একই অবস্থা।’’

 

 

 

তিনি অভিযোগ করে আরো বলেন, ‘‘শুধু তাই নয়, ঢাকার মেস বাড়িগুলোতে আগামী কয়েকদিন কোনো মেহমান না রাখার জন্য মালিকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বলে দিয়েছে পুলিশ। বাসায় বাসায় গিয়ে মেহমান না রাখার জন্য বাড়ি মালিকদের হুমকি দিচ্ছে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা।’’

 

 

 

মির্জা আলমগীর আরো বলেন, ‘‘সরকারের মন্ত্রী এমপিরা বলছেন, আপনারা মহাসমাবেশ প্রত্যাহার করুন। কিন্তু কি কারণে প্রত্যাহার করবো তা বলছেন না। আমাদের নেত্রী প্রায় দুই মাস আগে চট্টগ্রামের পলোগ্রাউন্ড থেকে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন। নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতেই আমাদের এই কর্মসূচি। রোডমার্চ এবং জনসভাগুলোর মতো এই কর্মসূচিও হবে শান্তিপূর্ণ।’’

 

 

 

তিনি বলেন, ‘‘আমাদের ২৯ জানুয়ারির কর্মসূচির দিনে আপনারা কর্মসূচি দিয়ে আমাদের কর্মসূচিকে ব্যাহত করেছেন। পুলিশ ১৪৪ ধারা জারি করেছিল। কিন্তু আমরা পরদিন গণমিছিল কর্মসূচি পালন করেছি।’’

 

 

 

মির্জা আলমগীর বলেন, ‘‘আমরা শান্তিপূর্ণভাবে মহাসমাবেশ পালন করতে চাই। কিন্তু এই কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে সরকার রাষ্ট্রকে ব্যবহার করে সারাদেশে বিএনপি এবং জোটের নেতাকর্মীদের ব্যাপকহারে গ্রেফতার শুরু করেছে। পুলিশ এই কথাও বলছে, বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের ৫৪ ধারায় আগামী ৪/৫ দিন আটকে রাখা হবে।’’ তিনি পুলিশের এই বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানান।

 

 

 

‘ঢাকা শহরে যাকে অপরিচিত মনে হবে তাকে ধরিয়ে দিতে হবে’ আইন প্রতিমন্ত্রীর এই বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করে মির্জা আলমগীর বলেন, ‘‘ঢাকা বাংলাদেশের রাজধানী। এখানে প্রতিদিন লাখ লাখ লোক তাদের কাজের জন্য যাতায়াত করে। কেউ কাউকে চিনে রাখে না। প্রতিমন্ত্রী তার বক্তব্যের মাধ্যমে জনগণের মধ্যে আতঙ্কেতর সৃষ্টি করতে চাইছেন।’’

 

 

 

তিনি বলেন, ‘‘তিন বছরে আওয়ামী লীগ জনগণকে ভয়ভীতি আর আতঙ্ক ছাড়া অন্যকিছু দিতে পারেনি।’’

 

 

 

রাজধানীর গুলশানের কূটনীতিক হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ জানিয়ে মির্জা আলমগীর বলেন, ‘‘গুলশান হলো কূটনৈতিক জোন। যেখানে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেয়ার কথা। কিন্তু সরকার তা না করে বিরোধীদলকে দমনের জন্য তাদের গোয়েন্দা সংস্থা ও পুলিশ প্রশাসনকে ব্যবহার করছে।’’ তিনি বলেন, ‘‘সাংবাদিক দম্পতি হত্যার রহস্য উদঘাটন ও হত্যাকারীদের আজো গ্রেফতার করতে পারেনি।’’

 

 

 

মহাসমাবেশে বাধা না দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে মির্জা আলমগীর বলেন, ‘‘আমাদের মহাসমাবেশ সফলভাবে সম্পন্ন করতে সহযোগিতা করুন, হিংসাত্মক কর্মকাণ্ড থেকে সরে আসুন। দেশকে অন্ধকার সুরঙ্গের দিকে ঠেলে দেবেন না। তাতে গণতন্ত্র উপকৃত হবে। আপনারাও প্রশংসিত হবেন।’’

 

 

 

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার, ড. আব্দুল মইন খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, যুগ্ম-মহাসচিব আমান উল্লাহ আমান, রুহুল কবির রিজভী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আব্দুস সালাম, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ আব্দুল মালেক প্রমুখ।

 

 

 

বার্তা২৪/এমএইচ/জিসসা

 

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


5 Responses to সরকার নাশকতা করে বিএনপির ওপর দোষ চাপাতে পারে: ফখরুল

  1. sikiş izle

    March 13, 2012 at 3:57 am

    Hello admin excellent put up much thanks cherished this blog seriously a lot

  2. alışveriş rehberi

    March 14, 2012 at 4:03 am

    Amazing article admin thank you. I located what i was searching for right here. I’ll review whole of posts within this day time

  3. escort ilanlari

    March 14, 2012 at 4:53 am

    i cant get how you are able to share like this remarkable posts admin much thanks

  4. termal

    March 14, 2012 at 1:43 pm

    hey admin thanks for good and easy understandable publish i liked your blog site web site definitely very much bookmarked also

  5. smackdown oyunları

    March 14, 2012 at 2:37 pm

    Truly needed submit admin great a single i bookmarked your website web page see you in up coming blog site publish.