Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সিলেটে খালেদার সমাবেশের খরচের হিসাব চেয়ে দুদকের নোটিশ

সিলেট অফিস: বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলীর কাছে সিলেটে খালেদা জিয়ার জনসভা আয়োজনের খরচের হিসাব চেয়ে নোটিশ দিয়েছে দুর্নীতি দমন
কমিশন (দুদক)। গতকাল তিনি এ পত্রটি পেয়েছেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। সিলেট দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন তাকে নোটিশের মাধ্যমে আগামী ৪ঠা মার্চ দুদক কার্যালয়ে গিয়ে তার বক্তব্য উপস্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন। দুদকের এই নোটিশকে বিরল ঘটনা হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন এম ইলিয়াস আলী। তিনি বলেন, তাকে যে নোটিশ দেয়া হয়েছে, এটা বোধ হয় ইতিহাসের প্রথম ঘটনা। কারণ, এর আগে কোন রাজনৈতিক নেতাকে এ রকম চিঠি দেয়ার কোন ঘটনা ঘটেনি। গত ১০ই ডিসেম্বর সিলেটে সমাবেশ করেন বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। রোডমার্চের অংশ হিসেবে তিনি এখানে সমাবেশ করেন। দুদক কর্মকর্তা তার চিঠিতে জানান, বিএনপি’র জনসভার জন্য এক কোটি বিশ লাখ টাকা চাঁদা আদায় ও জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ থাকায় সুষ্ঠু অনুসন্ধানের স্বার্থে বক্তব্য প্রয়োজন। এ বিষয়ে ৪ঠা মার্চ দুদক কার্যালয়ে এম ইলিয়াস আলীকে হাজির হয়ে বক্তব্য দেয়ার নির্দেশ দেন। অন্যথায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়। গতকাল ১লা মার্চ এম ইলিয়াস আলীর হাতে এই চিঠি পৌঁছে। এ ব্যাপারে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলী মানবজমিনকে জানান, বিএনপি’র সমাবেশে কত টাকা ব্যয় হয়েছে, এ বিষয়টি জানতে চায় দুদক। কিন্তু প্রতিদিন যে আওয়ামী লীগ সমাবেশ করছে, তার তো কোন হিসাব চাওয়া হয় না। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ মামলা-হামলা ও নির্যাতন চালিয়ে গতি রুদ্ধ করতে চাইছে। কিন্তু এই চিঠি প্রমাণ করে এটা গণতন্ত্রের ভাষা নয়। তিনি বলেন, আমার বিরুদ্ধে একের পর এক মামলা দেয়া হয়েছে। মামলার কারণে এক দিন পর পর আমাকে আদালতে যেতে হয়। এই নোটিশ হয়রানি ও নির্যাতনের ফর্মুলা ছাড়া আর কিছু নয়। এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার ওসমানীনগর ও বিশ্বনাথ থানার সংযোগস্থল ‘নতুন বাজারে’ স্থানীয় বিএনপি আয়োজিত বিশাল জনসভায় ইলিয়াস আলী বলেন, সরকার আন্দোলন স্তব্ধ করার জন্য জুলুম-নির্যাতনের পথকে বেছে নিয়েছে। সরকারের আচার-আচরণে মনে হচ্ছে, তারা একদলীয় শাসন ব্যবস্থা বাকশাল কায়েম করবে। তাদের সেই দুরভিসন্ধি এবং ষড়যন্ত্র সফল হবে না। আগামী ১২ই মার্চে সারা দেশ থেকে লাখ লাখ মানুষ বেগম খালেদা জিয়ার মহাসমাবেশে যোগ দেবে এবং ফ্যাসিস্ট আওয়ামী সরকারের পতনের ঘণ্টা বাজিয়ে দেবে। বিএনপি নেতা মানিক মিয়ার সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা  বিএনপি’র সহ-সভাপতি মোজাহিদ আলী, বিশ্বনাথ উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি জালাল উদ্দিন চেয়ারম্যান, ওসমানীনগর থানা বিএনপি’র সভাপতি সৈয়দ মোতাহির আলী চেয়ারম্যান, সাধারণ সম্পাদক ইমরান রব্বানী চেয়ারম্যান, সহ-সভাপতি সাইদুল ইসলাম রেনু মিয়া, বিশ্বনাথ থানা বিএনপি’র সহ-সভাপতি মনির মিয়া, যুগ্ম সম্পাদক আবদুল হাই, ওসমানীনগর থানা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক ফখর উদ্দিন, দপ্তর সম্পাদক নাজমুল হাসনাত চৌধুরী, যুবদল নেতা নজরুল ইসলাম, নুর উদ্দিন, আব্দুর রউফ, শামীমুর রহমান রাসেল, ফজল আহমদ জনি, ছাত্রদল নেতা শামসুল ইসলাম, সৈয়দ মোফাজ্জল আলী, আবদুল কাইয়ুম, জামাল উদ্দিন, রুমেল আহমদ, সাহেল আহমদ প্রমুখ।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট