Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরু বনভান্তের মৃতদেহ আনুষ্ঠানিকভাবে সংরক্ষণ

রাঙামাটি, ২ মার্চ: শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় গুরু শ্রীমৎ মহাস্থবির বনভান্তের মৃতদেহ আনুষ্ঠানিকভাবে সংরক্ষণ করবে রাঙামাটি রাজ বনবিহার পরিচালনা কমিটি।

 

এ উপলক্ষে শুক্রবার রাজ বনবিহার কঠিন চীবর দান মাঠে আয়োজন করা বিশেষ ধর্মীয় সভা। এতে বক্তব্য দেন,  শিল্পমন্ত্রী দীলিপ বড়ুয়া, পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার, রাজ বনবিহার পরিচালনা কমিটির সহসভাপতি গৌতম দেওয়ান ও চাকমা সার্কেল চিফ ব্যারিস্টার দেবাশীষ রায়।

 

এসময় রাঙামাটি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, সেনাবাহিনীর রিজিয়ন কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল শামসুজ্জামা পিএসসি, জেলা বিএনপির সভাপতি দীপেন দেওয়ানসহসহ দেশ বিদেশের হাজার হাজার ভক্ত অনুরাগী অংশ নেন।

 

দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে হাজার দেশি বিদেশি বনভান্তের অনুরাগীদের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মৃতদেহ বিশেষ ব্যবস্থায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বনভান্তের বিশ্রামাগারে রাখা হয়। যাতে  বছরের পর বছর তার ভক্তরা দর্শন লাভ করতে পারে।

 

বিশেষ ধর্মীয় সভায় আলোচকরা বনভান্তের অহিংসার ধর্ম সবার মাঝে ছড়িয়ে দেয়া এবং বনভান্তের অসম্পন্ন কাজ সম্পন্ন করতে সবার প্রতি আহবান জানান।

 

পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রাণালয়ের প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার আগামী অর্থ বছরেই বনভান্তের স্মৃতিস্তম্ভ পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে নির্মাণ করার ঘোষণা দেন।

 

উল্লেখ্য, ৯৩ বৎসর বয়স্ক এই বৌদ্ধ সাধক আর্যপুরুষ বার্ধক্যজনিত রোগ ছাড়াও উচ্চ রক্তচাপ, ঠান্ডাজনিত সমস্যা এবং ফুসফুসের সমস্যায় ভুগছিলেন। গত ২৭ জানুয়ারি সকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারযোগে ঢাকার রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়। ৩০ জানুযারি চিকিৎসাধীন অবস্থায় বনভান্তে মহাপরি নির্বাণ লাভ (দেহত্যাগ) করেন। মৃত্যুর প্রায় ৩২দিন পর আনুষ্ঠানিকভাবে তার মৃতদেহ সংরক্ষণ করার জন্য পুন্যা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে রাজবনবিহার পরিচালনা কমিটি। ইতিমধ্যে থ্যাইল্যান্ড থাকা আসা একটি বিশেষজ্ঞ দল বনভান্তের মৃতদেহ সংরক্ষণের কাজ শেষ করেছে শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে ভক্ত অনুরাগীদের শ্রদ্ধা শেষে উপস্থিতিতে সেটি বনভান্তের শয়ন কক্ষে রাখা হবে।

 

চাকমা সার্কেল চিফ ব্যারিস্টার দেবাশীষ রায় জানিয়েছেন, বিশেষ ব্যবস্থায় যুগ যুগ ধরে যেন বনভান্তের মৃতদেহ ভক্ত অনুরাগীদের আর্দশ হয়ে থাকে সে জন্য মৃতদেহ বনভান্তে যে কক্ষে শয়ন করতেন সেখানে রাখা হবে।

 

 

বার্তা২৪/এটি

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট