Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

৭ মার্চ আওয়ামী লীগের গণর‌্যালি

ঢাকা, ২৯ ফেব্রুয়ারি: আগামী ৭ মার্চ ‘স্মরণকালের সর্ববৃহৎ’ গণর‌্যালি আয়োজন করার ঘোষণা দিয়েছে আওয়ামী লীগ ঘোষণা দিয়েছে। বুধবার সকালে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক যৌথ সভায় এ ঘোষণা দেয়ার সময় দলটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘‘১২ মার্চ বিএনপির ঢাকা চলো’র চেয়ে আমাদের ৭ মার্চের কর্মসূচিতে অনেক বেশি লোকের জমায়েত হবে।’’

 

হানিফ বলেন, ‘‘লাখো জনতার অংশগ্রহণে ওইদিন প্রমাণিত হবে বিএনপি-জামায়াতের চেয়ে আওয়ামী লীগের সামর্থ্য অনেক বেশি।’’

 

৭ মার্চের এ র‌্যালি উদ্বোধন করবেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

আওয়ামী লীগের সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন এবং ঢাকা মহানগর, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, মানিকগঞ্জ, গাজীপুর, মুন্সিগঞ্জ জেলা শাখাগুলোর সঙ্গে এ যৌথসভার আয়োজন করা হয়।

 

হানিফ বলেন, ‘‘আন্দোলনের নামে খালেদা জিয়া যুদ্ধাপরাধী ও জামায়াতকে রক্ষার চেষ্টা চালাচ্ছেন। ১২ মার্চের ‘চলো চলো ঢাকা চলো’ তারই ধারাবাহিকতার একটি অংশ।’’

সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে যৌথ সভায় দলের অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন। অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু ও তোফায়েল আহমেদ, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী।

 

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘‘যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের বিল পাস হওয়ার পর থেকেই বিএনপি এ বিচার বানচালের চক্রান্ত করে যাচ্ছে।

 

তিনি খালেদা জিয়ার লালমনিরহাটের বক্তব্য প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘তার এ বক্তব্যে লজ্জা লাগে। তিনি বলেছেন আওয়ামী লীগ পালিয়ে যাবে, অথচ তার ছেলেরাই বিদেশে পালিয়ে আছে।’’

 

যুদ্ধাপরাধীদের বাচানোর জন্য বিরোধী দল অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করে দেশকে অস্থিতিশীল করছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘‘মার্চের প্রতিটি দিনকেই ঐতিহাসিকভাবে পালন করা উচিত।’’

 

সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘‘যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুধু আমাদের একার দাবি না। গোটা জাতির দাবি। বিচার যদি না করতে পারি তাহলে ৩০ লাখ শহীদের কাছে এবং ইতিহাসের কাঠগড়ায় আসামী হয়ে দাড়াতে হবে। কিন্তু শেখ হাসিনা ইতিহাসের কাঠগড়ায় আসামী হিসেবে নয় বিচারক হিসেবে ভূমিকা পালন করবে।’’

 

৭ মার্চের কর্মসূচি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘এমন মিছিল করবো, সে জনস্রোত দেখে খালেদা জিয়াসহ সবাই বুঝতে পারবে জনগণ কোন দিকে আছে।’’

 

তিনি এসময় বিরোধী দলকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘‘তারা অবশ্য বোঝে না। তারা অন্ধ-বধির। তারা বুঝেও বোঝে না।’’

 

মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘‘ন্যায় বলে যদি কিছু থাকে সত্য বলে কিছু থাকে। বিচার তাহলে হবেই।’’

 

সভাপতির বক্তব্যে লতিফ সিদ্দিকী বলেন, ‘‘যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হবেই। আদালত যে রায় দেবে সেই রায় কার্যকর করা হবে। কোনো ষড়যন্ত্র এ বিচারকে বাধাগ্রস্ত করতে পারবে না।’’

 

বৈঠক শেষে মাহবুব-উল-আলম হানিফ জানান, ৭ মার্চের সকালের কর্মসূচি হিসেবে সারাদেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ শোনানো হবে। এরপর বঙ্গবন্ধু ভবনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দেয়া হবে দলের পক্ষ থেকে। শিখা চিরন্তন থেকে শুরু হয়ে ধানমন্ডি পর্যন্ত এই র‌্যালি করা হবে বলেও জানান তিনি।

 

বা২৪/এএএস/এমএ

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


3 Responses to ৭ মার্চ আওয়ামী লীগের গণর‌্যালি

  1. sikiş izle

    March 13, 2012 at 12:05 pm

    Hello admin very good article significantly thanks beloved this blog definitely considerably

  2. amcik

    March 14, 2012 at 7:34 am

    you might be actually quantity one particular admin your blogging is astounding i usually test your blog site i’m certain you will probably be the perfect

  3. smackdown oyunları

    March 14, 2012 at 3:31 pm

    hey admin thanks for excellent and effortless understandable post i cherished your website web page genuinely significantly bookmarked also