Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

অনুমান-নির্ভর সংবাদ ও মন্তব্য বন্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ

সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি হত্যা সম্পর্কে ‘জজ মিয়া প্রস্তুত’, ‘জজ মিয়া খোঁজা হচ্ছে’- এ ধরনের অনুমান-নির্ভর সংবাদ প্রকাশ বন্ধে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্থা নিতে তথ্য সচিবকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। তদন্তকে প্রভাবিত করে এমন কোন সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য সংবাদ মাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে আদালত। আলোচিত এই হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার মন্তব্যেরও কঠোর সমালোচনা করা হয়েছে। তদন্ত প্রক্রিয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে আদালত। বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী এবং বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেনের হাইকোর্ট বেঞ্চ বলেন, আমরা লক্ষ্য করছি দুই সাংবাদিকের হত্যার ঘটনা তদন্তে সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে। এ তদন্তে কোন ধরনের অবহেলা আমাদের চোখে পড়েনি। একাধিক তদন্ত সংস্থা এ ঘটনার পুরো সত্য বের করে আনার জন্য কাজ করছে। সরকারের প্রধান ঘটনাটি মনিটরিংয়ের দায়িত্ব নিয়েছেন। কিন্তু আমরা অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে লক্ষ্য করছি, কিছু সংখ্যক রাজনীতিবিদ তদন্তকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য করছেন। তারা নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য এ ধরনের মন্তব্য করেছেন। লালমনিরহাটে বিরোধীদলীয় নেত্রী একটি রায় দিয়েছেন যে, সরকারই খুন করেছে। এ বক্তব্যের সমালোচনার ভাষা আমাদের জানা নেই। তার এ দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্য তদন্তকে প্রভাবিত করতে বাধ্য। বৃটেন বা অন্য কোন দেশে হলে এ ধরনের বক্তব্যের জন্য তাকে কারাগারে পাঠানো হতো। তার বক্তব্য শুধু দায়িত্বজ্ঞানহীনই নয়, আদালত অবমাননারও শামিল। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ নামে একটি সংগঠনের দায়ের করা রিট আবেদনের আদেশে হাইকোর্ট এসব কথা বলেন। আদালত আরও বলেন, আমরা সকলে এ ঘটনার সঠিক তদন্ত দেখতে চাই। দু’টি সংবাদপত্র রিপোর্ট করেছে (জজ মিয়া খোঁজা হচ্ছে, জজ মিয়া প্রস্তুত)। এসব নিউজও তদন্তকে প্রভাবিত করে। তদন্তকে প্রভাবিত করে এমন কিছু করা বা বলা ঠিক হবে না। যারা মরে গেছে তাদের আত্মার প্রতি তার (খালেদা) কোন শ্রদ্ধা নেই। এবং দুই সাংবাদিকের পরিবারের প্রতিও সমবেদনা নেই। আদালত সাংবাদিক দম্পতি হত্যা ঘটনার প্রকৃত কারণ উদঘাটন এবং খুনিদের আইনের আওতায় আনতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করেন। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। সুনির্দিষ্ট অগ্রগতি ছাড়া তদন্ত বিঘ্নিত হতে পারে এমন বক্তব্য মিডিয়ায় না দিতে তদন্ত সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
‘অনুমাননির্ভর’ সংবাদ প্রকাশ বন্ধে ব্যবস্থা চেয়ে রিট
মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ-এর দায়ের করা রিটে সাগর-রুনি হত্যার কোন তদন্ত চাওয়া হয়নি। বরং তদন্ত কর্মকর্তা যেন তদন্তে সুনির্দিষ্ট অগ্রগতি ছাড়া মিডিয়ায় কোন মন্তব্য না করেন তার নির্দেশনা চাওয়া হয়। ‘জজ মিয়া প্রস্তুত’, ‘জজ মিয়া খোঁজা হচ্ছে’ এ ধরনের সংবাদ প্রকাশ বন্ধেও ব্যবস্থা চাওয়া হয়। দৈনিক যুগান্তর এবং দৈনিক আমার দেশ পত্রিকায় প্রকাশিত এ সংক্রান্ত দু’টি প্রতিবেদনও সংযুক্ত করা হয় প্রতিবেদনে। রিট আবেদনটি উত্থাপন করে সংগঠনটির চেয়ারম্যান মনজিল মোরসেদ বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে তদন্ত সঠিকভাবে হচ্ছে। কিন্তু কিছু সংবাদপত্র জজ মিয়া নাটকের কথা বলছে। এখন যদি এ বিষয়ে আদালত আদেশ না দেন, তাহলে সত্যিকার আসামি গ্রেপ্তার হলে তাকেও জজ মিয়া হিসেবেই মানুষ জানবে। তাই এ বিষয়ে একটি আদেশ দরকার। মিডিয়ায় বিভিন্ন কথা আসার কারণে তদন্তের গ্রহণ যোগ্যতা নষ্ট হবে। এ ধরনের যেন সংবাদ প্রকাশিত না হয় এ জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়কে ব্যবস্থা নিতে হবে। এ সময় আদালত কক্ষে উপস্থিত বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনকে আদালত প্রশ্ন করে বলেন, আপনি তো বিদেশে ছিলেন। এটা নিয়ে রাজনীতি হওয়া কি ঠিক? দেশের গুরুত্বপূর্ণ এক নেতা বলেছেন, ওই হত্যাকাণ্ডে সরকার জড়িত। এ ধরনের দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্য দেয়া ঠিক কিনা? এ প্রশ্নের জবাবে মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, পৃথিবীর সব দেশে হত্যাকাণ্ড ঘটছে। আইনজীবী হিসেবে বলবো বিচারাধীন বিষয়ে কোন পক্ষেরই মন্তব্য করা ঠিক নয়। তিনি আরও বলেন, লালমনিরহাটে বিরোধীদলীয় নেতা যে কথা বলেছেন সেটি হচ্ছে গত কয়েক দিনের পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের একটি সারমর্ম। এরপর আদালত এডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজনের এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে চান। নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, এ হত্যাকাণ্ড নিয়ে বিরোধীদলীয় নেতা যে বক্তব্য দিয়েছেন সেটা সঠিক নয়। এ সময় আদালত বলেন, এ ধরনের বক্তব্যের পর আদালত নিরপেক্ষ বিচার করতে পারবে কিনা। এ প্রশ্নের জবাবে সুজন বলেন, শুধু আদালত নয়। তদন্তও প্রভাবিত হয়। যা অনাকাঙ্ক্ষিত। যদি মামলা না হতো কিংবা তদন্ত না হতো তাহলে বক্তব্য দেয়া যেতো। কিন্তু এখানে তদন্ত হচ্ছে, মামলা হয়েছে। এখানে সবারই সহযোগিতা করা উচিত।
নুরুল ইসলাম সুজন আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য। এরপর এডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ন বলেন, কারও মন্তব্য করা কিংবা রাজনীতি করা ঠিক নয়। মুক্ত মনে বিষয়টির তদন্ত করতে দেয়া উচিত। এরপর আদালতে বক্তব্য দেন আইনজীবী শ. ম. রেজাউল করিম এবং এ এম আমিনউদ্দিন। এরপর আদালত দৈনিক ইত্তেফাকের আইন, সংবিধান ও নির্বাচন কমিশনবিষয়ক সম্পাদক সালেহউদ্দিনের বক্তব্য শুনতে চান। সালেহউদ্দিন বলেন, আমরা এ দেশের নাগরিকরা অপরাজনীতির শিকার। সরকার ও বিরোধী উভয়পক্ষই এ নিয়ে কথা বলছেন। তাদের এ ধরনের বক্তব্য দেয়া ঠিক নয়। আমরা চাই আদালত এমন নির্দেশনা দেবেন, যাতে এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার হবে। শুনানি চলাকালে হাইকোর্ট বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৪৮ ঘণ্টার কথা বলেছিলেন পুলিশের ওপর চাপ দিতে। মনজিল মোরসেদ বলেন, আদালত আদেশ দিলেও সেটা চাপ হবে। সঠিক তদন্তে সহযোগিতা করবে। পরে মনজিল মোরসেদ সাংবাদিকদের কাছে আদালতের আদেশের বিষয়টি জানান।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


6 Responses to অনুমান-নির্ভর সংবাদ ও মন্তব্য বন্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ

  1. sikiş izle

    March 13, 2012 at 4:02 am

    I was curious about your upcoming submit admin actually essential this blog site super wonderful web site

  2. alışveriş rehberi

    March 14, 2012 at 4:04 am

    I used to be curious about your up coming publish admin genuinely essential this web site super incredible webpage

  3. escort ilanlari

    March 14, 2012 at 4:54 am

    Fantastic publish admin thank you. I found what i was searching for here. I will review complete of posts within this day time

  4. su arıtma cihazı

    March 14, 2012 at 11:10 am

    Truly required put up admin wonderful one particular i bookmarked your net sheet see you in subsequent blog put up.

  5. termal

    March 14, 2012 at 1:44 pm

    Greetings thanks for great post i was searching for this challenge final 2 days. I will search for subsequent valuable posts. Have fun admin.

  6. smackdown oyunları

    March 14, 2012 at 2:38 pm

    Nice 1 blog site proprietor accomplishment website submit great sharings within this blog at all times have exciting