Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সন্দেহভাজন হিজবুত তাহরিরের ৫ সদস্য গ্রেপ্তার

সেনাবাহিনী সম্পর্কে উস্কানিমূলক লিফলেট ছড়ানোর অভিযোগে ৫ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল রাজধানীর উত্তরা এলাকার একটি মসজিদের সামনে থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। গ্রেপ্তারকৃতরা সবাই নিষিদ্ধ ঘোষিত উগ্রবাদী সংগঠন হিজবুত তাহরির’র সদস্য বলে দাবি করেছে র‌্যাব। তবে গ্রেপ্তারকৃতদের গণমাধ্যমের সামনে নিয়ে আসা হয়নি। এর আগে গত বৃহস্পতিবার সেনা সদরের এক সংবাদ সম্মেলনেও হিজবুত তাহরির’র বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক তথ্য সংবলিত লিফলেট প্রচারের অভিযোগ করা হয়েছে। র‌্যাব জানায়, গতকাল জুমার নামাজের পর হিজবুত তাহরির’র অর্ধশতাধিক সদস্য উত্তরা মডেল টাউনের ৬নং সেক্টরের ৮নং রোডে অবস্থিত বায়তুন নূর জামে মসজিদের সামনে জমায়েত হয়। তারা সেখানে নামাজ পড়ে বের হওয়া মুসল্লিদের মাঝে সেনাবাহিনী সম্পর্কে আপত্তিকর বক্তব্য সংবলিত লিফলেট বিলি শুরু করে। এছাড়া তারা সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী বিভিন্ন স্লোগানও দেয়। খবর পেয়ে বিপুল সংখ্যক র‌্যাব সদস্য মসজিদটি ঘিরে ফেলে। এ সময় নামাজ থেকে বের হওয়া মুসল্লিদের মধ্যে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। একপর্যায়ে হিজবুত তাহরির’র সদস্যদের সঙ্গে র‌্যাব সদস্যদের ধস্তাধস্তি হয়। গ্রেপ্তার করতে গেলে হিজবুত তাহরির’র সদস্যরা র‌্যাব সদস্যদের কিল-ঘুষি মারতে শুরু করে। এতে ২ জন র‌্যাব কর্মকর্তা আহত হন। পরে ঘটনাস্থল থেকে ৫ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা সবাই হিজবুত তাহরির’র সদস্য বলে দাবি করেছে র‌্যাব। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, ডা. মিনহাজ, মোসাদ্দেক আলী, মোসাব্বির আলী, ইব্রাহিম খলিল ও ফাহিম আকতার ভূঁইয়া। গতকাল ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, মসজিদটি ঘিরে রেখেছে র‌্যাব সদস্যরা। বিভিন্ন গণমাধ্যমের কর্মীরা সেখানে ভিড় করছেন। আশপাশের বাসিন্দারাও ভিড় করে ঘটনা বুঝে ওঠার চেষ্টা করছেন। বেলা সাড়ে ৩টার দিকে সেখানে উপস্থিত হন র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার এম সোহায়েল। তিনি সাংবাদিকদের কাছে বিষয়টি বর্ণনা করেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল রাশিদুল আলম বলেন, এখানে কিছু একটা হবে এমন গোয়েন্দা তথ্য আমাদের কাছে আগে থেকেই ছিল। আমরা সতর্ক ছিলাম। হিজবুত তাহরির সদস্যরা লিফলেট বিলি করছে খবর পাওয়া মাত্রই আমরা অভিযান চালাই। তিনি বলেন, তাদের কাছ থেকে কয়েক হাজার লিফলেট জব্দ করা হয়েছে। লিফলেটগুলোতে সেনাবাহিনী সম্পর্কে উস্কানিমূলক বিভিন্ন বক্তব্য রয়েছে। এছাড়া সাদা কালো ফুলস্কেপ কাগজে ছাপা ওই লিফলেটে বর্তমান সরকার ও রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি। তবে লিফলেট গণমাধ্যমের কর্মীদের দেখতে দেয়া হয়নি। এর কারণ হিসেবে র‌্যাব কর্মকর্তারা জানান, এ বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। তাছাড়া উল্লিখিত লিফলেটের বার্তা গণমাধ্যমে ব্যাপকভাবে প্রচারিত হতে দেয়াও যুক্তিসঙ্গত হবে না। হিজবুত তাহরির সদস্যরা সশস্ত্র ছিল কিনা- এমন প্রশ্নে র‌্যাব কর্মকর্তারা বলেন, তদন্তের পরই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। সেনাবাহিনীতে অভ্যুত্থানের অন্যতম পরিকল্পনারী পলাতক মেজর জিয়ার ই-মেইল লিফলেট আকারে গত ৮ই জানুয়ারি বিলি করেছে নিষিদ্ধ উগ্রবাদী সংগঠন হিজবুত তাহরির বলে গত বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে জানায় সেনা সদর।

প্রথম আলো

 

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট