Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

ফেনী সেতু, ত্রিপুরার পত্রিকায় বাংলাদেশের কঠোর সমালোচনা

আখাউড়া, ২১ ফেব্রুয়ারি: ফেনী নদীর ওপর সেতু নির্মাণে অনিশ্চয়তায় ভারতের ত্রিপুরার ‘দৈনিক সংবাদ’ পত্রিকায় বাংলাদেশ সরকার ও রাজনৈতিক দলগুলো তীব্র সমালোচনা করা হয়েছে। একইসঙ্গে তিস্তাচুক্তি অকার্যকরে আগামী নির্বাচনে সরকারের ব্যাপক ভরাডুবির আশঙ্কা প্রকাশ।

‘বাংলাদেশে ভারত বিরোধী প্রচার তুঙ্গে, ফেনী নদীতে ব্রিজ নির্মাণ হুমকির মুখে’ শিরোনামে মঙ্গলবার ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় ত্রিপুরা রাজ্যের দৈনিক সংবাদ পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফেনী নদীর ওপরে সেতু নিয়ে ফের অনিশ্চয়তার মেঘ দেখা দিয়েছে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশের ভারত বিরোধী একটি গোষ্ঠি ময়দানে নেমে পড়েছে।

‘সীমান্ত সূত্র’ উল্লেখ করে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে;

বাংলাদেশের রামগড়ে ভারত বিরোধী গোষ্ঠির নেতারা গোপনে তাদের প্রচার জারি রেখেছে। তাদের মতে, কোনোভাবেই ফেনী নদীর ওপরে সেতু করে ভারতকে সুবিধা দেয়া হবে না। বিশেষ করে রামগড়ের জামায়াতে ইসলামী গোষ্ঠির শীর্ষ নেতারা চাইছে না যে ফেনী নদীর ওপর দিয়ে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার গেইটওয়ে চালু হোক এবং চট্টগ্রামের সামুদ্রিক বন্দরের সুবিধা ভারতকে দেয়া হোক। ওই গোষ্ঠীর নেতারা প্রতিদিন সীমান্তবর্তী বাংলাদেশের গ্রামে গ্রামে ভারত বিরোধী প্রচার করে নিজেদের সমর্থন আদায় করে নিতে পুরোপুরি সক্ষম হয়েছে।

শুধু জামায়াতে ইসলামীর নেতারা নয় খোদ রামগড়ের একশ্রেণীর সরকারি আমলা থেকে শুরু করে শিক্ষিত লোকেরা চাইছে না যে, ফেনী নদীর ওপরে ব্রিজ করে ভারতকে চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহারের অনুমতি দিক শেখ হাসিনা সরকার। গত ৩ বছরের মধ্যে ফেনীর পানি ব্যবহার নিয়ে কত বৈঠক দু‘দেশের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে হয়েছে তা দু‘দেশের বাবুরা ভালভাবে জানে কিন্তু আজো সমাধান হয়নি। না হওয়ার পিছনে সব থেকে বড় কারণ হচ্ছে যে বাংলাদেশ সরকারের সরকারি মহলে আজো ভারত বিরোধী মনোভাব। এ কারণে এমন বহু প্রকল্পের কাজ মাঝ পথে চিরতরে বন্ধ হয়ে গিয়েছে।

ফেনী নদীর ওপরে বাংলাদেশ সরকারের চরম খামখেয়ালিপনার জন্য আজো ত্রিপুরা সাব্রুম শহরের মধ্যে ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্রকল্প চালু করা সম্ভব হয়নি। ভারতের প্রতিনিধিরা বারে বারে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদের বোঝাতে ব্যর্থ হয়েছেন। কিন্তু সবই বিফলে গেছে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশের রাজনৈতিক বাতাস উল্টো দিকে বইছে।

সম্প্রতি বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় যে পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে তাতে ব্যাপক পরাজয় ঘটেছে শেখ হাসিনার দলের। এর মধ্যে আবার ঢাকার সিটি করপোরেশন নির্বাচন কিছুদিনের মধ্যে হতে যাচ্ছে। বিএনপিসহ একাধিক বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলের মুখ্য প্রচারের বিষয় হচ্ছে তিস্তা থেকে শুরু করে ফেনী ছিটমহল সর্বশেষ ফারাক্কা। ভারত বিরোধী প্রচারের ফলে সে দেশের বিরাট অংশের জনগণ পৌরসভাগুলোতে বিরোধীদের প্রাধান্য দিয়েছে। এর মধ্যে রামগড়েও ব্যাপকভাবে ভারত বিরোধী প্রচার হচ্ছে।

বাংলাদেশের বিরোধী গোষ্ঠির নেতারা জনসমক্ষে প্রচার চালাচ্ছে যে, ফেনী নদীর ওপরে ব্রিজ হলে তাদের ব্যাপক ক্ষতি হবে, বিরোধীদলের নেতারা চাইনা যে ফেনী নদীর ওপরে ব্রিজ হোক। বিশেষ করে জামায়াতে ইসলামী গোষ্ঠির নেতারা একেবারে প্রকাশ্যে ভারত বিরোধী প্রচারে গা ভাসিয়ে দিয়েছে।

ইতিমধ্যে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি ঢাকায় অনুষ্ঠিত একটি সম্মেলনে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের সামনে তিস্তার চুক্তি নিয়ে ভারত সরকার এবং পশ্চিমভঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিকট আর্জিও জানিয়েছেন।

দীপু মনি জানেন যে, আগামী দু’বছরের মধ্যে বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তার আগে যদি তিস্তাসহ একাধিক চুক্তি দ্রুত সেরে নেয়া যায় তাহলে দল পুরো অক্সিজেন নিয়ে মাঠে নামতে পারবে। আর তা সঠিকভাবে কার্যকর না হলে তার দলের ব্যাপক ভরাডুবি হবে, কারণ বিরোধী বিএনপি এখন থেকে তিস্তার পানি বন্টন চুক্তি দ্রুত না হওয়ায় শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে সরাসরি মাঠে নেমেছেন।

দিল্লি-ঢাকার মধ্যে ট্রানজিট এবং ফেনী নদীর ওপরে সেতু নিয়ে যতই সবুজ সঙ্কেত দেয়া হোক না কেন, বাংলাদেশের বর্তমান আভ্যন্তরীণ রাজনীতির আলোকে তা যে কার্যকর করা শেখ হাসিনা সরকারের কাছে কঠিন চ্যালেঞ্জ তা সহজে বোঝা যাচ্ছে।

বার্তা২৪/এটি/এমএ

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


3 Responses to ফেনী সেতু, ত্রিপুরার পত্রিকায় বাংলাদেশের কঠোর সমালোচনা

  1. Santo

    February 22, 2012 at 1:15 am

    Podma satou na holay abar sharitpur a aoamelegar abosta kharap hoya jabay 2014 salar nerbachonay

  2. sikiş izle

    March 13, 2012 at 11:06 am

    Good publish admin! i bookmarked your internet blog site. i will appear forward should you may have an e-mail variety including.

  3. smackdown oyunları

    March 14, 2012 at 3:24 pm

    hey admin thanks for excellent and uncomplicated understandable post i loved your blog web site truly considerably bookmarked also