Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

বিএসএফের জন্য বিশেষ কর্মশালা

কলকাতা, ১৮ ফেব্রুয়ারি: ভারতের মানবাধিকার কমিশন সেদেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীকে (বিএসএফ)মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা বন্ধ করতে সতর্ক করে দিয়েছে।

মানবাধিকার কমিশন বলেছে, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে কর্মরত বিএসএফের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ মাঝে মাঝেই পাওয়া যাচ্ছে।

বাহিনীর অফিসারদের মানবাধিকার বিষয়ে সচেতন করে তুলতে এক কর্মশালায় কলকাতায় এসে কমিশনের চেয়ারম্যান কে জি বালাকৃষ্ণন বলেছেন যে আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি মর্যাদা দিয়ে বিএসএফকে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা বন্ধ করতে হবে।

ওই কর্মশালায় অন্যদের মধ্যে ছিলেন দক্ষিণবঙ্গ সীমান্তের ডিআইজি জে. এস. এন. ডি. প্রসাদ। জে এস এন ডি প্রসাদের কথায়, “মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান বলেছেন যে বিএসএফের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠছে। মানবাধিকার লঙ্ঘন বন্ধ হলে তবেই যে এলাকায় বাহিনী কাজ করছে, সেখানকার স্থানীয় মানুষের সম্মান অর্জন করতে পারবেন বাহিনীর সদস্যরা। এই বিষয়ে যে বিএসএফ কর্মীদের সচেতন করার প্রয়োজন আছে, সেই কথাটাও বলেছেন মি. বালাকৃষ্ণান।”

অফিসার ও মানবাধিকার কমিশনের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ওই কর্মশালায় বিভিন্ন বিষয়ের সঙ্গে আলোচিত হয় হেফাজতে মৃত্যু, সংঘর্ষে মৃত্যুর মতো বিষয় নিয়ে।

মানবাধিকার কমিশন ভারতের সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশাবলী বিএসএফের সদস্যদের আবারও মনে করিয়ে দিয়েছেন।

অন্যদিকে, বিএসএফের অফিসাররা মেনে নিয়েছেন যে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে কাজ করতে গিয়ে কখনোও হয়ত মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা হচ্ছে-আর সেগুলো বন্ধ করতেই এই কর্মশালার খুব প্রয়োজন ছিল।

ডিআইজি প্রসাদ বলেন, “মানবাধিকার আইন মেনে চলতেই হবে, সীমান্ত এলাকায় বসবাসকারী মানুষদের সঙ্গে ভাল ব্যবহার করতেও হবে। কিন্তু বাংলাদেশ সীমান্তে কাজ করতে গিয়ে তাদের কখনোও চোরাচালানকারীদের আক্রমণের মোকাবিলা করতে হয়, সেই সময়ে আত্মরক্ষার্থে গুলিও চালাতে হয়। তাতে বাহিনীর সদস্যদের প্রাণহাণিও হয়-আবার সেই সব ঘটনায় বাহিনীর বিরুদ্ধেই অভিযোগ করে কিছু সেচ্ছাসেবী সংগঠন।”

বাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্তের সময়ে এই বিষয়গুলি যাতে মাথায় রাখা হয়-সে ব্যাপারে মানবাধিকার কমিশনের কর্মকর্তাদের অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানান বিএসএফের ডিআইজি প্রসাদ।

উল্লেখ্য, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে কর্মরত বিএসএফ সদস্যদের বিরুদ্ধে কথিত চোরাচালানকারী বা অনুপ্রবেশকারীদের ওপর গুলিচালনা বা বলপ্রয়োগের অভিযোগ ছাড়াও নিরীহ মানুষকে গুলি করে মেরে ফেলারও অভিযোগ আছে।

গতবছর উত্তরবঙ্গের সীমানায় কিশোরী ফেলানিকে গুলি করে মেরে ফেলা বা অতি সম্প্রতি আটজন বিএসএফ সদস্যের এক কথিত বাংলাদেশী চোরাচালানকারীকে নগ্ন করে অত্যাচার-এই সব ঘটনায় আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলি বিএসএফের বিরুদ্ধে সরব হয়ে উঠেছে।

কয়েকদিন আগে এক সাক্ষাৎকারে বিএসএফের প্রধান ইউ কে বনশাল মন্তব্য করেছিলেন “সীমান্তে যতদিন না অবৈধ কার্যকলাপ বন্ধ হচ্ছে-ততদিন বলপ্রয়োগ বা গুলি চালানো পুরোপুরি বন্ধ করা সম্ভব নয়। সীমান্তে দুষ্কৃতিদের রোখাই আমার বাহিনীর দায়িত্ব।”

তিনি আরও বলেছিলেন যে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডস যদি তাদের দিকে প্রহরা কড়া করে, তাহলে দুষ্কৃতিরা সীমান্ত পেরিয়ে ভারতের দিকে আসবে না আর বিএসএফকেও বলপ্রয়োগ করতে হবে না।

বিএসএফ অফিসাররা মনে করছেন সেরকম একটা পরিস্থিতি তৈরি হলে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনাও কমে আসবে। তবে ততদিনে বাহিনীর সদস্যদের মানবাধিকারের ব্যাপারে আরও সচেতন করার প্রক্রিয়া চলতে থাকবে। সূত্র: বিবিসি।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


5 Responses to বিএসএফের জন্য বিশেষ কর্মশালা

  1. sikiş izle

    March 13, 2012 at 6:15 am

    i bookmarked you in my browser admin thank you so much i will likely be looking for your upcoming posts

  2. ucuz notebook

    March 14, 2012 at 4:27 am

    i bookmarked you in my browser admin thank you a lot i will likely be looking for your subsequent posts

  3. escort ilanlari

    March 14, 2012 at 5:08 am

    Greetings thanks for wonderful submit i was seeking for this concern previous a couple of days and nights. I will search for subsequent precious posts. Have exciting admin.

  4. sikvar

    March 14, 2012 at 6:07 am

    I was seeking this blog site survive 3 times fantastic blog site proprietor great posts everything is great

  5. smackdown oyunları

    March 14, 2012 at 2:53 pm

    Greetings thanks for wonderful put up i used to be searching for this issue survive a couple of days. I’ll look for next precious posts. Have enjoyable admin.