Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

আওয়ামী লীগকে নিষিদ্ধের দাবি জামায়াতের

সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের দায়ে আওয়ামী লীগকে নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। হাইকোর্টে জামায়াতের নিবন্ধন অবৈধ ঘোষণার একদিন পরই আওয়ামী লীগকে নিষিদ্ধের দাবি জানালো দলটি। শুক্রবার সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান এক বিবৃতিতে বলেন, সন্ত্রাসে জড়িত থাকার কারণে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগকে নিষিদ্ধ করা উচিত। জামায়াতে ইসলামীকে নিষিদ্ধ করার দাবি সম্পূর্ণ অন্যায় ও অযৌক্তিক।

সরকার জামায়াত ধ্বংসের ষড়যন্ত্র করছে উল্লেখ করে রফিকুল ইসলাম খান বলেন, আওয়ামী মহাজোট সরকার ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকেই জামায়াতে ইসলামীকে ধ্বংস করার জন্য গভীর ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। এ ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই জামায়াতে ইসলামীর শীর্ষ নেতৃবৃন্দসহ হাজার হাজার নেতাকর্মীকে অন্যায়ভাবে কারারুদ্ধ করা হয়েছে এবং বিচারের নামে প্রহসন করে জামায়াতের শীর্ষ নেতাদের কাউকে ফাঁসি ও কাউকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

কোর্টের দেয়া রায় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে দেয়া বিভক্তি রায়ে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক দেয়া জামায়াতের নিবন্ধন অবৈধ ঘোষণা করেছে। এ রায় ন্যায়ভ্রষ্ট ও অন্যায্য। অপরিপক্ব রিটে ভুল রায় দেয়া হয়েছে। জামায়াতের প্রতি সুবিচার করা হয়নি।

সরকারি দল সন্ত্রাস করছে দাবি করে বিবৃতিতে বলা হয়, আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগের সন্ত্রাসীরা সারাদেশে চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজি করছে এবং তাদের সন্ত্রাসের শিকার হয়ে বহু লোক প্রাণ হারিয়েছে। কয়েকদিন পূর্বে যুবলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে ঢাকা শহরে যুবলীগ নেতা রিয়াজউদ্দিন খান মিল্কি নিহত হয়েছে এবং র‌্যাবের হাতে বন্দী অবস্থায় মিল্কির হত্যার আসামিদেরও হত্যা করা হয়েছে। এ থেকেই প্রমাণিত হয় যে, আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ দেশে কি ভয়ঙ্কর সন্ত্রাস সৃষ্টি করেছে। কাজেই সন্ত্রাসে জড়িত থাকার কারণে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগকে নিষিদ্ধ করা উচিত।

জামায়াতকে নির্বাচন থেকে  দূরে রাখার যড়যন্ত্র হচ্ছে উল্লেখ করে বিবৃতিতে বলা হয়, আগামী নির্বাচনে জামায়াত যাতে ১৮ দলীয় জোটকে বিজয়ী করতে বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করতে না পারে সে জন্য সরকার জামায়াতের ওপর চরম আঘাত হানার ষড়যন্ত্র করছে। সেই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই জামায়াতের নিবন্ধন অবৈধ ঘোষণা করে দেশকে নৈরাজ্যের দিকে ঠেলে দেয়ার জন্য সরকার চক্রান্ত করছে। নিবন্ধন অবৈধ ঘোষণার মাধ্যমে নির্বাচন বানচাল করে একদলীয় বাকশালী শাসন কায়েমের পদধ্বনি শোনা যাচ্ছে।

বিবৃতিতে জামায়াতে ইসলামীকে ধ্বংস করার জন্য সরকারের নানামুখী ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে শনিবারের দেশব্যাপী তাদের বিক্ষোভ কর্মসূচি সফল করার আহ্বান জানায় দলটি।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট