Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

রোদ-মেঘের খেলায় মত্ত নিলয় শখ

 বর্ষার এ মওসুমের মেঘলা আকাশ যেমন করে বৃষ্টির নিশ্চয়তা দেয় না, ঠিক তেমনি নিলয়-শখের নিশ্চল হাসিমাখা মুখাবয়ব দেখেও বলা যাবে না তাদের মাঝে মিল আছে নাকি নেই! শোবিজের সম্ভাবনাময় এ দুই তারকা একে অপরের প্রেমে পড়ার গল্প বেশ পুরনো। দু’জনার মধ্যে এই প্রেমের ভাঙাগড়া কেন্দ্রিক রোদ-মেঘের খেলাও এখন আর কারোরই অজানা নয়। শখ তো বেশ ক’বার নিলয়ের বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগও তুলেছেন। বলেছেন, নিলয়ের সঙ্গে আর নয়। অনেক হয়েছে। এর দু’দিন বাদেই সেই অকাট্য অভিযোগ মুছে গেল। দু’জনেই হাস্যোজ্জ্বল হয়ে নব উদ্যমে মিডিয়ায় কাজ শুরু করলেন। ঠিক একই চিত্রনাট্যে গেল দুই বছরে বহুবার অভিনয় করতে দেখা গেছে গ্ল্যামার অঙ্গনের অন্যতম মিষ্টি এই প্রেমিক জুটিকে। অভিযোগ রয়েছে, শুধু এই প্রেম কেন্দ্রিক দু’জনার ধারাবাহিক ছেলেমানুষির কারণেই বাংলালিংকের নতুন বিজ্ঞাপনেও এখন আর এ দু’জনকে জুটি হিসেবে দেখা যাচ্ছে না। এদিকে নিলয়-শখের এমন ধারাবাহিক মান-অভিমানের বিষয়টিকে স্রেফ ছেলেমানুষি বলেই অভিহিত করছেন কাছের মানুষরা। আবার অনেক কাছের মানুষ বলছেন ভিন্নকথা। শখ-নিলয় কেবল ভালবাসাতেই আর অবদ্ধ নেই। দু’জন এখন ভাঙা-গড়ার খেলায় মেতেছেন! যার কারণে দু’জনকে কিছু সময় দেখা যায় খুব রোমান্টিক জুটি হিসেবে। আর কিছু সময় দেখা যায় সাপ-নেউলে সম্পর্কে। অন্যদিকে তাদের এই প্রেম কেন্দ্রিক রোদ-মেঘের খেলায় নিয়মিত খেসারত দিতে হচ্ছে নাটক, বিজ্ঞাপন এমনকি চলচ্চিত্র নির্মাতা-প্রযোজকদের। বিশেষ করে গেল এক বছর ধরে মাসে অন্তত একবার করে দু’জনার মধ্যে সম্পর্ক ভাঙছে আর জোড়া লাগছে নিয়মিত। মজার বিষয় হলো, প্রতিবারই শেষবারের মতো সম্পর্ক শেষ হয়। আবার প্রতিবারই সব বিভেদ ভুলে সুন্দর আগামী গড়ার লক্ষ্যে দু’জনের মিলন ঘটে। যার ফলে গেল এক বছর ধরে অসংখ্য নাটক-বিজ্ঞাপন এবং চলচ্চিত্র নির্মাতা বিপদে পড়েছেন এ জুটিকে নিয়ে কাজ করতে গিয়ে। এর মধ্যে উদাহরণ হিসেবে চলে আসে অনেক নাম। তবে মিডিয়ায় এখন সবচেয়ে বড় উদাহরণ হিসেবে সবার কাছে চলে আসে জনপ্রিয় বিজ্ঞাপন নির্মাতা সানিয়াত হোসেনের প্রথম চলচ্চিত্র ‘অল্প অল্প প্রেমের গল্প’ এবং এশিয়ান টিভিতে প্রচার চলতি জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ভালোবাসার কাহিনী’র নাম। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, নিলয়-শখকে জুটি করে নির্মাণাধীন বড় বাজেটের চলচ্চিত্র ‘অল্প অল্প প্রেমের গল্প’ গেল প্রায় তিন বছর ধরে শুটিং করেও নির্মাতা শেষ করতে পারেননি এখনও। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আর মাত্র দু’দিনের শুটিং করলেই শেষ হবে অনেক আলোচিত এ চলচ্চিত্রটি। অথচ নিলয়-শখের রোদ-মেঘ খেলা কেন্দ্রিক মান-অভিমানের ধারাবাহিক তোপের মুখে পড়ে এই চলচ্চিত্রটি গেল এক বছর ধরে শেষ হয়েও হচ্ছে না শেষ। তবে পুরো শুটিং-ডাবিং শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত এ বিষয়ে নির্মাতা পক্ষ মুখ খুলতে নারাজ। এদিকে এর চেয়ে করুণ অবস্থায় পড়তে হয়েছে এশিয়ান টিভি কর্তৃপক্ষকে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, তাদের প্রচার চলতি জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ভালোবাসার কাহিনী’র পুরোটাই নির্মিত হচ্ছে নিলয়-শখ জুটিকে ভিত্তি করে। অথচ এই দু’জনের প্রেম কেন্দ্রিক ভাঙা-গড়ার খেলায় পড়ে এ পর্যন্ত অন্তত ২০-২৫ বার বিপাকে পড়তে হয়েছে নির্মাতাপক্ষকে। যার ফলে শিগগিরই ধারাবাহিকটি শেষ করে দেয়ার পরিকল্পনাও করছে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। এদিকে জানা গেছে, টিভিপর্দায় বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠা এই জুটিকে নিয়ে আসছে ঈদে উল্লেখযোগ্য কোন নাটক-টেলিফিল্ম নির্মাণ হচ্ছে না। কারণ, সবার একটাই ভয়, একদিন শুটিং করে যদি দু’জনের মধ্যে আবার ঝগড়া লাগে তবে তো পুরো শুটিংই বাতিল করতে হবে। সব মিলিয়ে অনেক নির্মাতার ভাষ্য, এ রোমান্টিক জুটিকে নিয়ে এখন কাজ করা মানে টাকা দিয়ে আতঙ্ক কিনে আনা। যার ফলে ক্রমশই মিডিয়া থেকে ছিটকে পড়ছেন উদীয়মান দুই প্রেমিক তারকা। এদিকে সর্বশেষ জানা যায়, নিলয়-শখ প্রায় ২০ দিনের মান-অভিমান ভেঙে গেল সপ্তাহে আবার মিলেছেন। তবে এই মিল আবার কখন অমিল হয়ে বসে সেটাই দেখার বিষয়। যদিও দু’জনার হাতে যৌথ কাজের সংখ্যা এখন নিতান্তই অনুল্লেখযোগ্য। উল্লেখ্য, এসব মান-অভিমানের বিষয়ে বরাবরই নিলয় চুপ থেকেছেন গণমাধ্যমে। অন্যদিকে বরাবরই নিলয়ের বিরুদ্ধে নানা ন্যক্কারজনক অভিযোগ করে আসছেন শখ। শুধু তাই নয়, অন্য নায়িকাদের সঙ্গে অভিনয় করতেও বাধা হিসেবে বরাবরই সামনে ছিলেন প্রেমিকা শখ। আর এসব মিলিয়ে মিডিয়ায় প্রচলিত রয়েছে, অতি সম্ভাবনাময় মৃদুভাষী নিলয় এখন শখের খেলার পুতুল হিসেবে আটকে আছেন।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট