Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

কানাডায় বিমানবন্দরে হেনস্থার শিকার ঋতুপর্ণা

 বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় দুপুর সাডে ১২টায় কানাডার টরেন্টোর পিয়ারসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হেনস্থার শিকার হলেন ভারতের জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তা। টরন্টোয় নামার পর বিমানবন্দরেই প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা টানা জেরা করা হয় তাকে। ২০১৫ সাল পর্যন্ত ভিসা থাকা সত্ত্বেও বলা হয়, তার ভিসার মেয়াদ ফুরিয়ে গেছে। ব্যাগ খুলিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করা হয় জিনিসপত্র, কেড়ে নেয়া হয় মোবাইল। এমনকি অপমানিত ঋতুপর্ণা কেঁদে ফেললে তাকে মানসিক রোগীর তকমা দিয়ে হাসপাতালে পাঠানোর হুমকিও দেয়া হয়। শেষ পর্যন্ত তাকে কানাডায় ঢোকার অনুমতি দেয়া হলেও পুরো ঘটনায় অসন্তুষ্ট ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক কানাডা সরকারের কাছে কূটনৈতিক প্রতিবাদপত্র পাঠিয়েছে। ঋতুপর্ণা জানান, জেরা চলাকালীন তার স্বামী সঞ্জয় চক্রবর্তী সিঙ্গাপুর থেকে তাকে ফোন করেছিলেন। কিন্তু ফোন ধরতেই তার মোবাইল দুটি কেড়ে নেয়া হয়। এক অভিবাসন কর্মী বলেন, ফোনে কথা বলা যাবে না। লাইন কেটে যাওয়ার আগে একথা শুনে ফেলেন সঞ্জয়। তিনি সঙ্গে সঙ্গে কানাডায় ভারতীয় দূতাবাসে যোগাযোগ করেন। উত্তর আমেরিকার বঙ্গ সম্মেলনে যোগ দিতে টরেন্টো গেছেন ঋতুপর্ণা। ওই বঙ্গ সম্মেলনের চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হচ্ছে তার অভিনীত রেশমী মিত্রের ছবি ‘মুক্তি’ দিয়ে। ঋতুপর্ণার সঙ্গে ছিলেন তারা মাসি-শাশুড়ি ৮০ বছর বয়সী নীলিমা চট্টোপাধ্যায়। তিনি কানাডারই নাগরিক। উল্লেখ্য, ১১ বছর আগে টরেন্টোর এই বিমানবন্দরেই হেনস্থা হয়েছিলেন ভারতীয় অভিনেতা কমল হাসন। শাহরুখ খান ও ইরফান খানও একই ধরনের সমস্যার মুখে পড়েছেন মার্কিন বিমানবন্দরে। এবার শিকার হলেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তা।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট