Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

গাজীপুরে ভোটগ্রহণ চলছে

কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে চলছে দেশের সবচেয়ে বড় আয়তনের নবগঠিত গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। শনিবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া এই ভোটগ্রহণ বিরতিহীভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ৩৯২টি ভোটকেন্দ্রে মোট ১০ লাখ ২৬ হাজার ৯৩৮জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

ভোরে আষাঢ়ের গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি থাকলেও এখন রোদ্র ঝলমল করছে। এর মাঝে টানটান উত্তেজনা, প্রচ- স্নায়ুচাপ, কঠোর নিরাপত্তা বেষ্টনী, উত্তপ্ত রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং আশঙ্কার মধ্যে দিয়ে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। সকাল থেকে প্রত্যেক কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। প্রতিটি লাইনে ২০০-৩০০ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের জন্য দাঁড়িয়েছেন।

এদিকে বাবা-মার কবর জিয়ারত করে সকাল সোয়া ৯টার দিকে নিজ কেন্দ্র লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলে ভোট দেন ১৪ দল সমর্থিত মেয়র প্রার্থী এডভোকেট আজমত উল্লা খান।

আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জাহাঙ্গীর ভোট দিয়েছেন তার ভোট কেন্দ্রে। তবে তিনি কাকে ভোট দিয়েছেন এ নিয়ে প্রশ্ন থেকেই গেছে।

সিটিভুক্ত এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। ত্রুটির কারণে প্রথমে সিদ্ধান্ত নিয়েও ভোটগ্রহণে ইলেক্ট্রিনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) ব্যবহার হচ্ছে না। এখন সারাদেশের মানুষের একটাই হিসেবে কে হচ্ছেন গাজীপুরের নগরপিতা? কারণ এই নির্বাচনের জয়-পরাজয়ের উপরই সরকারের প্রেস্টিজ এবং বিএনপির জন্য আন্দোলনের ইস্যু। তাই গাজীপুরের বিজয় ঘরে পেতে চায় সরকার। এ জন্য সরকার সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে এই বিজয় আনতে।

এদিকে নিরাপত্তা বলয়ে ঢাকা পড়েছে পুরো সিটি করপোরেশন এলাকা। গাজীপুরের রিটার্নিং অফিসার মতিয়ার রহমান বলেন, সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের লক্ষ্যে ইতোমধ্যেই সেখানে মোতায়েন করা হয়েছে প্রায় ১৫ হাজার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য।

গাজীপুর ও টঙ্গী মিলে এই সিটিতে মোট ভোটার হলো ১০ লাখ ২৬ হাজার ৯৩৮ জন। ৩৯২টি ভোটকেন্দ্রে ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ লাখ ২৭ হাজার ৭৭৭ জন ও নারী ভোটার ৪ লাখ ৯৯ হাজার ১৬২ জন। এখানে জযদেবপুরে ৭ লাখ ৬৪০ জন এবং টঙ্গীতে ৩ লাখ ২৬ হাজার ২৯৮ জন ভোটার। এই নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৭ জন প্রার্থী।

এ ছাড়াও ৩৩০ বর্গকিলো মিটারের এই সিটিতে ৫৭টি ওয়ার্ডের জন্য সাধারণ ৪৫৬ জন ও ১৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১২৮ জন কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

প্রসঙ্গত, ৬ জুলাই ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করে গত ২২ মে এ সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট