Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

‘গাজীপুর সিটি নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করছেন প্রধানমন্ত্রী’

প্রধানমন্ত্রী গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ার। মঙ্গলবার সকালে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এই অভিযোগ করেন।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ারের নেতৃত্বে দুই সদস্যের প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে আসেন এবং প্রায় একঘণ্টা প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের সঙ্গে কথা বলেন।

তিনি গাজীপুর সিটি নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবি জানান। এ সময় বিএনপির দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী উপস্থিত ছিলেন।

এম কে আনোয়ার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রশ্ন ছুড়ে বলেন, আপনারা বলুন নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করলে ক্ষতি কার। আমরাতো বুঝি না কমিশন বা জাতির কী ক্ষতি হবে।

তিনি বলেন, আমরা আওয়ামী লীগকে বিশ্বাস করি না। আপনারা যারা ৭৩ সালের নির্বাচন দেখেননি তারা ওই নির্বাচন সম্পর্কে জেনে নেবেন। আওয়ামী লীগ কখনো ওয়াদা রক্ষা করে না। তারা জনগণের সঙ্গে ভাওতাবাজি করে।

আনোয়ার বলেন, গাজীপুরে প্রায় ৪০০ দলীয় নেতাকে প্রিসাইডিং অফিসার হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া ডিসি, এসপি ও ওসি সরকারের নির্দেশে কাজ করছে। আমরা তাদের তালিকা কমিশনকে দিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী এই নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী একজন প্রার্থীর কাছে লোক পাঠিয়ে তাকে তার নির্বাচনে নিষ্ক্রীয় থাকতে বাধ্য করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একটি সেল গঠন করে গাজীপুর নির্বাচন নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে বলে আমরা জানতে পেরেছি।

এ ছাড়া কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ শেষে কাউন্সিলরের আগে মেয়র প্রার্থীর ভোট গণনার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, যদি কাউন্সিলরের ভোট আগে গণনা করা হয় তাহলে মেয়র প্রার্থীর ভোট গণনায় কারচুপির আশঙ্কা থাকে।

আচরণবিধি লঙ্ঘনে কমিশন কঠোর হতে পারছে না বলে দাবি করে তিনি বলেন, সোমবার একজন কাউন্সিলর প্রার্থী টাকা বিতরণ করতে গিয়ে হাতে-নাতে ধরা পড়েছেন। তাই সুষ্ঠু নির্বাচন করার স্বার্থে সেনা মোতায়েন জরুরি।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট