Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোলের প্রয়োজন নেই : সুরঞ্জিত

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য ও দপ্তরবিহীন মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছেন, তারেক রহমানকে গ্রেফতারের জন্য আদালত নির্দেশ দিয়েছেন। তাকে ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোলের প্রয়োজন নেই। তিনি এদেশেরই ছেলে। তাকে দেশে এসেই রাজনীতি করতে হবে। তাই আপনি দেশে চলে আসুন। আইনি সমস্যা থাকলে তাকে আইনের মাধ্যমেই সমাধান করতে হবে।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে দেশরত্ন পরিষদ আয়োজিত ‘মুজিব বাহিনীর অন্যতম সংগঠক ও সাবেক এমপি মরহুম ইলিয়াছ আহমেদ চৌধুরীর স্মরণসভা ও ‘১৮ দলের দেশবিরোধী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছেন, তারেক রহমানকে নিয়ে আলোচনা করা আমার রুচিহীন মনে হয়। কেননা আমি যুদ্ধ করেছি তার বাবার সাথে আর রাজনীতি করেছি তার মায়ের সাথে।

সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বিএনপিকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, নন ইস্যুকে ইস্যু করবেন না। তারেক জিয়া এ দেশে কোনো ইস্যু নয়। ইস্যু হলো হাওয়া ভবনের দুর্নীতি। এই দুঃসহ স্মৃতি থেকে মানুষ মুক্ত হতে চায়।

নির্বাচন কমিশনের অধীনেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে বলে জানিয়ে তিনি বলেন, আগামীতে অন্তর্বর্তী সরকার কিংবা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে না। নির্বাচন হবে একটি সক্রিয় ও শক্তিশালী নির্বাচন কমিশনের অধীনে। নির্বাচনকালীন সরকার মুখ্য হবে না। জাতীয় সংলাপের মাধ্যমেই সাংবিধানিক কাঠমো অনুযায়ী আগামী নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

বিরোধী দলকে সংসদে আসার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, সাংবিধানিক কাঠামোর মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পথ খুঁজে বের করুন। সাংবিধানিক কাঠামোর মধ্যে প্রস্তাব দিলে সংসদে এটা নিয়ে ভোটাভুটি হবে না। সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা কোনো বিষয় হবে না। সংসদে আলোচনা হবে ভোট হবে না। সাংবিধানিক কাঠামোর মাধ্যমেই সুষ্ঠু নির্বাচন করা সম্ভব।

তিনি বলেন, ১৮ দল বুঝেছে একটি নির্বাচিত সরকারের পতন রাজপথে আন্দোলন করে হয় না। তারা বুঝেছে রাজপথে আন্দোলন করে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করা যায় না। হেফাজত ও জামায়াতকে নিয়ে আন্দোলন করলেই সরকার পতন করা যায় না। তাই সংসদে আসুন। আলোচনা করুন। রাজপথে আন্দোলন করে কোনো সমাধান হবে না।

সংগঠনটির সভাপতি সৈয়দা রাজিয়া মোস্তফার সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন হুমায়ুন কবির মিজি, আব্দুল হাই কানু, আসাদুজ্জামান দুর্জয়, আতিকুর রহমান খোকন প্রমুখ।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট