Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

৩০৪ লাশ উদ্ধার, ভেতর থেকে আসছে জীবিত মানুষের বাঁচার আকুতি

সাভারের ভবন ধসের তৃতীয় দিনেও অব্যহত রয়েছে উদ্ধার অভিযান। এ পর্যন্ত ৩০৪ টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ সকাল থেকে বেশ কয়েক দফায় মৃত ও জীবিত শ্রমিকদের উদ্ধার করা হয়েছে। দুপুর নাগাদ উদ্ধারকৃত ২৯৩ লাশের মধ্যে ২৫৬ টি লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ২৬টি অজ্ঞাত পরিচয় মৃতদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। উদ্ধারকৃত অবশিষ্ট লাশগুলো সাভার অধর চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে রয়েছে। ভবনের মধ্যে এখনও অনেক মানুষ আটকে রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এখনও হাসপাতাল ও সাভার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় নিখোঁজ শ্রমিকদের স্বজনরা ভিড় করে আছেন। উদ্ধারকাজে অংশ নেয়া সেনা বাহিনীর তথ্য অনুযায়ি এ পর্যন্ত ২৩৪৮ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। দুপুরের দিকে উদ্ধারকারী সেনা সদস্যরা জানিয়েছেন, নিচের দিকে একটি ফাঁকা স্থানে বেশ কিছু জীবিত মানুষের সন্ধান মিলেছে। তাদের উদ্ধারের জন্য সুড়ঙ্গ তৈরি করা হচ্ছে। বিকালের মধ্যে তাদের উদ্ধার করা সম্ভব হবে বলে উদ্ধারকারীরা আশা করছেন। এদিকে তৃতীয় দিনের মতো উদ্ধার পুলিশ-জনতা সংঘর্ষ: সাভারে ধসে যাওয়া ভবনের কাছে যেতে না দেওয়ায় নিহত ও আহতদের বিক্ষুব্ধ স্বজনদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। সকাল সাড়ে দশটার দিকে এ সংঘর্ষ শুরু হলেও কিছুক্ষণের মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। বিক্ষুব্ধ জনতা পুলিশের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। পুলিশ তাদের উপর পাল্টা টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে। জনতার ছোঁড়া ইটের আঘতে ফরিদ নামে র‌্যাব-২ এর একজন সদস্য আহত হয়েছেন। তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এক সেনা সদস্য জানান, রানা প্লাজার পূর্ব দিকে একটি স্লাব টেনে সরানোর জন্য একটি ক্রেন ও বুলডোজার নিয়ে যেতে চাইলে বিক্ষুব্ধ জনতা এতে বাধা দেয়। এ সময় তারা  উদ্ধার কর্মীদের লক্ষ্য করে ইট পাটকেল ছোঁড়ে। এদিকে পরিস্থিতি উসকে দেয়ার অভিযোগে আজাদ ও নূর আলী নামে দুইজনকে আটক করেছে সাভার থানা পুলিশ।

আটকে পড়া ২ পুলিশ উদ্ধার: ধসে পড়া ভবনের ভেতর উদ্ধারকাজে অংশ নিয়ে আটকে পড়া দুই শিল্প পুলিশকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। এএসআই মুকুল ও কনস্টেবল রফিক নামে ওই দুই জন গত বুধবার ভবনের মধ্যে আটকে পড়েন। আজ সকাল পৌনে ১০ টার দিকে তাদের উদ্ধার করা হয়। শনিবার সকাল সাড়ে ছয়টায় ওই দুই পুলিশ জীবিত আছেন বলে জানা যায়। সঙ্গে সঙ্গে তাদের উদ্ধারে অভিযান শুরু হয়। এর কিছুক্ষণ পরই উদ্ধারকারীরা আরও ৪২ জনকে জীবিত উদ্ধারে সক্ষম হন।

নিখোঁজের তালিকায় ৫০০ জনের নাম: সাভার থানায় ‘সন্ধান চাই’ নামে একটি তালিকা করা হয়েছে। আজ দুপুর পর্যন্ত ওই তালিকায় ৫০০ জনের বেশি নিখোঁজ মানুষের নাম লেখা হয়েছে। সাভার অধর চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের মাছে ওই তালিকা লেখা হচ্ছে। নিখোঁজ ব্যাক্তিদের স্বজনরা ওই তালিকায় নাম ঠিকানা লিখে যাচ্ছেন। এই কাজে সাভার থানায় সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মেজবাহ উদ্দীন রয়েছেন।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট