Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সোশ্যাল মিডিয়ার মন্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশে অনুমতি লাগবে

ঢাকা: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক-ব্লগ ইত্যাদিতে কোনো ব্যক্তির করা মন্তব্য বা লেখা অনুমতি ছাড়া গণমাধ্যমে প্রকাশ করা যাবে না। সোশ্যাল মিডিয়ায় ধর্ম সম্পর্কে কটূক্তি পর্যবেক্ষণে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে গঠিত বিশেষ কমিটির সভাপতি ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাঈনুদ্দিন খন্দকার বুধবার সাংবাদিকদের এ কথা জানান।
তিনি বলেন, “এখন থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (সোশ্যাল মিডিয়া) কারো করা স্ট্যাটাস ও মন্তব্য বা এ ধরনের কোনো কিছু গণমাধ্যমে প্রকাশ করার আগে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির অনুমতি নিতে হবে।”
বুধবার সচিবালয়ে কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন মাঈনুদ্দিন খন্দকার।  নয় সদস্যের ওই কমিটি গঠিত হয় গত ১৩ মার্চ।
মাইন উদ্দিন খন্দকার সাংবাদিকদের জানান, ‘বাঁশের কেল্লা’ ও ‘নূরানী চাঁপা সমগ্র’ মনিটরিং করার জন্য দেশীয় প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আর বিদেশী প্রতিষ্ঠানের কাছে জঙ্গিবাদের উস্কানিদাতা হিসেবে উল্লেখ করে চিঠি পাঠানো হয়েছে।”
তিনি বলেন, “ব্লগে মন্তব্য করার বিষয়টি নতুন, হঠাৎ করে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া ঠিক হবে না। একজনের ব্লগে অন্য কেউ ঢুকে মন্তব্য করতে পারে।”
আমার দেশের প্রকাশনা বন্ধ নিয়ে পূর্বে আদালতের স্থগিতাদেশ রয়েছে। এ মামলাটি উচ্চ আদালতে চলছে। এ কারণে এবিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া যাচ্ছে না বলেও জানান তিনি।
সরকারি হিসাবে, বর্তমানে বাংলাদেশে প্রায় আড়াই লাখ ব্লগার ও ৪৮টি ব্লগসাইট রয়েছে। বাংলাদেশে বর্তমানে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট রয়েছে ৩২ লাখের বেশি।
উল্লেখ্য, সম্প্রতি ফেসবুক ও বিভিন্ন ব্লগে ইসলাম ও মহানবী সা. সম্পর্কে কটূক্তির অভিযোগ পাওয়া যায়। এসব কটূক্তির খবর প্রকাশিত হয় বিভিন্ন মিডিয়ায়। হেফাজতে ইসলামসহ বিভিন্ন ধর্মীয় সংগঠয়ন এর প্রতিবাদে নানা কর্মসূচি পালন করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কটূক্তিকারীদের শনাক্তে এই কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সুপারিশে ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন ব্লগারকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।
Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট