Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

‘ষড়যন্ত্র: হেফাজত নিয়েছে ৪৫ কোটি টাকা’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, হেফাজতে ইসলামের আন্দোলনের নামে নতুন ষড়যন্ত্র শুরু করেছে বিরোধী দল। কোটি কোটি টাকা দিয়ে হেফাজতকে মাঠে নামিয়েছে। জেলখানায় যুদ্ধাপরাধী আব্দুল আলীমকে হত্যাসহ ৫০ জন মাদ্রাসার ছাত্রকে হত্যার ষড়যন্ত্র করেছিল তারা। আজ দুপুরে বিরোধী দলের হরতাল ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে জাতীয় শ্রমিক লীগের এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। একটি জাতীয় দৈনিকের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রের জন্য ৮০ থেকে ৮৫ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে। শুধুমাত্র হেফাজতে ইসলামই নিয়েছে ৪৫ কোটি টাকা। টাকার ভাগ বাটোয়ারা হয়েছে আমার দেশ পত্রিকার অফিসে বসে। আমার দেশের সম্পাদক মাহমুদুর রহমানও ৪ কোটি টাকা নিয়েছেন।
বিরোধী দলীয় নেত্রীকে উদেশ্য করে হানিফ বলেন, আপনি কি করে এই ষড়যন্ত্রে পা দিলেন। রক্ত পিপাসু ডাইনির মতো আরও লাশ পড়বে বলেছিলেন। তিনি সবার উদ্দেশ্যে বলেন, খালেদা জিয়া দেশকে ব্যর্থ করে দিয়ে বিদেশী শক্তির সহায়তায় ক্ষমতায় আসতে চান। এ কারণেই একটার পর একটা ষড়যন্ত্র করছেন। তার নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট ৩৬ ঘণ্টার হরতাল দিয়েছে। কি কারণে হরতাল দিয়েছেন তার কোন ব্যাখ্যা নেই। দেশকে ব্যর্থ করাই তার লক্ষ্য। জনগণ এই হরতাল প্রত্যাখ্যান করছে। রাস্তায় গাড়ী চলছে। ব্যাক্তিগত প্রাইভেট কার কম চলছে। তার নির্দেশে সন্ত্রাসী বাহিনী যদি গাড়ীতে আগুন না দিতো তাহলে প্রাইভেট কারও রাস্তায় বের হতো।
তিনি বলেন, খালেদা জিয়া যখন ক্ষমতায় ছিলেন তখন সারাদেশে ২৬ হাজার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছে। জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে পাঁচ বছরে দেশকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদী রাষ্ট্রে পরিণত করেছিলেন। এখন ক্ষমতায় আসার জন্য জনগণের প্রতি তার কোন আস্থা নেই। কারণ জনগণ তাকে প্রত্যাখ্যান করেছে। তাই তিনি, বিদেশী পত্রিকায় আর্টিকেল লিখে গার্মেন্টস শিল্পে জিএসপি সুবিধা বন্ধের জন্য বিদেশীদের আহবান জানিয়েছেন। খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে হানিফ বলেন, জামায়াতের তাণ্ডবে উস্কানি দিয়ে একশরও বেশি মানুষের প্রাণহানি ঘটিয়েছেন। এর দায়ভার জনগণ আপনার উপর চাপাবে। এর জন্য আপনাকে কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে। সেনাবাহিনীকে আহ্বান করেছেন। কিন্তু দেশের সেনাবাহিনীর সদস্যরা আপনার সবকিছু জানেন। তাই তারা আপনার আহ্বানে সাড়া দেন নি। এখন আপনি হেফাজতে ইসলামের মাধ্যমে নতুন ষড়যন্ত্র করছেন। বাংলাদেশকে তালেবানি রাষ্ট্র বানানোর ষড়যন্ত্র করছেন। বাংলার মানুষ এই ষড়যন্ত্র মেনে নেবে না। দলমত নির্বিশেষে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সবাইকে এক্যবদ্ধ হয়ে এই ষড়যন্ত্র প্রতিহত করার আহবান জানান তিনি। শ্রমিক লীগের সভাপতি শুক্কুর মাহমুদের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, শ্রমিক নেতা ফজলুল হক মন্টু, সিরাজুল ইসলাম, আব্দুস সালাম, হাবিবুর রহমান, রওশন জাহান সাথী, শামসুন্নাহার বেগম প্রমুখ।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট