Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

বালাগঞ্জে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় পিতা পুত্রসহ নিহত ৬

সিলেট অফিস: বালাগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় পিতা-পুত্রসহ নিহত হয়েছে ৬ জন। দুর্ঘটনায় সিএনজি চালিত অটোরিকশাটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। নিহতদের সবার বাড়ি ঘটনাস্থলের আশপাশ এলাকায়। এ কারণে এক পর্যায়ে ক্ষুব্ধ মানুষ সড়ক অবরোধ করে। প্রায় এক ঘণ্টা বালাগঞ্জ-তাজপুর সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। দুর্ঘটনায় নিহতরা হচ্ছেন, বালাগঞ্জের ইলাশপুর গ্রামের সোহরাব আলীর ছেলে আবদুল কালাম (২৫), কোয়ারগাঁও গ্রামের আরিশ আলীর ছেলে আবদুল হান্নান (৩৮), বঙ্গপুর গ্রামের আলা উদ্দিনের ছেলে তফাজ্জুল হোসেন (২৬), ওসমানীনগরের পশ্চিম পাঁচপাড়া গ্রামের শফিক মিয়ার ছেলে নজরুল ইসলাম (২০), বড় দিরারাই গ্রামের ছৈদ মিয়ার ছেলে নেওর মিয়া (৪০) ও তার ছেলে জাবেদ মিয়া (১২)। তারা সবাই অটোরিকশার যাত্রী। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, বালাগঞ্জের ছোট রাজাপুর নামক স্থানে বালাগঞ্জগামী একটি যাত্রীবাহী অটোরিকশাকে (সিলেট থ-১১-৩০৯০) বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাক (ঝিনাইদেহ ট-১১-০৬৩৩) চাঁপা দিলে অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুষড়ে যায়। এ সময় অটোরিকশায় থাকা যাত্রী আবদুল কালাম, আবদুল হান্নান, তফাজ্জুল হোসেন, নেওর মিয়া, জাবেদ মিয়া ও চালক নজরুল ইসলাম ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, তারা বিকট আওয়াজ পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। এ সময় সিএনজি অটোরিকশাটি একেবারে মুষড়ে যাওয়ায় ভেতরে থাকা যাত্রীদের তাৎক্ষণিক উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। দুর্ঘটনার পরপরই অটোরিকশার ভেতর থেকেই কেউ বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার করছিল। আবার কেউ পানি চাইছিল। কিন্তু ঘটনার আকস্মিকতায় তাদের অটোরিকশা থেকে বের করা সম্ভব হয়নি। এদিকে দুর্ঘটনার পরপরই ঘাতক ট্রাক নিয়ে চালক পালাতে থাকে। এ সময় স্থানীয় লোকজন পেছনে ধাওয়া করে ট্রাকটি আটক করতে পারলেও চালক পালিয়েছে। খবর পেয়ে বালাগঞ্জ থানা পুলিশ সেখানে ছুটে যায়। পুলিশ সিএনজি’র ভেতরে থাকা মৃতদেহগুলো উদ্ধার করে রাস্তার পাশে সারি সারি করে রাখে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় লাশগুলো উদ্ধার করে। প্রায় এক ঘণ্টা ঘটনাস্থলে রাখার পর বেলা আড়াইটার দিকে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী তাজপুর-সিলেট সড়ক অবরোধ করে রাখে। প্রায় এক ঘণ্টা সড়ক অবরোধের পর স্থানীয় উপজেলা চেয়ারম্যানসহ জনপ্রতিনিধিরা সেখানে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ সময় দীর্ঘ যানজট দেখা দেয়। প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন বলেন, হঠাৎ বিকট শব্দ শুনে রাস্তার দিকে তাকিয়ে দেখি বালাগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা দ্রুত গতির একটি ট্রাক বিপরীত দিক থেকে আসা যাত্রীবাহী অটোরিকশাকে মুখোমুখি চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি চালকসহ সবাই প্রাণহীন। পরে ধাওয়া করে ট্রাকটিকে আটক করতে পারলেও চালক পালিয়েছে। বালাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবদুছ ছালেক মানবজমিনকে জানিয়েছেন, লাশগুলো ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। ট্রাক আটক করা হয়েছে এবং এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। বালাগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান বলেন, বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীকে সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করা সম্ভব হয়। এদিকে দুর্ঘটনার খবর খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। এ সময় নিহতদের আত্মীয়-স্বজনরা সেখানে এসে কান্নায় ভেঙে পড়েন। তাদের কান্না ও মাতমে পুরো এলাকায় বিরাজ করছে শোকাতুর পরিবেশ। স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, রাস্তা ছোটো হওয়ার কারণে প্রায়ই এ সড়কে দুর্ঘটনা ঘটে।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


3 Responses to বালাগঞ্জে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় পিতা পুত্রসহ নিহত ৬

  1. sikiş izle

    March 13, 2012 at 11:58 am

    you will be really amount a single admin your blogging is wonderful i constantly verify your website i’m sure you will likely be the perfect

  2. amcik

    March 14, 2012 at 7:33 am

    I used to be curious about your next article admin genuinely essential this blog site super astounding web site

  3. smackdown oyunları

    March 14, 2012 at 3:30 pm

    Greetings thanks for great post i was seeking for this issue previous two days and nights. I’ll look for up coming precious posts. Have entertaining admin.