Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

জামায়াত নিষিদ্ধের বিষয়ে মন্ত্রীদের কথা না বলার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ঢাকা: জামায়াত ইসলামীকে নিষিদ্ধ করার বিষয়ে সরকারের মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীদের কথা না বলার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, “বিচারাধীন বিষয়ে বক্তব্য দিয়ে উসকানিদাতাদের সাহায্য করা যাবে না।”

সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ নির্দেশ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, “জামায়াতে ইসলামীকে নিষিদ্ধ করার বিষয়ে হাইকোর্টে একটি রিট রয়েছে। তাই আদালত এ বিষয়ে যে সিদ্ধান্ত দেবেন সেটাই চূড়ান্ত। আদালত যদি বলেন এ দলকে নিষিদ্ধ করতে, আমরা করব। না বললে করতে পারব না। কিন্তু বিচারাধীন এসব বিষয়ে কথা বলে কেউ পরিস্থিতি অবনতি করবেন না।”

সরকারও জামায়াতে ইসলামীকে নিষিদ্ধ করার কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি বলেও তিনি জানান। এসব বিষয়ে আবেগকে বশে রেখে শান্ত হয়ে পরিস্থিতি মোকাবেলার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

বৈঠকে আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ও তথ্য মন্ত্রী হাসানুল হককে ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বিচারাধীন এ বিষয়ে অনেক মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর দেয়া বক্তব্য নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। কেউ কেউ বলছেন, এ দলকে তিনদিনের মধ্যে নিষিদ্ধ করা হবে, তিন মাসের মধ্যে নিষিদ্ধ করা হবে।”

তিনি বলেন, “এ ধরনের কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত সরকার নেয়নি।”

মন্ত্রিসভার সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, “আপনাদের এ ধরনের বক্তব্য ওরা কাজে লাগাচ্ছে। দয়া করে এমন বক্তব্য দিয়ে উসকানিদাতাদের সাহায্য করবেন না।”

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকে উসকানিদাতা হিসেবে আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া যারা ধর্মীয় অনুভূতিকে কাজে লাগিয়ে পরিস্থিতি সংকটের দিকে নেয়ার চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধেও একই ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন তিনি।

বৈঠকে ‘আমার দেশ, সংগ্রাম ও ইনকিলাব পত্রিকায় মিথ্যা সংবাদ পরিবেশনের জন্য’ কেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না তা জানতে চাওয়া হয়।

মন্ত্রিসভার সদস্যরা বলেন, অনেক সময় মিথ্যা সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে প্রতিবাদ দেয়া হলেও তা ছাপা হয় না।

এ সময়ে তথ্যমন্ত্রী জানান, যে আইন রয়েছে তাতে এ ব্যব্থা নেয়ার বিষয়টি পঅপ্রতুল। এ সময় প্রধানমন্ত্রী তথ্যমন্ত্রীকে প্রেস কাউন্সিল আইনকে আরো যুগোপযোগী করার নির্দেশ দেন।

বৈঠকে যার যার এলাকায় মসজিদে মসজিদে গণসংযোগ করে পুরো বিষয়টি তুলে ধরতেও মানবতাবিরোধী অপরারাধীদের বিচারের ব্যাপারে কথা কলতে মন্ত্রিসভার সদস্যদের নির্দেশ দেয়া হয়। এছাড়া ধর্মীয় দলগুলোর সঙ্গে আলাপ-আলোচনার জন্য পরিবেশ ও বনমন্ত্রীকে  হাছান মাহমুদকে নির্দেশ দেয়া হয়।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট