Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

ভাষা শহীদদের প্রতি জাতির শ্রদ্ধা নিবেদন

ঢাকা, ২১ ফেব্রুয়ারি : আজ মহান ২১ শে ফেব্রুয়ারি। জাতি ভাষা শহীদের শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছে। একুশের প্রথম প্রহরে জাতির পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে মহান ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন।

রাত ১২টা ১টি মিনিটে প্রথমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রথা অনুসারে জাতির পক্ষ থেকে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী একুশের প্রথম প্রহরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এলাকায় অবস্থিত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক ‍অর্পণ করে শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। কিন্তু এবার রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমান শহীদ মিনারে অনুপস্থিত ছিলেন। রাষ্ট্রপতির অনুপস্থিতির কারণ জানা যায়নি।

নীরবতা পালন শেষে প্রধানমন্ত্রী শহীদ মিনারে বাংলা ফন্ট ‘আমার বর্ণমালা’ উদ্বোধন করেন। সরকারি উদ্যোগে ডিজিটাল মাধ্যমে বানানের স্বকীয়তা ও এককরূপ প্রতিষ্ঠায় এবং প্রমিত বানানরীতি সর্বত্র চালু করতে ‘আমার বর্ণমালা’ শীর্ষক ইউনিকোডের ফন্ট তৈরি করা হয়েছে।

শেখ হাসিনা এরপর মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদের নিয়ে এবং তারপর আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে শহীদ মিনারের বেদীতে ফুল দেন।

প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার মধ্য দিয়ে শুরু হয় একুশে ফেব্রুয়ারির আনুষ্ঠানিকতা। ১২টা ৮ মিনিটে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ত্যাগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর পর জাতীয় সংসদের স্পিকার আব্দুল হামিদ অ্যাডভোকেট ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এসময় স্পিকারের সঙ্গে ছিলেন সংসদের ডেপুটি স্পিকার, চিফ হুইপ ও অন্যান্য হুইপরা।

এর পরে একে একে তিন বাহিনীর প্রধান, পুলিশের মহাপরিদর্শক, বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকবৃন্দ, পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, গণপূর্তমন্ত্রী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি), বিরোধী দলীয় নেত্রী ও বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে দলের নেতৃবৃন্দ, সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম, বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা, গণসংহতি আন্দোলন, বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ছাত্রদল, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন, ছাত্র ইউনিয়নসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সহযোগী সংগঠন, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ছাত্র, যুব, শ্রমিক, কৃষক সংগঠনের নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষ একে একে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানান।

১২ টা ৫০ মিনিটে সর্বসাধারণের জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করার জন্য খুলে দেওয়া হয়।
এরই মধ্যে কলকাতা থেকে আসা ফুটবল লাভারস অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা ভাষা শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
মহান একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানুষের ঢল নেমেছে।