Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

বরিশালের টানা দ্বিতীয় জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার: গেইল শুরু করেছিলেন গতকালও। তবে প্রথম ম্যাচের এ সেঞ্চুরিয়ানকে অল্পতেই থামাতে পেরেছিলেন স্বদেশী মারলন স্যামুয়েলস। কিন্তু তারপরও জয়ের টার্গেটটা ছোট থাকেনি দুরন্ত রাজশাহীর সামনে। এ কৃতিত্ব পাক ওপেনার আহমেদ শেহজাদের। টস জিতে আগে ব্যাট করে বরিশাল বার্নার্স তাদের ২০ ওভারে গেইল ও শেহজাদকে হারিয়ে সংগ্রহ করে ১৮০ রান। ম্যাচশেষে রাজশাহীকে ২২ রানে হারিয়ে এ পুঁজি যথেষ্ট ছিল প্রমাণ করেন বার্নার্স তারকারা। ৯ উইকেটে ১৫৮ রানে শেষ রাজশাহীর ইনিংস। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৫ রান করেন এ ম্যাচে প্রথম সুযোগ পাওয়া  মিজানুর রহমান। গতকাল মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে (বিপিএল) টানা দ্বিতীয় জয় কুড়িয়েছে বরিশাল বার্নার্স। প্রথম ম্যাচে সিলেট রয়্যালসকে ১০ উইকেটে হারিয়েছিল তারা। আর গতকাল টানা দুই হার পূর্ণ করলো মুশফিকের দুরন্ত রাজশাহী। প্রথম ম্যাচে চট্টগ্রাম কিংসের কাছে হেরে বিপিএলে যাত্রা শুরু করে মুশফিকরা। স্বভাবসুলভ মারকুটে ব্যাটিংয়ে ২৩ বলে গেইল করেন ৩৯ রান। এতে ৪ বাউন্ডারি ও দুটি ছক্কার মার। তবে প্রথম ম্যাচে গেইলের ব্যাটের আলোয় চাপা পড়া পাক ওপেনার শেহজাদ তার ব্যাটে ঔজ্জ্বল্য ছড়ান এদিনও। ৪০ বলে ৬৭ রানের মারকুটে ইনিংসে ৪ বাউন্ডারির বিপরীতে তার ছক্কার মার ‘হাফ ডজন’। আর শেহজাদের তাণ্ডবও থামান তার স্বদেশী আব্দুল রাজ্জাক । বড় রান তাড়া করতে গিয়ে শুরুটা ভাল ছিল না রাজশাহীর। আগের ম্যাচে দলের সর্বোচ্চ ৪২ রান করা জাতীয় তারকা জুনাইদ সিদ্দিকী এদিন আউট মাত্র ৫ রান করে। বার্নার্সের তরুণ তারকা নাজমুল ইসলাম অপুর অলরাউন্ড নৈপুণ্যে পরপর উইকেট হারিয়ে রাজশাহীর চাপ বাড়ে ইনিংসের সপ্তম ওভারে। বাঁ-হাতি স্পিনার নাজমুলের উইকেটসোজা বলে পরিষ্কার বোল্ডআউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন রাজশাহীর সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় স্যামুয়েলস। দলের রান তখন ৪২। এক বল পর রানআউট অধিনায়ক মুশফিক। এবার নাজমুলের ফিল্ডিং ক্যারিশমায়। তবে তখনও ভরসা রাখার মতো রসদ ছিল রাজশাহী শিবিরে। ব্যাট হাতে নামেন মারকুটে পাক তারকা আবদুল রাজ্জাক। গেইলের প্রথম ওভারে এ ক্যারিবীয়কে পরপর বাউন্ডারি ও ওভারবাউন্ডারি মেরে ক্রিজে স্বাগতম জানান দেশের তরুণ ওপেনার মিজানুর রহমান। ১৪ রান তুলে নিয়ে সচল রাখেন দলীয় ইনিংস। কিন্তু আবার বাদ সাধেন নাজমুল ইসলাম। ১৯ বলে ২৭ রানে নাজমুলের স্পিনে ফিরে যান রাজ্জাক। এরপর রাজশাহীকে আর পথ দেননি শন হারউড। পরপর দুই বলে পাক তারকা ফাহাদ আলম ও মিজানুরের উইকেট তুলে নিয়ে তৈরি করেন হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা। আর এতে বিলীন হয় এ ম্যাচে রাজশাহীর বাকি সম্ভাবনা। বরিশালের বড় ইনিংসের বিপরীতে বল হাতে রান দেয়ায় মিতব্যয়ী ছিলেন স্যামুয়েলস-রাজ্জাক। ৪ ওভারের স্পেলে স্যামুয়েলস ২২ ও রাজ্জাক দেন  ২৭ রান। বাংলাদেশের সাবেক জাতীয় তারকা সৈয়দ রাসেল তার পেসে যুত খুঁজে পাননি এদিনও। ঘরোয়া ক্রিকেটের এক ম্যাচে তার নিষ্ফলা পেস বদলে স্পিন বোলিংয়ের কীর্তি দেখিয়েছিলেন রাসেল মাত্রই। নতুন বলে বেদিশা ছিলেন এদিনও। বরিশাল ওপেনারদের মারকুটে শুরুতে ৩ ওভারে ৩৩ রান দেন এ পেসার। তবে উদারতায় এদিন রাসেলকে ছাড়িয়ে গেছেন জিম্বাবুয়ে পেসার শন আরভিন। ৩ ওভারে আরভিন দিয়েছেন পুরো ৪০ রান। আর আরভিনের করা বরিশাল ইনিংসের ১৯তম ওভারে রান ওঠে ২১। অসি ব্রাড হজ দুইবার মাটি কামড়ে ও দুইবার হাওয়ায় ভাসিয়ে দড়ির বাইরে ফেলেন ওই ওভারে আরভিনকে।  হজ ২৫ বলে ৩৮ ও শাহরিয়ার নাফীস ৩২ বল খেলে ২৮ রানে অপরাজিত থাকেন।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


5 Responses to বরিশালের টানা দ্বিতীয় জয়

  1. sikiş izle

    March 13, 2012 at 2:13 am

    I required for this website article admin really thanks i will look your future sharings i bookmarked your blog site

  2. Genclik Platformu

    March 14, 2012 at 3:50 am

    I was seeking for this fantastic sharing admin considerably thanks and have nice blogging bye

  3. escort ilanlari

    March 14, 2012 at 4:43 am

    hey admin thanks for wonderful and effortless understandable submit i loved your webpage website genuinely significantly bookmarked also

  4. su arıtma cihazları

    March 14, 2012 at 10:59 am

    i bookmarked you in my browser admin thank you a lot i will probably be trying to find your future posts

  5. smackdown oyunları

    March 14, 2012 at 2:26 pm

    Hello admin excellent post very much thanks cherished this web site seriously significantly