Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সাগর-রুনি হত্যাকান্ড : সাংবাদিকদের মহাসমাবেশ ১১ ফেব্রুয়ারি

 ঢাকা, ২০ জানুয়ারি : সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যাকাণ্ডের তদন্তে নতুন করে সন্দেহভাজনদের কাছ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ডিএনএ পরীক্ষার জন্য শিগগিরই তা যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানো হবে বলে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) জানিয়েছে। এদিকে সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের বিচারের দাবিতে আজ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নির্ধারিত মহাসমাবেশ কর্মসূচি হচ্ছে না। আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি মহাসমাবেশ করবেন সাংবাদিকরা। বিশ্ব ইজতেমার জন্য আন্দোলনের তারিখ পেছানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি শাহেদ চৌধুরী। তিনি বলেন, মহাসমাবেশ থেকে বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।
র‌্যাব সূত্র জানায়, গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে যুক্তরাষ্ট্রের ল্যাব থেকে প্রতিবেদন আসে। ওই প্রতিবেদনে হত্যাকাণ্ডে দুই ব্যক্তির সম্পৃক্ততার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। ওই দুজনের ডিএনএর পূর্ণাঙ্গ প্রোফাইল পাওয়া গেছে। তাদের পরিচয় জানার চেষ্টা করছে র‌্যাব। সন্দেহভাজন ১৩ জনের কারো ডিএনএর সঙ্গেই ওই দুটি ডিএনএ প্রতিবেদনের মিল পাওয়া যায়নি। এ জন্য সন্দেহভাজনদের নতুন তালিকা তৈরি করেছে র‌্যাব। ওই তালিকায় থাকা কয়েকজনের মুখের লালা গত সপ্তাহে সংগ্রহ করা হয়েছে। শিগগিরই এসব নমুনা পরীক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের ইন্টেলিজেন্ট উইংয়ের প্রধান লেফটেন্যান্ট কর্নেল জিয়াউল আহসান। নতুন করে কাদের ও কতজনের নমুনা নেওয়া হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তদন্তের স্বার্থে সব কিছু বলা যাবে না। ডিএনএ পরীক্ষার জন্য নতুন করে আলামত পাঠানোর পাশাপাশি বিভিন্ন সোর্সের মাধ্যমে খুনিদের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে র‌্যাব।
গত বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি সাগর-রুনি খুন হন। এ হত্যার ঘটনায় খুনিদের গ্রেপ্তারের দাবিতে সাংবাদিকরা বিক্ষোভ, মানববন্ধন ও ঘেরাও কর্মসূচি পালন করছেন। এ ব্যাপারে সরকার সুষ্ঠু বিচারের প্রতিশ্রুতি দিলেও এখন পর্যন্ত আসল হত্যাকারীকে গ্রেপ্তার করতে পারেননি তদন্তসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।