Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে রোববার শেষ হচ্ছে দুই পর্বের বিশ্ব ইজতেমা

১৯ জানুয়ারি : লাখো মুসল্লির জিকির আজগার ও তাবলীগ মুরব্বীদের গুরুত্বপূর্ণ বয়ানের মধ্য দিয়ে ধর্মীয় ভাবগম্ভীর পরিবেশে শনিবার বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় ধাপের দ্বিতীয় দিন অতিবাহিত হচ্ছে।  রোববার পূর্বাহ্নে আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে বিশ্ব তাবলীগ জামাতের এবারের দুই পর্বের ৬ দিনের বিশ্ব ইজতেমা শেষ হচ্ছে। টঙ্গীর তুরাগ তীরের বর্তমান ময়দানে  স্থান সংকুলানের অভাবে গত বছর থেকে দুই ধাপে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। প্রথম ধাপের ইজতেমায়  বহিরাগত মুসল্লিদের অংশগ্রহণ ছিল জামাতবন্দি মুসল্লিদের চেয়ে অনেক বেশি । টঙ্গী ও আশপাশের এলাকায় প্রথম ধাপের ইজতেমার যে আমেজ বিরাজ করছিল দ্বিতীয় ধাপে সেই আমেজ আর নেই। বহিরাগত মুসল্লিদের কোলাহলমুক্ত দ্বিতীয় ধাপের ইজতেমায় তাবলিগ মুরব্বীদের বয়ান শুনতে মশগুল জামাতবন্দি মুসল্লিরা।
ইজতেমায় তাবলিগের শীর্ষ মুরব্বীরা দিনে ৪ বার তথা বাদ ফজর, জোহর, আসর ও বাদ মাগরিব আ’ম বয়ান (সব শ্রেণীর জন্য সার্বজনীন বয়ান) করে থাকেন। মাঝে মাঝে তাবলিগ মুরব্বীগণ বয়ান ও নামাজের মিম্বর থেকে বিশেষ শ্রেণীর তথা আলেম, সাধারণ শিক্ষিত, মাদ্রাসা ও স্কুল-কলেজের ছাত্র এবং বিদেশী মুসল্লীদের উদ্দেশ্যে খুসুসী বা খাস বয়ান (নির্দিষ্ট শ্রেণীর জন্য বয়ান) করেন। শনিবার দ্বিতীয় ধাপের দ্বিতীয় দিনের ইজতেমায় বাদ ফজর আ’ম বয়ান করেন, পাকিস্তানের মাওলানা জামিল, বাদ জোহর ভারতের মিয়াজী আজমত উল্লাহ, বাদ আসর ভারতের মাওলানা যোবায়েরুল হাসান এবং বাদ মাগরিব ভারতের মাওলানা আহমদ লাট। এছাড়া মাওলানা আহমদ লাট সকাল ১০ টায় বয়ানের মঞ্চ থেকে আলেমদের  উদ্দেশ্যে এবং পাকিস্তানের মাওলানা শওকত নামাজের মিম্বর থেকে  আরব ছাত্রদের উদ্দেশ্যে খাস বয়ান করেন। খাস বয়ানের শ্রোতারা নির্ধারিত সময়ের আগেই নির্ধারিত স্থানে অর্থাত নামাজ ও বয়ানের মিম্বরের সামনে গিয়ে সমবেত হন। তাবলিগ মুরব্বিদের আ’ম বয়ান সাথে সাথে বিভিন্ন ভাষা ভাষীদের জন্য তরজমা করে শুনানো হচ্ছে। মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে মুসল্লিরা তাবলিগ মুরব্বীদের গুরুত্বপূর্ণ এসব বয়ান শুনতে মশগুল রয়েছেন।
ইজতেমা ময়দানে তাবলিগ জামাতের মুরব্বীগণ সুবিশাল চটের প্যান্ডেলের নিচে অবস্থানরত দেশ-বিদেশের লাখ লাখ মুসল্লির উদ্দেশ্যে তাবলিগের ছয় উসূল (৬টি মৌলিক বিষয়) যথা-কালিমা (ইসলামের মৌলিক বিষয়গুলোর উপর বিশ্বাস স্থাপন), নামাজ, ইলম ও জিকির (দ্বীনি শিক্ষা ও সৃষ্টিকর্তা মহান আল্লাহকে সর্বক্ষণ স্মরণ করা), ইকরামুল মুসলিমিন (মুসলমানদের প্রতি সদাচারণ), তাসহিয়ে নিয়ত (শুদ্ধ নিয়ত) এবং তাবলিগ (দ্বীনের প্রচার) সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ বয়ান করেন। মুরুব্বীদের বয়ান চলাকালে ময়দানে পিনপতন নীরবতা নেমে আসে।
যৌতুক বিহীন গণবিবাহ সম্পন্ন : ইজতেমা ময়দানের মূল মঞ্চে শনিবার বাদ আসর কনের অভিভাবক ও বরের উপস্থিতিতে যৌতুক বিহীন গণবিবাহ পড়ানো হয়। বিবাহ শেষে মঞ্চে খেজুর ও মিষ্টি বিতরণ করা হয়। ইজতেমা শেষে বর ও কনের পিতা জামাতবন্দী হয়ে তিন চিল্লায় (১২০দিন) তাবলিগের কাজে বের হবেন। এসময়ের মধ্যে দাম্পত্য জীবন সম্পর্কে শরীয়তের বিধি-বিধান শিক্ষা লাভ করে সংসার জীবন শুরু করবেন বলে ইজতেমার বিবাহ সংক্রান্ত দায়িত্বশীল মুরুব্বীরা জানান।
ফ্রি চিকিতসা কেন্দ্রে পানি : ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের অনেকে আকষ্মিক বিভিন্ন  রোগে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘ লাইনে দাড়িয়ে ফ্রি চিকিতসা কেন্দ্রগুলোতে চিকিতসা নিচ্ছেন। টঙ্গী পৌর কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনায় ইজতেমা ময়দানের উত্তরপাশে নিউ মন্নু মিলের বাউন্ডারির ভেতর খালি জায়গায় ফি চিকিতসা কেন্দ্রগুলো চালু রয়েছে। চিকিতসা কেন্দ্রগুলোর সাথেই র‌্যাব, এনএসআই ও গাজীপুর জেলা প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণ কক্ষও অবস্থিত। সেখানে পানি নিষ্কাষণের কোন ব্যবস্থা না থাকায় ওজুর পানিতে ৮টি চিকিতসা কেন্দ্র তলিয়ে গেছে। ফলে ডা.এ.আর খান হোমিওপ্যাথি মেডিকেল সেন্টার, পাকিজা গ্রুপ, রেনেটা লি:, শহীদ মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও আয়ুর্বেদী ফার্মাসী (ঢাকা) লি:-সহ ৮টি ফ্রি চিকিতসা কেন্দ্র বন্ধ রয়েছে।
ইজতেমায় আরো ৫ মুসল্লির মৃত্যু : দ্বিতীয় ধাপের ইজতেমার দ্বিতীয় দিনে ৫ মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন বি-বাড়ীয়া জেলার কাজীপাড়ার আনোয়ার হোসেন (৫৫), টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতীর আগচারান গ্রামের নুরমোহাম্মদ খান (৭০), নওগাঁ জেলার মান্দার নাপিতপাড়ার ইসমাইল হোসেন (৬০), নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার মহেশপুর গ্রামের সুলতান উদ্দিন (৬৫), হেদায়েতুল ইসলাম (৭০)। এনিয়ে দ্বিতীয় ধাপের ইতেমার গত দুই দিনে ৯ মুসল্লি মারা যান।
মোবাইল কোর্ট : দ্বিতীয় ধাপের ইজতেমায় শুক্রবার বিকেলের পালায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল ইসলাম ভূইয়া ও শনিবার সকালের পালায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: মনিরুজ্জামান ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, বিশুদ্ধ খাবার আইনসহ বিভিন্ন আইনে ১৬টি মামলা দায়ের ও ২১ হাজার ৩ শ’ টাকা জরিমানা আদায় করেন। এনিয়ে দ্বিতীয় ধাপে গত দুদিনে মোট ২৫টি মামলা দায়ের ও মোট ৮৫ হাজার ৩ শ’ টাকা নগদ জরিমানা আদায় করা হয়।
বিদেশী মেহমান : দ্বিতীয় ধাপের ইজতেমায় বিভিন্ন মেয়াদের চিল্লাধারী ২হাজার ৭ শ’ বিদেশী মুসল্লী অংশ নিয়েছেন। তারা প্রথম ধাপের ইজতেমায় অংশ নিয়ে তাবলিগের কাজে বের হওয়ার জন্য চিল্লাধারী জামাতভূক্ত হয়ে ইজতেমায় থেকে যান। শনিবার ইজতেমা শেষে তারা অন্যান্য চিল্লাধারী জামাতের সাথে তাবলিগের কাজে বিভিন্ন অঞ্চলের উদ্দেশ্যে বের হবেন।
টঙ্গী প্রেসক্লাবের মিডিয়া সেন্টার : বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের ন্যায় দ্বিতীয় পর্বেও সংবাদ পরিবেশন করতে আসা দেশী বিদেশী সাংবাদিকদের সুবিধার্থে টঙ্গী প্রেসক্লাব কর্তৃপক্ষের মিডিয়া সেন্টার চালু রয়েছে। টঙ্গী পৌর কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় চালু করা এই মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ কর্মীদের জন্য সংবাদ সংগ্রহ ও সংবাদ প্রেরণের যাবতীয় সুযোগ সুবিধা রয়েছে। মিডিয়া সেন্টারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে রয়েছেন টঙ্গী প্রেসক্লাবের সভাপতি ইসলামিক টিভির সংবাদ পাঠক সৈয়দ আতিক ।
উল্লেখ্য, এবারের দুই ধাপের বিশ্ব ইজতেমা গত ১১ জানুয়ারি শুরু হয়ে  ১৩ জানুয়ারি আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে প্রথম পর্ব শেষ হয়। মাঝে ৪ দিন বিরতি দিয়ে ১৮ জানুয়ারি ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু হয়ে ২০ জানুয়ারী আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে এবারের দুই পর্বের বিশ্ব ইজতেমার সমাপ্তি ঘটছে। দিন দিন ইজতেমায় মুসল্লির সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় স্থান সংকুলানের অভাবে ও মুসল্লিদের যাতায়াতে যানবাহন চলাচলে চাপ কমাতে গত ২০১১ সাল থেকে বিশ্ব ইজতেমা টঙ্গীর তুরাগ তীরে দুই পর্বে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এমনকি এবছর ইজতেমা তুরাগ নদীর পশ্চিম তীরেও সম্প্রসারণ করা হয়েছে। এবছরই প্রথম ইজতেমায় নামাজের জামাতের ঈমাম নদীর পশ্চিম তীরে থেকে নামাজ পরিচালনা করছেন।