Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

অপরাধীদের আইসিসি’তে বিচারের আহ্বান সিরিয়াতে সহিংসতার মাত্রা আরও বেড়েছে

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশন সিরিয়ায় সহিংসতার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে বিচারের আহ্বান জানিয়েছে। সেই সঙ্গে সিরিয়ার বেসামরিক নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সেখানে জরুরি ভিত্তিতে আন্তর্জাতিক হস্তক্ষেপের আহ্বান জানানো হয়েছে। এদিকে আইসিআরসি বলেছে, সিরিয়ার সহিংসতার মাত্রা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। জাতিসংঘের মানবাধিকার দপ্তরের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মানবাধিকারের বিরুদ্ধে অপরাধের নির্দেশ প্রদানকারী সন্দেহভাজন সিরিয়ান কর্মকর্তাদের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে বিচার করা উচিত। মানবাধিকার কমিশনার নাভি পিল্লাইয়ের মুখপাত্র রূপার্ট কোলভিল এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে বলেছেন, আমরা মনে করি এবং আগেই বলেছি যে, সিরিয়ার বিষয়টি আন্তর্জাতিক আদালতের বিষয়। এর মাধ্যমে যারা এ কাজ করছেন তাদের কাছে কড়া বার্তা পৌঁছাবে। নাভি পিল্লাই আগামীকাল নিউ ইয়র্কে সাধারণ পরিষদে সিরিয়ার ব্যাপারে বক্তব্য দেবেন। মুখপাত্র বলেছেন, আমার ধারণা সেখানে একটি প্রস্তাব গ্রহণ করার কথা চিন্তা করা হচ্ছে। তাতে কি থাকছে সেটা আমার জানা নেই। কোলভিল বলেছেন, সিরিয়ায় নিহতের সংখ্যা দিনে দিনে বাড়ছে সেটা স্পষ্ট। আর হোমস শহরের অবস্থা খুব ভয়াবহ বলে তিনি উল্লেখ করেন। কিন্তু সেখানে হতাহতের সঠিক সংখ্যা আমরা দিতে পারছি না। জাতিসংঘের যুদ্ধাপরাধ বিষয়ক সাবেক বিচারক পিল্লাই বুধবার সিরিয়ার বেসামরিক নাগরিকদের রক্ষার জন্য জরুরি ভিত্তিতে আন্তর্জাতিক হস্তক্ষেপের আহ্বান জানিয়েছিলেন। শুক্রবার সিরিয়ার আলেপ্পো শহরে সামরিক এবং নিরাপত্তা বাহিনীর ভবন লক্ষ্য করে দুটি বোমা বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা ২৮ জনে দাঁড়িয়েছে। সিরিয়ার সহিংসতা বৃদ্ধির কারণে সেখানে কোন তথ্য যাচাই করা সম্ভব হচ্ছে না। তাই জাতিসংঘ সেখানে মৃতের সংখ্যার হিসাব রাখা বন্ধ করে দিয়েছে। তবে গত ১২ই ডিসেম্বর জাতিসংঘের সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী ৫০০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। এদিকে ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অফ দি রেড ক্রস (আইসিআরসি) এর দামেস্ক প্রতিনিধি দলের উপপ্রধান লরেন্ট ফেলে বলেছেন, গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই সিরিয়ার নিরাপত্তা পরিস্থিতি বেশ বড় ধরনের অবনতি ঘটেছে। এর ফলে সেখানে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সাহায্য পাঠানোসহ আহতদের উদ্ধারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না। শুক্রবার জেনেভাতে তিনি বলেছেন, সিরিয়াতে সঙ্কট শুরুর পর আইসিআরসিই হচ্ছে সেখানে কার্যক্রম চালানো একমাত্র আন্তর্জাতিক সংস্থা। পরিস্থিতির কারণে সেখানে তাদের স্টাফের সংখ্যা জুনের পর দ্বিগুণ করেছেন বলে তিনি উল্লেখ করেন। লরেন্ট বলেন, গত কয়েক দিনে সিরিয়ান আরব রেড ক্রিস্টে বা আইসিআরসিকে তাদের কার্যক্রম চালানোর সময় বা আগে সামরিক চেকপয়েন্ট অতিক্রম না করার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সিরিয়ার পরিস্থিতির কারণে এমন নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান। তিনি বলেন, শুক্রবার আলেপ্পোতে বোমা বিস্ফোরণের পর সিরিয়ান আরব রেড ক্রিসেন্টের অ্যাম্বুলেন্স সেখানে গেছে। ছয়টি ট্রাকে করে জরুরি খাবার এবং চিকিৎসা সরঞ্জাম শনিবার হোমসে পাঠানো হয়েছে। তাদের দ্বিতীয় আরেকটি গাড়ি বহর অবরুদ্ধ পশ্চিমাঞ্চলীয় একটি শহরে এক সপ্তাহের মধ্যে পৌঁছাবে বলে তিনি জানান।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট


4 Responses to অপরাধীদের আইসিসি’তে বিচারের আহ্বান সিরিয়াতে সহিংসতার মাত্রা আরও বেড়েছে

  1. sikiş izle

    March 13, 2012 at 4:38 am

    Hello admin excellent put up much thanks liked this weblog genuinely considerably

  2. escort ilanlari

    March 14, 2012 at 4:57 am

    Great publish admin! i bookmarked your web blog. i’ll appear ahead should you can have an e-mail checklist including.

  3. su arıtma cihazları

    March 14, 2012 at 11:14 am

    Excellent put up admin! i bookmarked your internet webpage. i will look forward if you will have an e-mail list including.

  4. smackdown oyunları

    March 14, 2012 at 2:42 pm

    i cant get how it is possible to share like this amazing posts admin considerably thanks