Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

রাজধানীর পল্টনে সিপিবি’র অফিসের সামনে সমাবেশে পুলিশের লাঠিচার্জ, পিপার স্প্রে : আহত ৩০

১৬ জানুয়ারি: বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) ও গণতান্ত্রিক বামমোর্চার উদ্যোগে আধা বেলা হরতাল চলাকালে শেষ মুহুর্ত্বে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে রাজধানীর পল্টনস্থ সিপিবি’র অফিসের সামনে  মোর্চার সমাবেশে পুলিশ লাঠিচার্জ ও পিপার স্প্রে করে পন্ড করে দিয়েছে। এসময় ব্যাপক লাঠিচার্জ ও পিপার স্প্রে করায় দলীয় নেতাকর্মী, মিডিয়াকর্মী ও পুলিশসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। পুলিশ নেতাকর্মীদেরকে ছত্রভঙ্গ করতে মারাত্মক ক্ষতিকারক পিপার স্প্রে মিছিলে ছুড়ে মারলে এরা আহত হয়। সকাল ৯টার দিকে সিপিবি-বাসদ হরতালের সমর্থনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি মিছিল বের করে। মিছিলটি পুরানা পল্টন মোড় ঘুরার সময় পুলিশ বাধা দেয়। এরপর মিছিলকারীরা দলীয় নেতাদের সাথে নিয়ে দলীয় কার্যালয়ের সামনে এসে সমাবেশ করার সময় পুলিশ ব্যাপক লাঠিচার্জ ও পিপার স্প্রে ছুড়ে নেতাকর্মীদেরকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে  ২৫ জন কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীসহ প্রায় ৩০জন আহত হয়েছে। জ্বালানী তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সিপিবি, বাসদ এবং গনতান্ত্রিক বামমোর্চার ডাকা অর্ধ দিবস হরতাল চলাকালে শেষ মুহুর্ত্বে নগরীতে পুলিশের সাথে হরতালকারীদের সাথে এই হামলার ঘটনা ঘটে। সমাবেশে সিপিবি’র সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে হরতাল পালন করতে জনগনকে আহবান জানানোর অধিকার আমাদের রয়েছে। তেমনি শান্তিপূর্ণ ভাবে হরতাল পালনের অধিকারও রয়েছে। তিনি আরো বলেন, পুলিশ বিনা কারনে এবং বিনা উস্কানিতে আমাদের কর্মসূচিতে পিপার স্প্রে, লাঠিচার্জ ও টিয়ারসেল ব্যবহার করে বাধা দিচ্ছে। এটা ঠিক না।