Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

আমেরিকা জুড়ে ‘ফ্লু ইমার্জেন্সি’, ২০ শিশুর মৃত্যু

নিউইয়র্ক, জানুয়ারী ১২: যুক্তরাষ্ট্রের ৪৭ টি অঙ্গরাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে ফ্লু’র প্রকোপ এবং ফ্লু আক্রান্ত ২০টি শিশুর মৃত্যু ঘটেছে। জারী করা হয়েছে ‘ফ্লু ইমার্জেন্সি’। প্রতিবছর মতো এবারও শীতের শুরুতে ফ্লু প্রতিষেধক ভ্যাকসিন নেয়ার জন্য স্বাস্থ্য দফতর যে নির্দেশনা দিয়ে থাকে তা একটি নিয়মিত ব্যাপার হলেও এবার আক্রান্তের সংখ্যা এতো অধিক যে ইতোমধ্যে সাড়ে ১৩ কোটি ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে। বিভিন্ন রাজ্য থেকে অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে যে চাহিদা অনুযায়ী ভ্যাকসিন পাওয়া যাচ্ছে না।
ম্যাসাচুসেটস রাজ্যে গত কয়েকদিনে নিউমোনিয়া ও ইনফ্লুয়েঞ্জা আক্রান্ত রোগির সংখ্যা বেড়ে গেছে এবং বোষ্টনের মেয়র টমাস মেনিনো এ জরুরি অবস্থা জারি করেছেন। এ যাবত আক্রান্ত ৭’শ রোগির সন্ধান মিলেছে, যা গত বছরের তুলনায় ১০ গুণ। পএি অবস্থা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যকর্মীরা  দ্রুত কাজ করছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন গতকাল শুক্রবার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানান, যুক্তরাষ্ট্রে গত এক সপ্তাহে নিউমোনিয়া ও ইনফ্লুয়েঞ্জা জ্বরে আক্রান্ত রোগির সংখ্যা শতকরা ৭ দশিমিক ৩ পৌছেছে। গত কয়েক দিনে ২০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তাদের সকলের বয়স ১৮ বছরের নিচে বলে জানা গেছে। কত কয়েক বছরের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে এবারই ইনফ্লুয়েঞ্জার প্রাদুর্ভাব বেশি। এ কারণেই বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যগুলোতে শীত মওসুমের সর্বসাধারণকে ফ্লু ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য বারবার বলা হয়ে থাকে। নিউমোনিয়া ও ইনফ্লুয়েঞ্জা জ্বরে আক্রান্ত হলে রোগির মাথা ও শরীরে ব্যথা, সর্দি-কাশি, নাক দিয়ে পানি ঝড়া ও জ্বরের মাত্রা বেড়ে যায়। শিশু ও বয়স্কদের এ জাতীয় রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশংকা বেশি থাকে।
যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যের হাসপাতালে ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান্ত রোগী ভর্তির সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতি কিছুটা কমেছে। তবে অন্য অঙ্গরাজ্যগুলোর তুলনায় মাসাচুসেটসে ইনফ্লুয়েঞ্জার প্রাদুর্ভাব বেশি জানিয়েছেন সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের মুখপাত্র।
পেনসিলভানিয়া রাজ্যের পূর্বাঞ্চলের একটি হাসপাতালের বাইরে তাঁবু খাটানো হয়েছে। সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের স্বাস্থ্যকর্মীরা নিউমোনিয়া ও ইনফ্লুয়েঞ্জা জ্বরে আক্রান্তদের চিকিতসার জন্য অতিরিক্ত সময় কাজ করতে হচ্ছে।