Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

‘বক্তৃতার ফুলঝুরিতে ধ্বস ঠেকানো যাবে না’

মহাজোট সরকারের চারবছর পূর্তিতে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যকে কথামালার ফুলঝুরি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি নেতারা। দৈনিক মানবজমিনকে দেয়া তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী সম্ভবত ভুলে গেয়েছে যে, কেয়ার টেকার সরকারের স্বপক্ষে ৯৬ সালে তার দল বাংলাদেশে তাণ্ডব সৃষ্টি করেছিল। তখন হরতাল, নৈরাজ্য, সন্ত্রাস, অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর, লুটপাট তথা সারাদেশকে অচল করে দেয়া হয়েছিল। আজকে হঠাৎ কি হলো যে, তত্ত্বাবধায়ক সরকার থাকলে মহাভারত অশুদ্ধ হয়ে যাবে? সরকার এটা নিশ্চিত উপলব্ধি করেছে যে, একটি নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে তাদের ভরাডুবি হবে। কাজেই এখন আর তত্ত্বাবধায়ক সরকার তাদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। প্রধানমন্ত্রী কি বিস্মৃত হয়েছেন, ২০০৭ সালে তিনি মঈন-ফখরুদ্দিনের নেতৃত্বাধীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে স্বাগত জানিয়েছিলেন। তাদের সকল অন্যায় কাজকে বৈধতা দেয়ার গ্যারান্টি দিয়েছিলেন। কাজেই তিনি যে বক্তব্য দিয়েছেন তার বস্তুনিষ্টতা বিশ্লেষন করলে কতটুকু ধোপে ঠিকবে সেটা বলাই বাহুল্য। ড. মঈন খান বলেন, নির্বাচন কমিশন যদি এতই নিরপেক্ষ নির্বাচন করে থাকে তাহলে বিগত কয়েক বছর যাবত ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনকে বন্ধ করে দিয়ে করপোরেশনকে দ্বিভাগ করা হলো কেন? কাজেই গল্প-উপন্যাস ও কথামালার ফুলঝুরি দিয়ে সরকারি টেলিভিশনে বক্তৃতা দেয়া আর জনগনের ভোট পাওয়া এক কথা নয়। সরকারের জনপ্রিয়তায় যে বিরাট ধ্বস নেমেছে তা সাম্প্রতিক জরিপগুলোতে স্পষ্ট হয়ে এসেছে। বক্তৃতা দিয়ে সেটা রুখা যাবে না।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট