Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

বোমা আর ড্রোন হামলায় ছিন্নভিন্ন পাকিস্তান; নিহত ১২০

১১ জানুয়ারি : দফায় দফায় সন্ত্রাসী বোমা আর মার্কিন ড্রোন হামলায় নাকাল হয়েছে পাকিস্তান। বৃহস্পতিবার এসব হামলায় ১২০ জন নিহত এবং অন্তত ২৩৪ জন আহত হয়েছে। এর মধ্যে ৮১ জন সাম্প্রদায়িক হামলায় নিহত হয়েছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যম খবর দিয়েছে। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গত কয়েক বছরের মধ্যে এটাই হচ্ছে পাকিস্তানের জন্য সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী দিন।

বৃহস্পতিবার সবচেয়ে বড় হামলা হয়েছে বেলুচিস্তানের একটি বিলিয়ার্ড হলে। সেখানে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত হয়েছে ৮১ জন এবং আহত হয় ১২০ জনেরও বেশি। পুলিশ কর্মকর্তা জুবায়ের মাহমুদ জানান, পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে সেখানে দু’টি বোমার বিস্ফোরণ ঘটে।

বিলিয়ার্ড হলটি শিয়া মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় অবস্থিত এবং হতাহতদের বেশিরভাগই এ সম্প্রদায়ের লোক। প্রথম হামলা হওয়ার পর বহু লোক সেখানে গেলে দ্বিতীয় বিস্ফোরণ ঘটে। ফলে হতাহতের সংখ্যা বেড়েছে। এ হামলায় পুলিশ, সাংবাদিক এবং উদ্ধারকর্মীও নিহত হয়েছে। বিস্ফোরণে ভবনের ছাদ ধসে গেছে।

উগ্র গোষ্ঠী লস্কর-ই জাংভি এ হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেছে। এ গোষ্ঠীর মুখপাত্র বকর সাদিক দাবি করেছেন, প্রথম হামলাটি চালিয়েছে একজন আত্মঘাতী আর দ্বিতীয় হামলা হয়েছে গাড়িতে পেতে রাখা দূর নিয়ন্ত্রিত বোমা বিস্ফোরণের সাহায্যে।

এর আগে, কোয়েটার একটি বাণিজ্যিক এলাকায় আধাসামরিক বাহিনীর সদস্যদের লক্ষ্য করে চালানো হামলায় ১২ জন নিহত ও ৪০ জনের বেশি আহত হয়। এ ছাড়া, সোয়াত উপত্যকার একটি মসজিদে অন্য এক বিস্ফোরণে ২২ জন নিহত ও ৭০ জন আহত হয়েছে। এ হামলার দায়িত্ব কেউ স্বীকার করেনি।

এদিকে, বৃহস্পতিবার উত্তর ওয়াজিরিস্তানের মির আলি এলাকার একটি বাড়ি লক্ষ্য করে মার্কিন ড্রোন থেকে ছোঁড়া ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় পাঁচজন নিহত ও অনেকে আহত হয়েছে।

সূত্র : রেডিও তেহরান