Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

যুক্তরাষ্ট্রে পণ্য রপ্তানিতে শুল্কমুক্ত সুবিধা হারাচ্ছে বাংলাদেশ

 যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে পণ্য রপ্তানিতে শুল্কমুক্ত বাজারসুবিধা হারাচ্ছে বাংলাদেশ। এরইমধ্যে মার্কিন প্রশাসন ওই সুবিধা বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। বিষয়টি তারা চিঠির মাধ্যমে বাংলাদেশকে জানিয়েছে। ২০০৭ সালে বাংলাদেশকে জিএসপি-সুবিধা বাতিলের আবেদন করেছিল যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক শ্রমিক সংগঠনের ইউনিয়ন আমেরিকান ফেডারেশন অব লেবার অ্যান্ড কংগ্রেস অফ ইন্ডাস্ট্রিয়াল অর্গানাইজেশন (এএফএল-সিআইও)। মার্কিন শ্রমিক ইউনিয়নের সবচেয়ে বড় সংগঠন। এটি এক কোটি ১০ লাখ শ্রমিকের প্রতিনিধিত্ব করে। আর এই শ্রমিকেরা হচ্ছেন ক্ষমতাসীন ডেমোক্র্যাটদের সবচেয়ে বড় ভোট ব্যাংক। এ কারণেই এএফএল-সিআইওকে যথেষ্ট গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। মুলত চারটি বড় অভিযোগের কারনে এ সুবিধা হারাচ্ছে বাংলাদেশ। এগুলো হচ্ছে- শ্রমিক ইউনিয়ন করতে না দেয়া, শ্রমিক নেতা আমিনুল ইসলাম হত্যা ও হত্যার ঘটনায় কোনো ব্যবস্থা না নেয়া। পাশাপাশি সাম্প্রতিক তাজরীন ফ্যাশনসে অগ্নিকাণ্ডে শতাধিক শ্রমিক নিহত হওয়ার ঘটনা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র চার হাজার ৮৮০টি পণ্যে ১২৯টি দেশকে শুল্কমুক্ত বাজারসুবিধা দিয়ে আসেছে। এ দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষ ৫০ রপ্তানিকারক দেশের তালিকায় বাংলাদেশ আছে। মার্কিন বাণিজ্য প্রতিনিধি (ইউএসটিআর) রন কার্ক গত ২১ ডিসেম্বর বাণিজ্যমন্ত্রী জি এম কাদেরকে একটি চিঠি দিয়ে বিষয়টি জানান। এরপর ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান মজীনা গত ২৭ ডিসেম্বর পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনিকে এ বিষয়ে একটি চিঠি লেখেন। এতে রন কার্ক সামগ্রিক পরিস্থিতি বিবেচনায় যুক্তরাষ্ট্র যে বাংলাদেশের ক্ষেত্রে জিএসপিসুবিধা বাতিল করার কথা বিবেচনা করছে তা লেখেন। তিনি বলেছেন, শিগগিরই যুক্তরাষ্ট্র সরকার নিয়মানুযায়ী ফেডারেল রেজিস্টারে (সরকারের গেজেট) নোটিশ জারি করবে। সেখানে ঘোষণা থাকবে, শ্রমিক অধিকারের বিষয়েই তারা বাংলাদেশের জিএসপিসুবিধা বাতিল বা স্থগিত করার কথা বিবেচনা করছে। এ জন্য গণমতামত চাওয়া হবে। এরপরই প্রেসিডেন্ট এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট