Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

শেয়ারবাজার : হরতালে ডিএসইতে সূচক বাড়লেও লেনদেন কমেছে

 ঢাকা, ০৬ জানুয়ারি : জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ১৮ দলের ডাকা হরতালে রোববার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক বাড়লেও লেনদেন কমেছে।
এদিন ডিএসই’র সাধারণ মূল্য সূচক বেড়েছে ২ পয়েন্ট এবং লেনদেন আগের দিনের  তুলনায় কমে দাঁড়িয়েছে ১৪৫ কোটি টাকায়।
এদিন সকাল থেকে সূচকের উর্ধ্বমুখী প্রবণতা দিয়ে লেনদেন শুরু হয়। প্রথম আধাঘণ্টায় সূচক দিনের সর্বোচ্চ অবস্থান ৪ হাজার ১৮৪ পয়েন্টে উঠে আসে। এরপর শুরু হয় সূচকের ওঠানামা। যা দিনের শেষ পর্যন্ত অব্যাহত থাকে এবং লেনদেন শেষে তা ২ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ১৬৩ পয়েন্টে দাঁড়ায়।
এদিকে গত সপ্তাহজুড়ে সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতার জের ধরে বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ কমে যাওয়ায় লেনদেন আশঙ্কাজনক হারে কমতে থাকে। এরই মধ্যে চলতি সপ্তাহে আবারও যোগ হয়েছে রাজনৈতিক অস্থিরতা। ফলে বিনিয়োগকারীদের সক্রিয়তা আরও কমে যাওয়ায় লেনদেন কমেছে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। হরতালের কারণে ব্রোকারেজ হাউজগুলোতে বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতিও ছিল কম।
এদিন ডিএসইতে মোট ২৬৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ১১৫টিরই দাম কমেছে। বেড়েছে ১০৩টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।
রোববার এ স্টক এক্সচেঞ্জে ১৪৬ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা গত বৃহস্পতিবারের চেয়ে ১৮ কোটি টাকা কম।
দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে লেনদেনে শীর্ষে থাকা প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে- বেক্সিমকো, ইউনিক হোটেল, পূবালী ব্যাংক, ইউনাইটেড এয়ার, যমুনা অয়েল, মেঘনা পেট্রোলিয়াম, আরএন স্পিনিং, সামিট পাওয়ার, এনবিএল ও বেক্সিমকো ফার্মা।
অন্যদিকে, বেলা আড়াইটায় দিনের লেনদেন শেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ’র (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক ২.৬২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১২৭২৫.৫১ পয়েন্টে।
সিএসইতে এদিন ১৬৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ৬১টির দাম বেড়েছে। কমেছে ৮৮টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।
সিএসইতে রোববার ১৫ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের চেয়ে ১০ কোটি টাকা কম।