Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

সিলেটে লন্ডনির বিকৃত খায়েশের ভিডিও ফুটেজ, বিশ্বনাথে তোলপাড়

কেবলমাত্র ব্রা আর পেন্টি পরা দুই তরুণী। শরীরে আর কোন বস্ত্র নেই। এক হাতে রঙিন পানি আর অপর হাত পুরুষের কাঁধে রেখে নিয়ন্ত্রণহীন ভাবে ড্যান্স করেই চলেছে। মাঝে মধ্যে স্পর্শকাতর স্থানগুলোকেও অশ্লীল ভঙ্গির মাধ্যমে তুলে ধরছে। এরকম প্রায় ৩ মিনিট ২৬ সেকেন্ডের একটি ভিডিও চিত্র নিয়ে সিলেটের বিশ্বনাথে তোলপাড় চলছে। সাইবার ক্রাইমের কারণে ওই ফুটেজ এখন ছড়িয়ে পড়েছে সিলেট শহরে। মানুষের হাতে হাতে। মোবাইলে মোবাইলে। এই ফুটেজ বিশ্বনাথের এক লন্ডন প্রবাসীর। তার বিকৃত খায়েশের এই দৃশ্য দেখে সর্বত্রই উড়ছে ছি, ছি রব। মানুষ এমন করে-এমন কথা সাধারণ মানুষের। গ্রামের একটি পারিবারিক ঘর। ঘরের ভেতরে সোফা, খাট, শোকেস, আলমিরা সবই আছে। কয়েকজন পুরুষ বসে আছে এক পাশে। আছে বাউলা গায়ক। কয়েক জন বাদ্য-বাদকও। দুটি মেয়ে শুধু ব্রা আর পেন্টি পরা। শরীরে আর কোন কাপড় নেই। এক হাতে মদের গ্লাস। অন্য হাত দিয়ে জড়ানো পুরুষ সঙ্গীর দেহ। এরপর নেচে চলে নানা ভঙ্গিতে, না ঢংয়ে। অশ্লীল কথাবার্তা। অশ্লীলতার ভরা গানও। আমোদ-ফুর্তির দৃশ্যটি করা হয় মোবাইল ফোনে ক্যামেরাবন্দি। পুরো ফুটেজে এরকম দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি হয়। প্রবাসী শহর সিলেট। এখানকার বিশাল সংখ্যক প্রবাসীরা বসবাস করেন লন্ডনে। গোটা বছরই সিলেটে লন্ডন প্রবাসীদের আনাগোনা থাকে বেশি। তবে শীত মওসুম এলে প্রবাসীদের যাতায়াত বেড়ে যায়। কয়েকজন লন্ডন প্রবাসীর সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, এক শ্রেণীর লন্ডন প্রবাসীরা গ্রামের বাড়িতে প্রাসাদসম বাড়ি নির্মাণ করে রেখেছেন। এসব বাড়িতে অনেকেই থাকেন না। শীত মওসুম এলে অনেক প্রবাসী একাই চলে আসেন বাড়ি। পরিবার পরিজনকে রেখে আসেন লন্ডনে। সিলেটে এসে এক মাস কিংবা দুই মাস অবস্থান কালে তারা মদ, নারী নিয়ে আমোদ প্রমোদে মেতে উঠেন। এবারের শীত মওসুমে বিশেষ করে থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে লন্ডন প্রবাসীদের প্রতিযোগিতা ছিল বেশি। তারা ঢাকা থেকে ডিজে এনে অশ্লীলতার মাধ্যমে বিকৃত রুচির খায়েশ পূরণ করেন। অনেকেই বাউল পার্টির নামে রাতভর নেশা ও মদ নিয়ে মত্ত থাকেন। হাইরাইজ ভবন ও নিরাপত্তাবেষ্টিত ফ্ল্যাটে নির্বিঘ্নেই তারা এসব কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের পাল্লায় পড়ে সিলেটের অনেক দরিদ্র পরিবারের মেয়েরা হয়েছে বিপথগামী। বিশ্বনাথ শহরের জগন্নাথপুর রোডের পার্শ্ববর্তী একটি গ্রামের বাসিন্দা লন্ডন প্রবাসী তৈয়ব আলী। কয়েক মাস আগে তিনি একাই বাড়িতে আসেন। পরিবার পরিজনকে লন্ডনে রেখেই তিনি আসেন। নিজ বাড়িতে এসে তিনি আয়োজন করেন বাউলা গানের। ঢাকার ডিজে পার্টির দুটি মেয়েকে নিয়ে আসা হয় তার বাড়িতে। বাড়ির ঘরের মধ্যে তিনি ও তার সহযোগী কয়েকজন পুরুষ রাতে মদ খেয়ে ওই সব নারীকে নিয়ে উলঙ্গ নৃত্য চালান। মোবাইলের ভিডিও ফুটেজ দেখে স্থানীয় কয়েকজন যুবক জানান, ফুটেজে দেখা দুই উলঙ্গ নারীর সঙ্গে যে পুরুষকে দেখা যাচ্ছে ওই পুরুষের নাম জুয়েল। সে আগে একটি গানের দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলো। এখন নিজেই গানের দল গড়েছে। সে তার গানের দলকে নিয়ে লন্ডন প্রবাসী তৈয়বের  আমন্ত্রণে বিশ্বনাথে যায়। এবং ওখানে দুই তরুণীকে নিয়ে বেশির ভাগ সময় প্রবাসী তৈয়বের পাশাপাশি জুয়েলকে নাচতে দেখা যায়। এলাকার লোকজন জানান, কয়েক মাস আগে ওই প্রবাসী যখন নিজ বাসায় পার্টির আয়োজন করেন তখন তার কয়েকজন বন্ধুও সেখানে উপস্থিত ছিলো।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট