Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

বিপিএলে পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা আসছেন না

ঢাকা: চারদিন আগে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন পিসিবিকে লিখিতভাবে জানিয়েছেন, “বাংলাদেশ এই মুহূর্তে পাকিস্তান সফরে যেতে পারছে না। কারণ সেখানকার পরিস্থিতি অনুকূলে নয়।” আর একদিন আগে বিসিবি সভাপতি আনুষ্ঠানিক মতবিনিময় সভায় সেই ঘোষণা প্রকাশ্যেই দিয়েছেন। সঙ্গে বিসিবি সভাপতি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রতিক্রিয়া নিয়েও আশঙ্কা প্রকাশ করছেন।

একদিন পার না হতেই বিসিবি সভাপতির আশঙ্কা সত্য বলে প্রমাণিত হয়েছে। কারণ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড বিপিএলে তাদের ক্রিকেটারদের অংশগ্রহণ করতে দেবে না। সেটা পিসিবি মঙ্গলবার ঘোষণা করেছে। তবে সরাসরি নয়। পিসিবি বিপিএলের মাঠে গড়ানোর সিডিউল মাথায় রেখে সে সময় একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছে। যাতে পাকিস্তানি ক্রিকেটার বিপিএলে অংশগ্রহণ করতে না পারে।

দ্বিতীয়বারের মতো পাকিস্তানে সফর বাতিল করার ঘোষণা নাজমুল হাসান পাপন দেয়ার একদিন পর পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়ে টুর্নামেন্ট আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছে। কিন্তু এতোকিছুর পরও বিপিএলে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের অংশ নেয়ার ব্যাপারে আশাবাদী নাজমুল হাসান।

মিরপুর স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার বিপিএলে পাকিস্তানী ক্রিকেটারদের অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “পিসিবি সভাপতি যা বলেছেন আমি শুনেছি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, যাদের আমরা নিয়েছি তাদের অনেকেই বিপিএলে খেলবে। পিসিবি সভাপতি কিন্তু সরাসরি বলেননি যে, তারা আসবে না। তারা একটা টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে যাচ্ছে, যা পক্ষান্তরে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের আসার পক্ষে একটা বাধা।”

পিসিবির কঠোর প্রতিক্রিয়ায় তাদের কোনো দোষ দিচ্ছেন না বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। বলেন, “আমি তাদের দোষ দিচ্ছি না। তাদের জায়গা থাকলে আমরাও হয়তো তাই করতাম। প্রতিশ্রুতি রক্ষা করিনি আমরা। আমি আবারো বলছি, প্রতিশ্রুতি যখন দিয়েছি তখন যাব। না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেব না। কিন্তু বর্তমার পরিস্থিতি সফরের অনুকূল নয়। পরিস্থিতি ভালো হলে অবশ্যই আমরা যাওয়ার ব্যাপারে চিন্তা ভাবনা করব। তখন আমরা পাকিস্তান সফর করব।”

পিসিবি সভাপতি জাকা আশরাফ দুই দেশের দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্ক পুনর্বিবেচনা করার হুমকি দিয়েছেন। আর বিসিবি সভাপতি এখন সেই দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্কের দিকেই তাকিয়ে আছেন।

দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্ক পুনর্বিবেচনা করার হুমকির প্রসঙ্গে নাজমুল হাসান বলেন, “আমাদের ক্রিকেট আজকে যে মানে পৌঁছেছে, তাতে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের অবদান রয়েছে। ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ, বিপিএলে তারা খেলেছেন। দুই বোর্ডের মধ্যে সম্পর্ক বেশ উষ্ণ। আশা করি, পিসিবি তার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করবে।”

পিসিবির সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ হয়েছে কি না প্রশ্ন করা হলে নাজমুল হাসান বলেন, “চারদিন আগে চিঠি দিয়েছি, এখনো তার জবাব পাইনি। আমি তাদের মানসিক অবস্থা বুঝতে পারছি। শুধু এটুকুই বলতে চাই, এটা ইচ্ছাকৃত নয়, আমরা পরিস্থিতির শিকার। শেষ পর্যন্ত পিসিবি ক্রিকেটার আসতে না দিলে বিসিবি’র পক্ষে এতো তাড়াতাড়ি তাদের বিকল্প খুঁজে পাওয়া কঠিন হবে বলেই মনে করি।”

কিন্তু বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সভাপতি আফজালুর রহমান সিনহা বলেন, “নিলামে দল না পাওয়া ক্রিকেটারদের দিয়ে বিপিএল দ্বিতীয় আসর ভালোভাবেই চলবে। এখন পরিস্থিতি খুব উত্তপ্ত, তাই অনেক কিছুই বলা হচ্ছে। সব ঠাণ্ডা হলে হয়তো সিদ্ধান্ত বদলাতে পারে। এখান থেকে পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা অনেক বড় অঙ্কের টাকা পাবে। নিলামে অনেক অবিক্রিত ক্রিকেটার আছে। তাদের মধ্য থেকেই বিকল্প ক্রিকেটার বেছে নেয়া হবে।”

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট