Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

খুন গুম আর্থিক কেলেংকারির কারণে ২০১২ সাল খুব খারাপ গেছে: এবিএম মূসা

নিউজডেস্ক : বিদায়ী ২০১২ সাল জুড়ে সংঘটিত ঘটনাগুলোকে অত্যন্ত মর্মান্তিক আখ্যায়িত করে বর্ষিয়ান সাংবাদিক এবিএম মূসা বলেন, বছরজুড়ে সংঘটিত ঘটনাগুলো সফলতার বাণী শোনানোর মত ঘটনা ছিল না। খুন, হত্যা, জখম, অগ্নিকাণ্ড, গুম, ব্যাংক থেকে টাকা চুরি ও শেয়ার বাজার লুটের মত জঘন্য বিষয়ের কারণে, এক কথায় বলবো,  ২০১২ খুব খারাপ গেছে।

সোমবার মধ্যরাতে চ্যানেল আইয়ের আজকের সংবাদপত্র অনুষ্ঠানে এবিএম মূসা আরো বলেন, ২০১২ সাল ছিল অর্থ কেলেংকারির বছর । এর আগে কখনো দেশে এমন কেলেংকারির ঘটনা ঘটেনি। অর্থনৈতিক দুর্নীতির বিরুদ্ধে যে আন্দোলন সংঘটিত হয়েছে তার নিচে গণতন্ত্রের আন্দোলন চাপা পড়ে গেছে। এই একটা বছরে অর্থনৈতিক চাহিদা গণতন্ত্রের চাহিদাকে ছেড়ে চলে গেছে। অতীতে আমরা যে সকল আন্দোলন করেছি তা ছিল শুধু গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলন । অর্থনৈতিক দুর্নীতির বিরুদ্ধে এভাবে আমাদের কখনো আন্দোলন করতে হয়নি।

মানবজমিন পত্রিকার প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে এবিএম মূসা কিছুটা আক্ষেপ প্রকাশ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই নালিশ করেন গণমাধ্যমে  ভাল কিছু আমরা লিখি না । আসলে আপনারা যা ভালকাজ করেন তা খারাপের নিচে চাপা পড়ে যায়। বিষয়টা এমন হয় যে খড়ের গাঁদার মধ্যে সুঁই খোজার মত। আপনাদের যে দু-একটা সফলতা আছে তা মানুষের দৈনন্দিন জীবনকে ছুয়েও যেতে পারেনি।

সঞ্চালক সমুদ্র বিজয়কে এ সরকারের সফলতা হিসেবে আখ্যায়িত করলে এবিএম মূসা বলেন, সমুদ্র পাড়ে যাবার জন্য তো আগে মানুষকে রাস্তায় নামতে হবে, সে অবস্থা কি আছে ?

চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, শাসনের সবচেয়ে নিকৃষ্ট পদ্ধতি হচ্ছে গণতন্ত্র, যদি না এটাকে সঠিক উপায়ে পরিচালিত করা হয়। তখন সেনা সমর্থিত  স্বৈরতন্ত্রের শাসন ও গণতন্ত্রের আচ্ছাদনে মোড়া এক নায়কতন্ত্রের শাসনের মধ্যে কোন পার্থক্য থাকে না।

যুদ্ধাপরাধের বিচার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সরকার যুদ্ধাপরাধ ও মানবতা বিরোধী অপরাধকে এক করে একটা হ-য-ব-র-ল অবস্থার তৈরি করেছে। এ বিচার বাংলার লক্ষ-কোটি মানুষের প্রাণের দাবি, আগেরবার ক্ষমতায় এসে এ সরকার কেন এ বিচার শুরু করেনি তার জান্য আগে তাদের জবাবদিহিতা করতে হবে বলে আমি মনে করি।

এছাড়া স্কাইপি কেলেংকারির মাধ্যমে ট্রাইব্যুনাল থেকে বিচারপতি পদত্যাগ করে বিচার কাজকে আরো অনিশ্চয়তার মধ্যে ফেলে দিয়েছেন। সর্বোপরি বলবো সরকার এ পুরো বিচারপ্রক্রিয়া গুলিয়ে ফেলেছে।

গ্রন্থনা : এম.এইচ রনি

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট