Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

খুব শিগগিরই বিরোধী দলের সঙ্গে আলোচনা শুরু

 স্থানীয় সরকারমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, খুব শিগগিরই প্রধান বিরোধী দলের সঙ্গে আলোচনা শুরু করবে সরকার। আশা করছি, সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে পরবর্তী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভার শুরুতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি একথা বলেন। বিরোধী দলের সঙ্গে আলোচনার বিষয়ে জানতে চাইলে সৈয়দ আশরাফ বলেন, সমাধানের একমাত্র পথ আলোচনা, বিকল্প কোন পথ নেই। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আলোচনা যেন শুরু হয়। যত তাড়াতাড়ি এর সুরাহা হয়, গণতন্ত্র ও জাতির জন্য তা তত মঙ্গলজনক। আলোচনার জন্য বিরোধী দলকে কবে নাগাদ প্রস্তাব দেয়া হবে এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমরা আলোচনার জন্য সংসদে দাঁড়িয়ে প্রস্তাব দিয়েছি, অপেক্ষায় আছি প্রতি উত্তরের। কোন কোন বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন, কোথায় আলোচনা করবেন- আমরা অপেক্ষায় আছি, শিগগিরই আমরা আলোচনা করবো। বিরোধী দলের সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব সম্পর্কে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী ইতিমধ্যে আলোচনার জন্য সংসদে দাঁড়িয়ে প্রস্তাব দিয়েছেন- এর চেয়ে বড় আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব হতে পারে না। আলোচনা যে চলছে না, তা-ও না। আলোচনা রাজনীতির একটি চলমান প্রক্রিয়া। রাজনৈতিক দলের সঙ্গে রাজনৈতিক দলের সব সময় কথা হয়, শুধু আনুষ্ঠানিকভাবে বসা হয়নি। আশা করি, শিগগিরই সাড়া পাবো, আর সাড়া পেলে আনুষ্ঠানিক আলোচনায় বসবো। এখন মতভেদ থাকলেও আগামী নির্বাচনে সবাই অংশ নেবে- আশাবাদ প্রকাশ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা সবাইকে নিয়ে আগামী নির্বাচনে যাবো। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা আকবর আলি খানসহ অন্যদের নির্বাচনী ফর্মুলার বিষয়ে প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, আকবর আলির বাংলাদেশের রাজনীতিতে কোন অবদান নেই, তিনি তো রাজনীতি করেননি, বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে বুদ্ধিজীবীরাই থাকুক। রাজনৈতিক সমস্যার সমাধানে রাজনীতিকদেরই মূল দায়িত্ব নেয়ার আহ্বান জানিয়ে আশরাফ বলেন, আমরা রাজনৈতিক দলের কাছে আহ্বান জানাই- কিভাবে পলিটিক্যাল সমস্যা সমাধান করা যায়। এখানে আকবর আলি যদি কোন সহযোগী ভূমিকা পালন করেন, তাহলে তাকে স্বাগত জানাবো। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশে পরিণত হয়েছে, আগে বাংলাদেশে কোন ঘটনা ঘটলে সেটা আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় তেমন কোন সাড়া পেতো না। এখন ঘটনা-দুর্ঘটনা যা-ই ঘটুক না কেন, সেটা আন্তর্জাতিক মিডিয়ার প্রধান শিরোনাম হয়। বিশ্বের গণমাধ্যমগুলোতে বাংলাদেশের গুরুত্ব আরও সুদৃঢ় হচ্ছে মন্তব্য করে সৈয়দ আশরাফ বলেন, বাংলাদেশ এখন আর ভিক্ষুকের দেশ নয়। এখন বিদেশ থেকে সাহায্য দরকার হবে না, ইউ আর ক্যাপাবল, আমাদের সম্পদ দিয়েই দেশকে এগিয়ে নিতে পারবো। আগামী পাঁচ বছরে বাংলাদেশের জন্য কোন বিদেশী সাহায্যের প্রয়োজন হবে না।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট