Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

আওয়ামী লীগের নগর নেতৃত্বে কারা আসছেন?

 ঢাকা, ২৫ ডিসেম্বর : ঢাকা মহামহানগর আওয়ামী লীগের কাউন্সিলকে কেন্দ্র করে সংগঠনটিতে ব্যাপক উতসাহ উদ্দীপনা  লক্ষ্য করা যাচ্ছে। নেতাকর্মীদের পদচারণায় মুখরিত ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ । প্রত্যাশিত পদ পেতে শুরু হয়েছে জোর লবিং । ব্যক্তিগতভাকে কেউ কেউ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে রীতিমত ধর্ণা দিচ্ছেন। দীর্ঘদিন ধরে দলীয় কর্মকান্ডে যাদের সন্তোষজনক অংশগ্রহণ ছিলনা তারাও নতুন কমিটিতে স্থান নিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।
কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মেলনের দুই দিন আগে ২৭ ডিসেম্বর ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন হচ্ছে এবার। রাজধানীর সোহারাওয়ার্দী উদ্যানে অনুষ্ঠিতব্য সম্মেলন উদ্বোধন করবেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উতসুক  সকল নেতাকর্মীদের  এখন একটিই প্রশ্ন- কে হচ্ছেন মহানগর আওয়ামী লীগের নতুন কান্ডারি? কে হচ্ছেন আওয়ামী লীগের নগরনেতা?

এ প্রশ্নের জবাব  খোদ মহানগর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাছ থেকেই বেরিয়ে আসছে। তবে একেকজনের বক্তব্য একেক ধরনের । কেউ বলছেন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজকেই সভাপতি করলে ভাল হয়। কেউ বলছেন ভিন্ন কথা। তাদের মতে মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াই ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের  হাল ধরতে পারবেন। তারা বলছেন, রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামের অভিজ্ঞতা ও তৃণমূল পর্যায়ে কর্মীদের সাথে মায়ার সম্পৃক্ততা বেশী । আবার তিনি দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার আস্থাভাজন বলেও একটি সূত্র জানায়। তবে অনেকের মতে সভাপতি পদে মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার বিষয়টি প্রায় নিশ্চিত।

সাধারণ সম্পদক পদে এবার বেশ কয়েকজন আলোচনায় রয়েছেন।  যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী মো. সেলিম, আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম,  আসলামুল হক এমপি এবং সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সাঈদ খোকন এই পদটির জন্য চেষ্টা করছেন।

এছাড়াও সহ-সভাপতি পদপ্রার্থী আছেন মুকুল চৌধুরী ও কামাল আহমেদ মজুমদার এমপির মতো বর্ষীয়ান নেতারা।

সম্মেলন সফল করতে ইতোমধ্যে চারটি উপ কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওয়ার্ড এবং ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের হাতে দলের সদস্য নবায়নের ফরম এবং ব্যানারের টেক্স হস্তান্তর করা হয়েছে।
নেতৃত্ব নির্বাচনে অনুষ্ঠিতব্য কাউন্সিল সম্পর্কে সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী শাহে আলম মুরাদ  বলেন, ২৭ ডিসেম্বরের সম্মেলন সফল করার জন্য আমরা সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিচ্ছি। আর আগামী নেতৃত্বে কারা আসছে আসছে? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রথম অধিবেশনে কাউন্সিলরদের প্রস্তাব ও সমর্থন হবে। ২য় অধিবেশনে প্রস্তাব ও সমর্থনের প্রতিবেদন দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার কাছে উপস্থাপন করা হবে। তিনি যাকে যোগ্য মনে করবেন তাকেই দায়িত্ব দিবেন। আমরা সবাই তার সিদ্ধান্ত মেনে নেব।
একই স্থানে ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির কাউন্সিল। রীতি অনুযায়ী কেন্দ্রীয় কাউন্সিলের দুয়েকদিন আগে এবারও হচ্ছে মহানগর আওয়ামী লীগের কাউন্সিল। ঢাকা সিটি কর্পোরেশন উত্তর এবং দক্ষিণ দুইভাগে বিভক্ত হওয়ার পর অনেকেই ভেবেছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগও দু’ভাগ হতে যাচ্ছে। কিন্তু অধিকাংশ নেতাকর্মীই বিভক্তির বিপক্ষে মত দিয়েছেন।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট