Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

প্রসিকিউটর মালুমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আবেদন

ঢাকা: আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এর সাবেক চেয়ারম্যান বিচারপতি নিজামুল হকের স্কাইপি কেলেঙ্কারির সঙ্গে প্রসিকিউটর জেয়াদ আল মালুমের জড়িত থাকার আভিযোগে ন্যায় বিচার নিয়ে প্রশ্ন তুলে তার অপসারণ চেয়ে আবেদন করেছেন বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী।

বুধবার সকালে ট্রাইব্যুনাল-১এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীরের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনালে আসামি সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর পক্ষে তার আইনজীবী ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলাম এই আবেদন করেন। পরে ট্রাইব্যুনাল এ আবেদনের শুনানির জন্য আগামী ২৩ ডিসেম্বর রোববার দিন ধার্য করেন।

ব্যরিস্টার ফখরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, যেহেতু তাকে ট্রাইব্যুনালের সাবেক বিচারপতি সাপোর্ট দিতেন এবং তিনি পদত্যাগ করেছেন, সুতরাং ন্যায় বিচারের স্বার্থে মালুমকে ও অপসারণ করা উচিত।

ফখরুল বলেন, “যেহেতু ট্রাইব্যুনাল বলে আসছেন যে তারা স্বচ্ছ বিচার করছে। তাই ন্যায় বিচারের স্বার্থে প্রশ্নবিদ্ধ অবস্থায় চেয়ারম্যান পদত্যাগ করায় পূর্বের সব বিচার অস্বচ্ছ বলে বাতিল করার আবেদন করেছি।”

তিনি বলেন, “বিচারের নিরপেক্ষতা ও ন্যায় বিচারের স্বার্থে জেয়াদ আল মালুমকে অপসারণ করে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের আইন অনুযায়ী তাকে কমপক্ষে এক বছরের শাস্তি দেয়া হোক। অথবা বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের বিধান অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক।”

তিনি বলেন, “আইনজীবী তাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে অসদাচরণের অভিযোগে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল তেমনি এর বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা নেয়া উচিত।

জেয়াদ আল মালুমের অপসারণের দাবি করে সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী আবেদনে বলেন, ক. তিনি বিচারিক বিষয়ে বেলজিয়ামের অধিবাসী এক ব্যক্তির সঙ্গে পরামর্শ করতেন যা স্কাইপি কথোপকথনে প্রকাশ পেয়েছে।

খ. কখন কোন সাক্ষী আসবে এবং কী সাক্ষ্য দেবে তাও স্কাইপির মাধ্যমে জিয়াউদ্দিনের সঙ্গে পরামর্শ করতেন। এমনকি মামলার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আদালত সময়ের আগে ও পরে সাবেক চেয়ারম্যান নিজামুল হকের সঙ্গে কথা বলতেন। মালুম বলতেন, আমি বার বার দাঁড়িয়ে যাব আপনি আমাকে বসিয়ে দেবেন, যা পূর্বপরিকল্পিত বলে মনে হয়েছে।

আবেদনে আরো বলা হয়েছে, বেলজিয়ামের অধিবাসী জিয়াউদ্দিন বিচারপতি নিজামুল হককে বলেছেন, মালুম ভাইকে কিছু সাপোর্ট আমাদেরকে দিতেই হবে। কারণ ওনারা রিয়েলি এই ডকুমেন্ট টকুমেন্ট নিয়ে বেকায়দায় আছে। আর এই যে সিমন টিমন (প্রসিকিউশনের সদস্য) এরা আসলে এফিশিয়েন্ট না।
এছাড়াও ওই প্রবাসীর সাথে বিভিন্ন সাক্ষীদের সাক্ষ্যের বিষয়ে আলোচনা করেছেন বলে স্কাইপি সংলাপে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি স্কাইপির মাধ্যমে বেলজিয়ামের ব্রাসেলস প্রবাসী আহমেদ জিয়াউদ্দিনের সঙ্গে আর্ন্তজাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি নিজামুল হকের সংলাপের ওপর সংবাদ প্রকাশিত হয় দৈনিক আমার দেশ পত্রিকায়। এরপর গত মঙ্গলবার পদত্যাগপত্র জমা দেন বিচারপতি নিজামুল হক।

বিচারপতি নিজামুল হকের পদত্যাগের পর বৃস্পতিবার ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন করে প্রজ্ঞাপন জারি করে আইন মন্ত্রণালয়। এতে ট্রাইব্যুনাল-১-এ নিজামুল হকের জায়গায় দায়িত্ব পান দ্বিতীয় ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীর।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট