Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

ভারতে পৌঁছামাত্র ভিসা পাবেন বাংলাদেশীরা

 বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্য ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার ব্যতিক্রমী এক উদ্যোগ নিচ্ছে। এর অধীনে কোন নাগরিক ভারতে পৌঁছামাত্র তাকে সেখান থেকে ভিসা দেয়া হবে। তবে সব নাগরিককে নয়। বিশেষ কয়েকটি ক্যাটেগরির নাগরিকরা এই সুযোগ পাবেন। এ উদ্যোগের মাধ্যমে ভারত সরকার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাবমূর্তি উজ্বল করতে চায়। এরকম ভিসা শুধু ভারতই দেবে না, বাংলাদেশও একই রকম ভিসা দেবে। ভারতের অনলাইন টাইমস অব ইন্ডিয়া এ খবর দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশী নাগরিকরা ভারতে পৌঁছামাত্র তাদের ভিসা দেয়ার বিষয়ে একটি নতুন ভ্রমণ সংক্রান্ত চুক্তি বাংলাদেশের সঙ্গে স্বাক্ষর করার পরিকল্পনা করছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। ইংরেজি নতুন বছরের জানুয়ারি মাসে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হতে পারে। ওই সময়ে ঢাকা সফর করার কথা রয়েছে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে’র। এই সফরের সময়ে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. ম. খা. আলমগীরের সঙ্গে তিনি ওই চুক্তি স্বাক্ষও করতে পারেন। চুক্তি স্বাক্ষরিত হযে গেলে তা বাস্তবায়ন শুরু হবে এপ্রিল থেকে। এর মধ্যে আইনগত ও অন্যান্য বিষয়ে কাজ শেষ করা হবে। বাংলাদেশের সঙ্গে যেসব বাঁধা আছে তা কাটিয়ে উঠতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ২০১১ সালের সেপ্টেম্বওে তিস্তা চুক্তি করতে ব্যর্থতার জন্য বাংলাদেশ হতাশ হয়ে আছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আপত্তির কারণে ওই চুক্তি সম্পন্ন করা যায় নি। যখন তিস্তা চুক্তি স্থবির অবস্থায় আছে তখনও মমতা তার আগের অবস্থানে স্থির আছেন। তবে এ বিষয়টিকে পাশ কাটিয়ে যেতে চাইছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সালমান খুরশিদ। এ মাসে নয়া দিল্লিতে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. ম. খা. আলমগীরের সঙ্গে তার দ্বিপক্ষয়ি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সেই আলোচনার ভিত্তিতে দু’ দেশের সম্পর্কে নতুন মাত্রা যুক্ত হয়েছে। প্রাথমিকভাবে এই ‘পৌঁছামাত্র ভিসা’ (ঠরংধ-ড়হ-ধৎৎরাধষ) দেয়া হবে কয়েকটি ক্যাটেগরিতে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। বলা হয়েছে, একই রকম ভিসা ভারতীয় নাগরিকদে দিতে সম্মত হয়েছে বাংলাদেশও। ভারতীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, যেসব রোগি চিকিৎসার জন্য ভারতে যাবেন, যাদের বয়স ৬৫ বছরের ওপওে এবং ১২ বছরের কম বয়সী কোন শিশু তার পিতামাতার সঙ্গে গেলে তাদেরকে ওই ভিসা দেয়া হবে। এছাড়া ব্যবসায়ী ও গ্র“পে ভ্রমণে গেলে তাদেরকেও এই ভিসা দেয়ার প্রক্রিয়া চালু করার কথা রয়েছে। এই ভিসার মেয়াদ থাকবে দু’মাস।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট