Widgetized Section

Go to Admin » Appearance » Widgets » and move Gabfire Widget: Social into that MastheadOverlay zone

বিএনপি- জামায়াতকে রাজপথে মোকাবেলার হুশিয়ারি ১৪ দলের

ঢাকা, ১৩ ডিসেম্বর : বিএনপি-জামায়াতকে আবার রাজপথে মোকাবেলার হুশিয়ারী দিয়েছেন ১৪ দলের নেতারা।
তারা বলেন, বিএনপি-জামায়াতকে আমরা আর রাজপথ ছেড়ে দেবনা। সরকারের গত চার বছরের পাওয়া না পাওয়ার অভিমান ভুলে বিএনপি-জামায়াতের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তাই রাজনৈতিক কর্মসূচি দিয়ে ঘরে না বসে থেকে মাঠে নামতে হবে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর ১৪ দল আয়োজিত এক বর্ধিত সভায় জোটের নেতারা এ সব কথা বলেন।
মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সভাপতিত্বে সভায় বক্তৃতা করেন,আইনপ্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, জাসদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মীর হোসেন আকতার, বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টির সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান মল্লিক।সভায়  উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের সহ-সভাপতি মুকুল চৌধুরী, ফয়জউদ্দিন মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, ন্যাপ (মোজাফ্ফর) নেত্রী নাসিমা হক রুবী, গণতন্ত্রী পার্টির কমল ঘোষ, জাসদের নাজমুল হক প্রধান, মো. শহিদুল ইসলাম, কমিউনিষ্ট কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক অসিত বরন রায়সহ ১৪ দলের নগর নেতৃবৃন্দ।
তারা র্আও বলেন, শুধু আওয়ামী লীগ বা শুধু ১১ দল না। জোটের শরিক প্রত্যেকটি দলের আলাদা আলাদা কর্মর্সূচি রাখার পাশাপাশি জোটের কর্মসূচিতে প্রত্যেক দলের নূন্যতম অংশগ্রহন নিশ্চিত করণের মাধ্যমে যুদ্ধাপরাধের বিচারের রায় বাস্তবায়ন ও বিএনপি-জামায়াতের কর্মসূচির মোকাবেলা করতে হবে।
সভায় ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও  আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাড. কামরুল ইসলাম বলেন, বিএনপি-জামায়াত দেশে একটি বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টির মাধ্যমে তৃতীয় শক্তির আদলে একটি সরকারকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় বসানোর পায়তারা করছে। আন্তর্জাতিক মহলে দেশকে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্র হিসেবে প্রমান করতে চায়। এজন্যই তারা বিচার বিভাগসহ সকল ক্ষেত্রে ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। এজন্য তারা হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করছে।
তিনি বলেন, শুধু রাজনৈতিক কর্মসূচি দিয়ে এ ষড়যন্ত্র ঠেকানো যাবে না। এজন্য বিভিন্ন পেশাজীবী ও শ্রমজীবী মানুষের সঙ্গে ধারাবাহিক ভাবে মতবিনিময় ও আলোচনা করতে হবে। বিএনটি-জামায়াতের আসল রুপ তাদের সামনে উপস্থাপনের মাধ্যমে দেশে একটি গনজোয়ার সৃষ্টি করতে হবে। এজন্য ১৪ দলসহ প্রগতিশীল সকল শক্তির ঐক্যের বিকল্প নেই।
ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম বলেন, সকল অপশক্তিকে প্রতিহত করতে ১৪ দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে আলোচনার মাধ্যমে ধারাবাহিক ভাবে দেশব্যাপি কর্মসূচি দেবে। কিছুতেই ষড়যন্ত্রের কাছে মাথানত বা পরাজিত হওয়া যাবে না।
বৈঠকে জাতীয় সমাজতান্ত্রীক দল জাসদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মীর হোসেন আকতার বলেন, কর্মসূচি এর আগেও দেয়া হয়েছে। কিন্তু কেউ মাঠে নামেনি। এবারের কর্মসূচি আমাদের অস্তিত্ত্ব টিকিয়ে রাখার জন্য। তাই সব অভিমান ভুলে ২২ তারিখের কর্মসূচিতে ব্যাপক অংশগ্রহন নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় ষড়যন্ত্রকারীরা মরন কামড় দেবে।
বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টির সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান মল্লিক বলেন, সাপের সাথে লড়ছি আমরা। এদের উতসাহ দিচ্ছে দেশী-বিদেশী চক্র। এদের প্রতিহত করতে হলে টেবিল চেয়ারে বসে প্লান করলে চলবে না।
তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাদের বিচার পন্ড করতে শুধু জামায়াত-শিবির না এদের সাথে বিএনপিসহ সাম্প্রদায়িক অপশক্তিগুলো ঐক্যবদ্ধ। মার্কিন মদদতো রয়েছেন। কারণ বিএনপি-জামায়াতের ডাকে দেশে যখন হরতালের নামে নৈরাজ্য চলছে তখন মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী রবার্ট ব্লেক উদ্বেগ প্রকাশ করে সরকারকে এদের সাথে সমঝোতায় বসার তাগিদ দিচ্ছে।

Share this:
Share this page via Facebook Share this page via Twitter

LIKE US on FACEBOOK নিউজ সোর্স b24/মজ / ডেস্ট